Home Tags Posts tagged with "নোয়াখালীতে পরকীয়ার জের ধরে টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার নিয়ে প্রবাসীর স্ত্রী উধাও"

নোয়াখালীতে পরকীয়ার জের ধরে টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার নিয়ে প্রবাসীর স্ত্রী উধাও

নোয়াখালীর সুধারাম থানার পশ্চিম নরোত্তমপুর গ্রামে পরকীয়ার জের ধরে নগদ টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার নিয়ে এক কুয়েত প্রবাসীর স্ত্রী উদাও হয়েছে। ২০ দিন পরেও উদ্ধার হয়নি কিংবা বাড়ি ফেরেনি এই নববধূ। এই ঘটনায় ওই প্রবাসীর পিতা আব্দুর রব বাদী হয়ে সুধারাম মডেল থানায় বৃহস্পতিবার একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন। বৃহস্পতিবার দুপুরে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

প্রবাসীর পিতা আব্দুর রব জানান, ২০১৯ সালের ২৩ মে তার প্রবাসী ছেলে কুমিল্লা জেলার মনোহরগঞ্জ থানার বড় চাঁদপুর গ্রামের আমিন ড্রাইভারের বাড়ির জাহাঙ্গীর আলমের মেয়ে সুমাইয়া আক্তারকে (২১) পারিবারিকভাবে বিয়ে করে। বিয়ের দুই মাস পর জীবিকার তাগিদে স্ত্রীকে রেখে কুয়েত চলে যায়। ইতিমধ্যে করোনার কারণে দেশে আসতে পারেনি।

এই সুযোগে গৃহবধূ সুমাইয়া একটি ছেলের সাথে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়ে, গৃহবধূর পিতার পরিবার সোনাইমুড়ীর বাংলাবাজার এলাকায় ভাড়া থাকতো।গত ২২ জানুয়ারি ভোরে সুমাইয়া স্বামীর বাড়ি থেকে ১০ ভরি স্বর্ণ ও নগদ ৫ লক্ষ টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়। অনেক খোঁজাখুঁজি করেও তাকে পাওয়া যায়নি। তার মোবাইল নাম্বারও বন্ধ রয়েছে।

সুধারাম থানার এস আই রাহুল চৌধুরী জানান, আমি প্রাথমিক তদন্ত করছি, সুধারাম থানার ওসি (তদন্ত) ফজলুল হক পাটোয়ারী জানান, তদন্ত করে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।নোয়াখালীতে পরকীয়ার জের ধরে টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার নিয়ে প্রবাসীর স্ত্রী উধাও ।

এমডি ইলিয়াস নোয়াখালী প্রতিনিধি
নোয়াখালীর সুধারাম থানার পশ্চিম নরোত্তমপুর গ্রামে পরকীয়ার জের ধরে নগদ টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার নিয়ে এক কুয়েত প্রবাসীর স্ত্রী উদাও হয়েছে। ২০ দিন পরেও উদ্ধার হয়নি কিংবা বাড়ি ফেরেনি এই নববধূ। এই ঘটনায় ওই প্রবাসীর পিতা আব্দুর রব বাদী হয়ে সুধারাম মডেল থানায় বৃহস্পতিবার একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন। বৃহস্পতিবার দুপুরে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

প্রবাসীর পিতা আব্দুর রব জানান, ২০১৯ সালের ২৩ মে তার প্রবাসী ছেলে কুমিল্লা জেলার মনোহরগঞ্জ থানার বড় চাঁদপুর গ্রামের আমিন ড্রাইভারের বাড়ির জাহাঙ্গীর আলমের মেয়ে সুমাইয়া আক্তারকে (২১) পারিবারিকভাবে বিয়ে করে। বিয়ের দুই মাস পর জীবিকার তাগিদে স্ত্রীকে রেখে কুয়েত চলে যায়। ইতিমধ্যে করোনার কারণে দেশে আসতে পারেনি।

এই সুযোগে গৃহবধূ সুমাইয়া একটি ছেলের সাথে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়ে, গৃহবধূর পিতার পরিবার সোনাইমুড়ীর বাংলাবাজার এলাকায় ভাড়া থাকতো।গত ২২ জানুয়ারি ভোরে সুমাইয়া স্বামীর বাড়ি থেকে ১০ ভরি স্বর্ণ ও নগদ ৫ লক্ষ টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়। অনেক খোঁজাখুঁজি করেও তাকে পাওয়া যায়নি। তার মোবাইল নাম্বারও বন্ধ রয়েছে।

সুধারাম থানার এস আই রাহুল চৌধুরী জানান, আমি প্রাথমিক তদন্ত করছি, সুধারাম থানার ওসি (তদন্ত) ফজলুল হক পাটোয়ারী জানান, তদন্ত করে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।