Home Authors Posts by Azaz Ahmed

Azaz Ahmed

8 POSTS 0 COMMENTS

আসন্ন ঈদুল আযহাকে সামনে রেখে ঢাকার কেরানীগঞ্জ এর মধু সিটির বিপরিতে মিলিনিয়াম সিটিতে আয়োজন করা হচ্ছে বিশাল গরু-ছাগল এর বিশাল হাট, ঈদের বাকি মাত্র ৬ দিন এর মধ্যে ৭০ ভাগ কাজ শেষ করেছে হাটের ইজারাদার গং। শুরু হয়েছে দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে খামারের গরু নিয়ে আসার পর্ব এর মধ্যে কিছু কিছু খামারি আসার পর অপেক্ষায় আছে মুল হাট শুরু হওয়ার।

 

বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, এই হাটের মুল পর্ব শুরু হবে ঈদের তিন দিন আগে ব্যাপী অর্থাৎ ২৯,৩০,৩১/৭/২০২০ইং পর্যন্ত। কিন্তু যদি ক্রেতার সংখ্যা কম হয় তাহলে ঈদের দিন ও চলবে বলে জানা গেছে।

ঈদের পশুর হাট এবার অন্যবারের চেয়ে অনেকটা ব্যতিক্রম দেখা গেছে। গতবারের তুলনায় ক্রেতার সংখ্যা ছিল একেবারেই কম। তবে ঈদের তিন দিন আগে থেকে জমে উঠতে পারে বলে আসা করছেন ইজারাদার গং।

কেরানীগঞ্জের গরুর হাটে বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ছোট-বড় দেশী,নেপালি,ইন্ডিয়ান,বার্মার ইত্যাদি জাতের প্রচুর গরু উঠতে শুরু করেছে। ইজারাদার হাট নানাভাবে সাজিয়ে প্রচারণা চালিয়ে ক্রেতাদের আকর্ষণ করার চেষ্টা চালাচ্ছেন। অন্যদিকে, ক্রেতার সংখ্যা নেই বললেও চলে।

শুরু হয়েছে হাটে কুরবানীর পশু ক্রয় বিক্রয়ঃ-

২৯/০৭/২০ তারিখ সকাল থেকে শুরু হয়েছে ক্রেতার আনাগনা। দেখা গিয়েছে  দুর র্দুরান্ত থেকে আসছেন অনেক সংখ্যক মানুষ আবার কেউ কেউ আসছেন সুন্দর সুন্দর পশু দেখার উদ্দেশে এই হাটে দেখা গিয়েছে চল্লিশ হাজার টাকা থেকে শুরু করে তিন লক্ষ টাকা পর্যন্ত কুরবানীর পশু, তবে  ষাট থেকে এক লক্ষ চল্লিশ হাজার টাকার পশুর দিকে ক্রেতাদের বেশি আগ্রহ দেখা গিয়েছে, তবে তার উপরের ক্রেতারা ও আছে তবে তার সংখ্যা খুবই কম। এক ক্রেতা ও বিক্রেতার দাম কষা কষির ধারণ করা হয়েছে।

ধারণকৃত ভিডিও টি দেখতে নিছের লিংকে ক্লিক করুণ:-

https://bit.ly/2X6A2zr

 

বিশেষ  প্রতিনিধিঃ দেলোয়ার হোসাইন

 

বর্তমানে যেখানে কোভিড-১৯ এর তাণ্ডব বেড়ে চলেছে দেশে প্রতিদিন  মৃত্যুর সংখ্যা হাফ সেঞ্চুরি হাঁকাচ্ছে এবং মোট আক্রান্তের সংখ্যা দুই লক্ষাধিক।

ঢাকা এবং আসপাশের জেলাগুলোতে খুলে দেয়া হয়েছে শপিংমল,রেস্টুরেন্ট,পিকনিক স্পর্ট, হাট বাজার সহ ছোট বড় ব্যবসা প্রতিষ্ঠান শুধু মাত্র বন্ধ রয়েছে স্কুল,কলেজ এবং ইউনিভার্সিটি।

 

