Home বরিশাল

0 0

সংবাদদাতা: পটুয়াখালীর সদর উপজেলার কমলাপুর ইউনিয়নের মধ্য ধরান্দী গ্রামে নারিকেল গাছ থেকে পড়ে এক যুবকের রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গেছে । গতকাল রবিবার বিকেল ছয়টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত জলিল( ৩৫) ওই গ্রামের মেনাজের ছেলে।

এ ব্যাপারে গাছের মালিক রহম হাওলাদার কে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি স্বীকার করেন যে তার গাছ থেকেই পড়ে গিয়ে ওই যুবকের মৃত্যু হয়। কোনরকম সচেতনতামূলক ব্যবস্থা নিয়ে তাকে গাছে উঠানো হয়েছে কিনা এমন প্রশ্নে তিনি বলেন যে তাকে কোন ধরনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করানো হয়নি।

স্থানীয় ইউপি সদস্য মনির বলেন,সাবেক চেয়ারম্যান সালাম মৃধা, রহম হাওলাদার জেলা প্রশাসক অফিসে একজন আত্মীয়ের চাকুরীর প্রভাব খাটিয়ে লাশ দাফনের লিখিত অনুমমতি এনেছে কিন্ত লিখিত কপি কাউকেই তারা দেখাই নি।

এ দিকে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ভুক্তভোগী ব্যক্তি গাছ থেকে পড়ে গিয়ে অনেকক্ষণ পর্যন্ত অজ্ঞান অবস্থায় ছিলেন। তাকে রহম হাওলাদার কোনরকম হাসপাতালে নেয়ার চেষ্টা করেন নি । এমনকি মৃত জলিলের পরিবারকে দুর্ঘটনা সম্পর্কে কমপক্ষে দুই ঘন্টা পরে জানানো হয়। অতি দ্রুত তাকে হাসপাতালে নিলে হয়তো বাঁচানো যেত বলে অনেকেই মত প্রকাশ করেন। রহম হাওলাদার ভুক্তভোগীর মৃত্যু নিশ্চিত করার জন্য এমন কাণ্ড করে থাকতে পারেন বলে মনে করেন এলাকাবাসী ।

নিহত জলিলের পরিবার জানায়, রহম হাওলাদারের সাথে তাদের জমিজমাসংক্রান্ত অনেক বিরোধ অনেক আগ থেকে চলে আসছিল। রহম হাওলাদার নাকি তাদের জমি অনেকদিন ধরেই জোর জবর দখল করে ভোগ দখল করেন। নিহত জলিলের স্ত্রী বলেন, রহম হাওলাদার এর ছেলে এক ধরনের সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড চালিয়ে বেড়ায় অত্র এলাকায় এমনকি অত্র দুর্ঘটনা নিয়ে ভুক্তভোগীদের সাথে বাকবিতন্ডা হলে, রহম হাওলাদারের ছেলে নিহত জলিলের স্ত্রীকে লাঠিসোটা নিয়ে মারধর করতে দৌড়ে যায়। নিহতের পরিবার থেকে আর কোন ধরনের বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

স্বজনকে হারিয়ে তারা অনেকটা নিস্ব হয়ে গিয়েছেন। এ ব্যাপারে তারা ভেবে-চিন্তে সিদ্ধান্ত নেবেন বলে জানা গেছে। এ ব্যাপারে থানায় আপাতত একটি অপমৃত্যুর মামলা রুজু করা হয়েছে। উল্লেখ্য রহম হাওলাদার আজাহার মেম্বার হত্যাকান্ডে জড়িত ছিল বলে অভিযোগ রয়েছে। আজহার মেম্বার হত্যাকাণ্ডে রহম হাওলাদারকে অনেক দিন জেল খাটতে হয়েছিল।

জানা গেছে নিহতের পরিবারের উপর চাপ সৃষ্টি করে পটুয়াখালী জেলা প্রশাসক কে ভুল বুঝিয়ে তার অনুমতি নিয়েই তড়িঘড়ি করে লাশ দাফন করে দেয় রহম হাওলাদার।

এ ব্যাপারে পটুয়াখালী থানার অফিসার ইনচার্জ বলেন যদি কোন ধরনের অভিযোগ আসে তাহলে অবশ্যই এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

তসলিম হাসান হৃদয়:বরিশালে মুলাদী উপজেলায় বর্তমানে চোরের উপদ্রব অনেক বেড়ে গেছে। আজ ১২-০১-২০২১ রোজ বুধবার গাছুয়া, হোসনাবাদ গ্রামের এলাকায় গিয়ে জানা যায় একে সাথে ৩ ঘরের মাটি খুড়ে আর এক ঘরে জানালার গ্রিল কেটে চোর ঢুকে।

