Home Tags Posts tagged with "চট্টগ্রামে মোহরা ওয়ার্ডে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ"

চট্টগ্রামে মোহরা ওয়ার্ডে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

0 0

নিজস্ব প্রতিবেদক ঃ

মোহরা ওয়ার্ডে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ ও আলোচনা সভায় আবুল হাশেম বক্কর নতুন প্রজন্মের কাছে জিয়াউর রহমান দেশপ্রেমিক ও সাহসী বীর হিসেবে বেঁচে থাকবেন।

চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব আবুল হাশেম বক্কর বলেছেন, শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান বাংলাদেশের ইতিহাসে এক সমুজ্জল নাম। মুক্তিযুদ্ধে জিয়াউর রহমানের যে অবদান তা জাতি সারাজীবন স্বরণ রাখবে। আওয়ামী লীগ সরকার যতই ইতিহাস বিকৃত করুক না কেনো, নতুন প্রজন্মের কাছে জিয়াউর রহমান তত জনপ্রিয় আর একজন দেশপ্রেমিক ও সাহসী বীর হিসেবে বেঁচে থাকবেন।

বাংলাদেশের স্বাধীনতা স্বার্ভৌমত্ব থাকবে, এদেশের আকাঁশে যতদিন লাল সবুজের পতাকা উড়বে ততদিন জিয়াউর রহমান থাকবেন। জিয়াউর রহমান মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসে এক অবিচ্ছেদ্য অংশ, বাংলাদেশের ইতিহাসে তিনি অমর হয়ে থাকবেন।

সোমবার (৩১ মে) নগরীর ৫নং মোহরা ওয়ার্ডে শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৪০তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে ওয়ার্ড বিএনপি আয়োজিদ খাদ্য সামগ্রী বিতরণ ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বিকৃত করার অংশ হিসেবে জিয়াউর রহমানকে নিয়ে ষড়যন্ত্র, অপপ্রচার চালিয়ে আসছে। তারই অংশ হিসেবে মুক্তিযুদ্ধে বীরত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখার জন্য দেওয়া বীর উত্তম খেতাব কেড়ে নিতে উঠেপড়ে লেগেছে।

কাজীর দেউড়ি জিয়া স্মৃতি জাদুঘরের নাম মুছে ফেলার জন্য ইতিমধ্যে বিভ্রান্তিমূলক বক্তব্য দিচ্ছে। এ চট্টগ্রামের মাটিতে জিয়াউর রহমান শাহাদাৎ বরণ করেছেন, এখানে মিশে আছে শহীদ জিয়ার রক্ত। জিয়াউর রহমানকে নিয়ে কোনো ষড়যন্ত্র হলে চট্টগ্রামবাসী তারঁ দাঁতভাঙা জবাব দিতে প্রস্তুত।

প্রধান বক্তার বক্তব্যে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা বিএনপির আহবায়ক আবু সুফিয়ান বলেন, ১৯৭১ সালে জিয়াউর রহমান এ চট্টগ্রামের কালুরঘাট বেতার কেন্দ্র থেকে স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়েছেন। তার ঘোষণায় বাংলার মানুষ স্বাধীনতা যুদ্ধে ঝাপিয়ে পড়েছেন। রণাঙ্গনে যুদ্ধ করে তিনি বাংলাদেশকে শত্রæ মোকাবেলা করেছেন। এ সরকার সে ইতিহাস বিকৃত করে নতুন প্রজন্মের কাছে বিকৃত ইতিহাস উপাস্থাপন করছেন।

আওয়ামী লীগ নেতারা জিয়াউর রহমান, বেগম খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের নামে বিভিন্ন অপবাদের বুলি ছুড়ছেন। জিয়া পরিবারের জনপ্রিয়তাকে আওয়ামী লীগ ভয় পায়। তাই তারা বিএনপি ও বিএনপি’র নেতাদের নামে কুৎসা রটিয়ে জনবিচ্ছিন্ন করার অপপ্রয়াস চালাচ্ছে। দেশের মানুষ এখন তাদের এসব মিথ্যা ভিত্তিহীন কথা বিশ্বাস করে না। দেশবাসী জানে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের কাজই হচ্ছে বিএনপির নামে কুৎসা রটানো।

৫নং মোহরা ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি জানে আলম জিকুর সভাপতিত্বে খাদ্য বিতরন ও আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক ইয়াসিন চৌধুরী লিটন, সদস্য মাহবুবুর আলম, নাজিম উদ্দীন আহমদ, আনোয়ার হোসেন লিপু , চাঁন্দাগাও থানা বিএনপি সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন ভূইয়া, ৫নং ওয়ার্ড বিএনপির নেতা দিদারুল আলম হিরামন,

ইকবাল চৌধুরী, শহিদুল ইসলাম বাদশা, মোহাম্মদ ইব্রাহিম, নুরুল আলম লিটন, বিএনপি নেতা মানিক চৌধুরী, দানু সাওদাগর, চান্দঁগাও থানা যুবদলের আহবায়ক গুলজার হোসেন, যুগ্ম আহবায়ক মোর্শেদ কামাল, ওয়ার্ড যুবদলের আহবায়ক আকতার হোসেন, থানা যুবদলের যুগ্ম আহবায়ক নুর নবী, মো ফরহাদ, ইউসুফ লিটন, মো ইস্কান্দার, নাসির উদ্দিন, মোঃ আলমগীর, মোঃ সাবের, জয়নাল আবদিন, শহিদুল ইসলাম ছোটন, আনিসুর রহমান ইমন, মনছুর আলম, সোলাইমান, সরওয়ার হোসেন, ইলিয়াছ প্রমূখ।