দেশে করোনা পরিস্থিতি যেখানে বিপর্যার মুখে ঠিক সেই সময় মানুষ তাদের উচ্চ বিলাসী ইচ্ছা পূরণ করতে বেড়াতে যাচ্ছে  নগরির বিভিন্ন জায়গায় যেমনঃ  পার্ক, খাবারের রেস্টুরেন্ট, মার্কেট , বিভিন্ন ফুড কোট আবার কেউ কেউ বের হচ্ছে বাইক এ করে তার সঙ্গিনীকে নিয়ে দই ফুচকা,চটপটি ,বার্গার এবং নানান ফাস্ট ফুড খাওয়ার উদ্দেশে। স্কুল-কলেজ খুলে নাই কিন্তু ছাত্র-ছাত্রী তারা বের হয়ে পরছে তাদের বয়ফ্রেন্ড/গার্লফ্রেন্ডদের নিয়ে বের হয়ে পড়ছে বিভিন্ন ডেটিং স্পর্ট এর উদ্দেশ্য  তাদের মাঝে নেই কোন সতর্কতা মানছে না কোন প্রকার সামাজিক দূরত্ব। আবার ও শুরু হয়েছে নিয়মিত যানজট ও ভোগান্তি। এমনটার দেখা মিলেছে কেরানীগঞ্জ এর মধুসিটি, আটীবাজারের প্রধান সড়কে ।

 

বাংলাদেশ স্বাস্থ্য অধিদপ্তর প্রতিনিয়ত  হিমসিম খাচ্ছে  কোভিড-১৯ পরিস্থিতি মোকাবেলায় কিন্তু বর্তমানে দেশের মানুষদের ভিতরে সতর্কতা কোন ছাপ মিলছে না ।  সরকার/প্রশাসন কিছুই করতে পারবে না যদি জনগণ সতর্ক না হই ।

বিশেষ প্রতিনিধিঃ দেলোয়ার হোসাইন

0 0

ঢাকার কেরানীগঞ্জ থানার আরশিনগরে ট্রাকের ধাক্কায়(অজ্ঞাত)এক অটোরিক্সা চালক নিহত হয়েছে।  তাকে উদ্ধার করে কেরানীগঞ্জ জেলা সদর  হাসপাতালে নেওয়ার পথে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করে। নিহত (অজ্ঞাত) রিক্সা চালকের লাশ কেরানীগঞ্জ থানায় হস্তান্তর করা হয় এবং ট্রাক্টিকে আটক করে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ।

কেরানীগঞ্জ  থানার দায়িত্তরত ডিউটি অফিসার জানান, আজ বুধবার রাত ৯ঃ৪৫ মিনিটে বসিলা ব্রিজ হইতে নয়া বাজার যাওয়ার পথে  এই ঘটনা ঘটে। এ সময় ওই ট্রাকটি যাত্রীবাহী অটো রিক্সাকে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থল থেকে রিক্সা চালককে উদ্ধার করে হাসপাতাল এ নিয়ে যাওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।নিহতের নাম ঠিকানা কোন কিছুই জানতে পারি নাই আমরা ।  নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করার প্রস্তুতি নিচ্ছি আমরা।

বিশেষ প্রতিনিধিঃ দেলোয়ার হোসেন

সি টি জি ট্রিবিউন প্রতিনিধিঃদেশে বেড়ে চলেছে করোনার সংক্রামণ প্রতিদিন মৃত্যুর হার ৪০ থেকে ৫০ জন । এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে ১৫,৬,৩৯১ জন , মৃত্যু হয়েছে ১,৯৮৬ জনেরও বেশী ।

স্বাস্থ্য বিধি মেনে গনপরিবহন চালানোর নির্দেশ দিয়েছে সরকার এবং বাস ভাড়া বাড়ানো হয়েছে ৫০% শতাংশ  কারণ যাতেকরে বাস ড্রাইভার/হেল্পার গাড়ীতে অতিরিক্ত মানুষ না উঠানো হয়,বাংলাদেশ (বি আর টি এ)  থেকে বলা হয়েচে ৩৬সিট এ  মাত্র ১৮ নিতে পারবে অর্থাৎ প্রতি  সিটে একজন করে বসবে এবং গাড়িতে থাকতে হবে প্রয়োজনিয় জীবানো নাশক ব্যবস্থা  কিন্তু বাস্তব চিত্রে তার প্রমান মিলছে না । এখন ও বাসে লোক উঠানো  হচ্ছে  বাসের লোক ধারন ক্ষমতার অধিক  শুধু তাই নয় প্রয়োজনে লোক নেয়া হচ্ছে বাসের ছাদে।