মঞ্জুরুল সিকদারের ঘর থেকে মোবাইল ও নগদ টাকা, সেই সাথে কাঞ্চন সিকদারের বাসায় নগদ অর্থ ও মুল্যবান জিনিসপত্র নিয়ে যায় তাছাড়া অন্য ঘর গুলোর থেকেও মোবাইল ও নগদ অর্থ নিয়ে যায়।

১১-০১-২০২১ গতকাল মিয়ার হাট বাজার মন্নান সিকদারের দোকান থেকে নগদ অর্থ ও দোকানের মালামাল নিয়ে যায়। এক ভুক্তভোগী জানায় কিছুদিন যাবত রাতের বেলা এলাকায় কিছু অপরিচিত লোকের আনাগোনা দেখা যায়,

এছাড়া ধারণা করা হয় এলাকার খারাপ লোকদের সহযোগিতায় এই কাজ বাহিরের লোক করে। এছারাও এলাকায় গাঞ্জা ও হেরোইনের সেবন বেড়ে গেছে যুবকদের মধ্যে, এদের দারাও এই চুরি হতে পারে বলে মনে করে এলাকার লোকজন।

এসব চোরের উৎপাত থেকে বাচতে এলাকার মসজিদের মাইকে সবাইকে সাবধানে থাকতে বলা হয়েছে। এলাকার লোকজনের মধ্যে একটা ভীতিকর পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে।

0 0

ভোলা জেলা প্রতিনিধি:নতুন বছরে সন্তানকে বিদ্যালয়ে ভর্তি এবং চাকুরীজীবি পিতামাতার ইএফটি (ইলেক্ট্রনিক ফান্ড ট্রান্সফার) করাতে বা অন্যান্য কারনে সন্তানের জন্মনিবন্ধন প্রয়োজন৷ কিন্তু
দেশে নতুন নিয়মে সন্তানের জন্মনিবন্ধন করতে প্রয়োজন বাবা ও মায়ের জন্মনিবন্ধনের কাগজ। বাবা কিংবা মায়ের জন্মনিবন্ধনে প্রয়োজন পড়ছে তাঁদের বাবা-মায়ের জন্মনিবন্ধন। অর্থাৎ শিশুর জন্মনিবন্ধনে দাদা-দাদীর জন্মনিবন্ধনের কাগজের প্রয়োজন পড়ছে। কিন্তু দাদা-দাদীর জন্মনিবন্ধনের কাগজ না থাকায় পড়তে হচ্ছে ভোগান্তিতে। এ অবস্থায় ‘আদি’ পুরুষের নিবন্ধন নিয়ে বেগ পেতে হচ্ছে জন্মনিবন্ধন করতে আসা প্রায় প্রতিটি নাগরিকের।

রবিবার (১০ জানুয়ারি) সকাল ১০টা চরফ্যাশন পৌরসভা কার্যালয় জন্মনিবন্ধন শাখায় দেখা যায় উপচে পরা ভিড়৷ সন্তানের জন্মনিবন্ধন করতে না পেরে দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তাদের সাথে বাকবিতন্ডায় জড়িয়ে পরছে অনেকেই৷

তবে এখানেই কিন্তু শেষ নয়৷ সন্তানের জন্মনিবন্ধনের প্রয়োজনে লাগবে বাড়ির হোল্ডিং নম্বর, পৌর কর পরিশোধের রশিদ৷ আপনি ভাড়াটিয়া হলে বাসার মালিকের। আরো আছে, শিশুর জন্মের নিশ্চয়তার জন্য প্রয়োজন চিকিৎসকের সনদ অথবা টিকা কার্ডের কপি৷ এরপর রয়েছে নানা ধরণের প্রক্রিয়া। আর এসব প্রক্রিয়া শেষে শিশুর জন্মনিবন্ধন পেতে লেগে যাচ্ছে দিনের পর দিন। স্কুলে ভর্তির জন্য প্রস্তুত শিশুদের অভিভাবকদের ভোগান্তির যেন শেষ নেই।

চরফ্যাশন পৌর ৪নং ওয়ার্ড ভদ্র পাড়ার বাসিন্দা মোঃ ইব্রাহিম এমন ভোগান্তির কথা স্বীকার করে বলেন, ইতিপূর্বে জন্মনিবন্ধন কে এতোটা গুরুত্ব দেয়া হয়নি৷ জাতির পরিচয় পত্র করার সময় জন্মনিবন্ধন থাকা বাধ্যতামূলক হলে এখন অভিভাবকগণ এতো হয়রানি হতোনা৷ সরকার যদি বর্তমান নিয়মটা সহজ করে দেন তাহলে ভালো হয়।

ভুক্তভোগী শাহানাজ পাভিন বলেন, আগে শুধু অভিভাবকের জাতীয় পরিচয় পত্র (আইডি কার্ড) দিয়ে সন্তানের জন্মনিবন্ধন করা যেতো। এখন আমাদের জন্মনিবন্ধনও চাওয়ায় বিপাকে পড়তে হয়েছে। সন্তানের জন্মনিবন্ধন না করতে পেরে ভালো স্কুলে ভর্তি করানো অনিশ্চিত হয়ে পরেছে৷ তিনি সরকারের নিকট আগের নিয়মে সহজভাবে জন্মনিবন্ধনের দাবি জানান৷

চরফ্যাশন পৌরসভা নিবন্ধন শাখার কর্মকর্তা বলেন, এ বিষটি নিয়ে সাধারন মানুষের সঙ্গে আমাদের ভুল বুঝাবুঝির সৃষ্টি হচ্ছে। সরকার থেকে অনলাইনে যে ফরমেটে দেয়া হয়েছে এসকল তথ্যের একটিও ব্যতিত ফর্ম সাবমিট করা সম্ভব নয়৷ এখানে আমাদের কোন হাত নেই৷ আমরাও চাই দ্রুত এ বিষয়ে নতুন করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হোক।

ডেস্ক রিপোর্ট::ঝালকাঠী জেলার নলছিটি উপজেলার সিদ্ধকাঠী ইউনিয়নের সাবেক ইউপি সদস্য খোকন মৃধার বিরুদ্ধে অন্যের জমি দখলের অভিযোগ পাওয়া গেছে।
সিদ্ধকাঠীতে ইউনিয়নের সাবেক ইউপি সদস্য খোকন মৃধা অন্যের জমি দখল নিতে তার সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে দীর্ঘ দিন ধরে পায়তারা করে আসেন, সাবেক ইউপি সদস্য খোকন মৃধা এলাকায় বেশ সু -পরিচিতি পেয়েছেন ভূমিদস্য হিসেবে ইউপি সদস্য র্নিবাচনে হের যাওয়ার পর হয়ে উঠেন বেপরোয়া গরেতোলেন সন্ত্রাসী বাহিনী, সেই বাহিনী দিয়ে অন্যের জমি নিজের করে দখল নেয়া ডাঙ্গা হামলা সহ আরো বিভিন্ন অপকর্মের যেনো শেষ নেই।

সিদ্ধকাঠী ইউনিয়নের চৌদ্দ বুড়ির গ্রামের বাসিন্দা লোকমান মল্লিকের পত্রিক সম্পত্তি দখল নিতে দৃঘো দিন ধরে পায়তারা করে আসছেন, যখন জমি দখল নিতে গিয়ে ব্যর্থ হন তখনি সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে ডাঙ্গা হামলা চালায় ও মের ফেলার হুমকি দেন, তথা লোকমান মল্লিকের পরিবারে উপর, খোকন মৃধা একসময় ইউপি সদস্য ছিলেন ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা আছে ইউপি সদস্যর র্নিবাচন করার তবুও তিনি আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল না।

খোকন মৃধা জ্বালায় অতিস্ঠ লোকমান মল্লিকসহ আরো অনেকে , খোকন মৃধা লোকমান মল্লিকের পিতার সম্পত্তি দখলের জন্য তার পরিবারের উপর হামলা ও ভাংচুর সহ লুটতরাজ করছে তার নির্যাতন সইতে না পেরে ০২/৩/২০২০ ইং তারিখে নলছিটি থানায় গিয়ে সাবেক ইউপি সদস্য খোকন মৃধা সহ ৪ জনে বিরুদ্ধে সাধারণ ডাইরি করেন যাহার জিডি নং ৮৫ নলছিটি থানায় সাধারণ ডায়েরি করেও লোকমান মল্লিক কোন শুফল পাইনি।

খোকন মৃধা আরো ক্ষিপ্ত হয়ে তার সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে লোকমান মল্লিকের পত্রিক সম্পত্তি কেড়ে নেওয়ার জন্য উঠেপড়ে লাগেন শুরু করেন লুটতরাজ মধ্যরাতে লোকমান মল্লিকের বাড়িতে গিয়ে খোকনের সন্ত্রাসী বাহিনী ডাঙ্গা হামলা ভাঙচুর শুরু করে সেই সাথে নগদ ৩০০০০ হাজার টাকা কিছু স্বর্ণলংকার লুট করে নিয়ে যায় এমত অবস্থায় উপায়ন্তর না পেয়ে লোকমান মল্লিক বরিশাল র্যাব ৮ এর সহযোগিতার জন্য র্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটেলিয়ান র্যাব ৮ অধিনায়ক বরাবর সদর দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দেন জুলুমবাজ অত্যাচারী ওসন্ত্রাসী বাহিনীর প্রধান সাবেক ইউপি সদস্য খোকন মৃধার বিরুদ্ধে ১২/৭/২০২০ তারিখে।

বারবার থানায় অভিযোগ র্যাবের কাছে অভিযোগ ডাইরি সহ দেয়ার পরও শান্ত হয়নি ভূমিদস্যু খোকন মৃধা ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী এতকিছুর পরেও খোকন মৃধা অন্যের জমি দখল নেয়ার পায়তারা করেন কি করে তার খুটির জোর কোথায় আবারো লোকমান মল্লিকের পত্রিক জমি জমা দখল দেওয়ার চেষ্টা করেন তাকে বাধা দিলে খোকন মৃধা সহ তার সন্ত্রাসী বাহিনী লোকমান মল্লিকের পরিবারের উপর হামলা চালায় ৪/১০/২০২০ ইংরেজি তারিখে হামলার শিকার লোকমান মল্লিক আবারো নলছিটি থানা ইনচার্জ বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দেন ও প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সুদৃষ্টি কামনা করেন ভূমিদস্যু জুলুমবাজ ও সন্ত্রাসী কার্যকলাপে লিপ্ত সাবেক ইউপি সদস্য খোকন মৃধার হাত থেকে রেহাই পেতে।

0 0

মোবাশ্বের আলম ভোলা জেলা প্রতিনিধি:

“গণমাধ্যম জীবনের আয়না,
সংবাদকর্মী জাতির বিবেক,,
এই স্লোগানকে সামনে রেখে লালমোহন বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের হলরুমে, লালমোহন মিডিয়াকে ক্লাবের গৌরবের নবম বর্ষে পদার্পণ আন্তর্জাতিক তথ্য অধিকার দিবস উপলক্ষে লালমোহন মিডিয়া ক্লাব সম্মাননা ২০২০ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

অষ্টম বছর শেষ করে নবম বর্ষে পদার্পণের এই মহতী সময়ে লালমোহন মিডিয়া ক্লাব সমাজসংস্কৃতির বিভিন্ন ক্ষেত্রে মূল্যবান অবদানের স্বীকৃতি স্বরূপ স্বদেশ ও বিদেশে ক্রিয়াশীল ভোলার ৯ গুণীকে সম্মাননা প্রদান করা হয়েছে ।

সম্মাননা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেনঃ – লালমোহন মিডিয়া ক্লাবের প্রধান পৃষ্ঠপোষক ভোলা ৩ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন । বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেনঃ – লালমোহন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা অধ্যক্ষ গিয়াসউদ্দিন আহমেদ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার লালমোহন সার্কেল
মোঃ রাসেলুর রহমান,ভোলা জেলা নাগরিক ফোরামের (দক্ষিণ) সভাপতি এম আবু সিদ্দিক, চরফ্যাশনের নারী নেত্রী মামুদা খানম মিলিসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ।
সভাপতিত্ব করেছেন লালমোহন মিডিয়া ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি কবি রিপন শান ।

সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে, করোনাকালীন স্বাস্থ্যবিধি মেনে, নির্বাচিত গুণীজনদের হাতে তুলে দেয়া হয় লালমোহন মিডিয়া ক্লাব পুরস্কার ২০২০। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি এমপি শাওন ৯ গুনী ব্যাক্তিকে ক্রেষ্ট তুলে দেন।

অনুষ্ঠানে লালমোহন মিডিয়া ক্লাব সম্মাননা পেয়েছেনঃ জনবান্ধব ভোলা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মাসুদ আলম ছিদ্দিক (সুশাসনে)। অস্ট্রিয়া বাংলাদেশ প্রেসক্লাব সভাপতি ও দৈনিক ইউরো সমাচার সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা সাংবাদিক মাহবুবুর রহমান (বিশ্ব সাংবাদিকতায়)। চরফ্যাসন সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ কায়সার আহমেদ দুলাল (সাহিত্যে)। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার লালমোহন সার্কেল জনাব মোঃ রাসেলুর রহমান (সামাজিক ন্যায়বিচার)। অস্ট্রিয়া আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জনাব সাইফুল ইসলাম কবির (সমাজকল্যাণ)। লালমোহন পৌরসভা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধার সন্তান আলহাজ্ব সফিকুল ইসলাম বাদল (জনসেবায়)। লালমোহন বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক জনাব নুর মোহাম্মদ মাস্টার (শিক্ষায়)। বিবিসির ব্রডকাস্ট জার্নালিস্ট রাকিব হাসনাত সুমন (সাংবাদিকতায়)। এবং ওয়াটার এন্ড স্যানিটেশন ফর আরবান পুয়র ‘ডব্লুইএসইউপি’ সংস্হার ফিন্যান্স ম্যানেজার মাকসুদ তালুকদার (এনজিও সমাজকর্ম)।

অনুষ্ঠানের প্রথমেই মিডিয়া ক্লাব সম্মাননা ২০২০ অনুষ্ঠানের সভাপতি লালমোহন মিডিয়া ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি কবি রিপন শান শুভেচ্ছা বক্তব্য প্রদান করেন ।

অনুষ্ঠানে সম্মাণনা ভূষিত চরফ্যাশন সরকারি কলেজ এর অধ্যক্ষ কায়সার আহমেদ দুলাল তার অনুভূতি প্রকাশ করে বলেন সম্মান পেতে সকলেরই ভালো লাগে। গুণী লোকের গুনের সম্মান করলেই দেশে আরও গুণী জন্মাবে। সম্মাণীত লোককে সম্মাণীত করলেই আত্নতৃপ্তি পাওয়া যায়। আমাদেরকে নির্বাচন করার জন্য লালমোহন মিডিয়া ক্লাবকে অভিনন্দন।

এ সময় অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি এমপি আলহাজ্ব নূরুন্নবী চৌধুরী শাওন বলেছেন, বর্তমান সরকার মিডিয়া বান্ধব সরকার। এই সরকারের আমলে সংবাদপত্র সবচেয়ে বেশি স্বাধীন। সংবাদকর্মীরা যাতে নিরাপদে কাজ করতে পারে সেজন্য সাংবাদিকদের উন্নয়নের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন।

অনুষ্ঠান শেষে জননেত্রী শেখ হাসিনার ৭৪তম জন্মদিন উপলক্ষ্যে অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ও লালমোহন মিডিয়া ক্লাব সভাপতি কেক কাটেন।

0 0

মোবাশ্বের আলম ভোলা জেলা প্রতিনিধিঃ

ভোলাট চরফ্যাসন উপজেলার দুলারহাট থানা আওয়ামীলীগ এর উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবসে জাতীয় পতাকা উত্তোলন, বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্প মাল্যদান, আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

শনিবার (১৫ই আগষ্ট) সকালে জাতীয় পতাকা উত্তলন এর মাধ্যমে এসব কর্মসূচি শুরু করা হয়েছে পরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্প মাল্যদান এবং ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি জেলা পরিষদের সদস্য আলহাজ্ব শাহাবুদ্দিন মাষ্টারের সভাপতিত্বে দুলারহাট নীলিমা জ্যাকব ডিগ্রি কলেজ হলরুমে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়

এসময় উপস্থিত ছিলেন,নীলিমা জ্যাকব ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ চরফ্যাশন পৌর আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক মনির আহমেদ শ্রভ্র, নিলকমল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও আ’লীগের সভাপতি আলমগীর হোসেন হাওলাদার,নুরাবাদ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আনোয়ার হোসেন মিয়া, নুরাবাদ ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ হোসেন মিয়া, নুরাবাদ ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি ইউছুফ আলী পন্ডিত,আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ফারুক, পশ্চিমাঞ্চল দুলারহাট ছাত্রলীগের আহবায়ক সুমন মাতাব্বর সহ আওয়ামী অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে অধ্যক্ষ মনির আহমেদ শ্রভ্র বলেন বাংলাদেশ সৃষ্ঠিতে বঙ্গবন্ধুর অবদান, ঐতিহ্য, দেশপ্রেমের গৌরবময় ইতিহাস এবং ১৯৭১ সনের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু সহ তাঁর পরিবারের সদস্যদের শাহাদৎ বরণের বিষয় তুলে ধরেন আরো বক্তব্য রাখেন নুরাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব সাহাবুদ্দিন মাস্টার এসময় তিনি ইতিহাসের ন্যাক্কারজনক এ হত্যাকান্ডের সাথে জড়িতদের যারা এখনো জীবিত আছে তাঁদের দ্রুত বিচারের দাবি জানান।

আলোচনা সভা শেষে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সহ সকল শহীদের রুহের মাগফিরাত কামনায় মিলাদ মাহফিল ও দোয়া অনু্ষ্ঠিত হয়।

test 1