আজ দুপুরে খুলনা মংলা থেকে রূপসা এই রোডে এর বাস্তব চিত্র দেখা যায় । এই সময় যাত্রীদের সাথে কথা বল্লে তারা দোষ দিয়েছে সরকার/প্রশাসন এবং বাস মালিকদের। এর মধ্যে রাস্তায় দাঁড়ানো এক জন যাত্রী নাম তার সজীব সে বলছে তার কাছে মাস্ক এবং হ্যান্ড সেনিটাইজার আছে কিন্তু নেই হ্যান্ড গ্লাফস । তাকে প্রশ্ন করা হয়েছে, এই ভাবে কি সংক্রামণ কমানো সম্ভব? তখন সে বলে আসলে আমারা সচেতন না সরকার কি করবে সরকার একা কিছু করতে পারবে  না  যদি আমরা সচেতন না হই। কারন সরকার কখনো একা না জনগন নিয়ে সরকার তাই বলা হয় (বাংলাদেশ গনপ্রজাতন্ত্রী) এই বলে তিনি তার কথা শেষ  করেন।

বিশেষ প্রতিনিধি,দেলোয়ার হোসেন

    0 42

    রাজধানীর মিরপুরে রূপনগর এলাকায় শুক্রবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে একটি বাসা থেকে আলামিন (২৫) নামে এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। রূপনগর ১৯/৩ নম্বর রোডের বাসা থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। পরবর্তীতে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠায় পুলিশ।

    মৃত আলামিনের বাড়ি নেত্রকোনা বারহাট্টা উপজেলায়। বাবার নাম মো. আকবর আলী।

    রূপনগর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সুমন বণিক সুরতহাল রিপোর্টে উল্লেখ করেন, গত তিনমাস পূর্বে আলামিন গ্রামের বাড়ি নেত্রকোনার বারহাট্টায় একটি মেয়েকে বিয়ে করেছিলেন। বিয়ের কিছুদিন পর মেয়েটি তাকে তালাক দিয়ে চলে যান। এরপর তিনি ঢাকায় চলে আসেন।

    অধিকাংশ সময় আলামিন মানসিক অবসাদে ভুগতেন। ধারণা করা হচ্ছে, মানসিক অবসাদ থেকে তিনি ঘরে ফ্যানের সঙ্গে রশিতে ঝুলে আত্মহত্যা করেন।

    0 42

    না ফেরার দেশে চলে গেলেন ঢাকাই সিনেমার খ্যাতিমান অভিনেতা ওয়াসিমুল বারী রাজিবের মা হাজেরা খাতুন। বৃহস্পতিবার বেলা ১১টা ২০ মিনিটে পটুয়াখালীর দুমকি উপজেলার গ্রামীণ ব্যাংক সংলগ্ন বড় নাতি ওয়াসিমুল বারী মাসুদের বাসভবনে তিনি ইন্তেকাল করেন (ইন্নালিল্লহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজিউন)।

    তার বয়স হয়েছিল ১২০ বছর। তিনি নাতি-নাতনি ও আত্মীয়-স্বজনসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

    শ্রীরামপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম সালাম জানান, উপজেলার গ্রামীণ ব্যাংক সড়কের বড় নাতির বাসভবনের সামনে মরহুমার প্রথম নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

    একই দিন সন্ধ্যায় উপজেলার শ্রীরামপুর ইউনিয়নের গাবতলী এলাকার নিজ বাড়িতে জানাজা শেষে পারিবারিক গোরস্থানে তার লাশ দাফন করা হবে বলে জানা গেছে।

    অভিনেতা রাজীব মারা গেছেন অনেক আগেই। ২০০৪ সালের ১৪ নভেম্বর ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন তিনি। চলচ্চিত্রপ্রেমীদের হৃদয়ে আজও আছেন তিনি। এবার তার কাছেই পাড়ি দিলেন মা।

    0 46

    সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার কালনী নদীতে ঝড়ের কবলে পড়ে নৌকা ডুবে দুই যাত্রী মারা গেছেন। তবে নিহতের নাম ও পরিচয় তাৎক্ষণিক জানা যায়নি।

    জানা যায়, আজ শনিবার সকাল ১১টায় দিরাই শহর থেকে দুটি ছোট নৌকায় করে ১২ জন যাত্রী নিয়ে মারকুলি বাজারে যাওয়ার পথে উপজেলার তাড়ল ইউনিয়নের বাউল সম্রাট শাহ আব্দুল করিমের বাড়ি সংলগ্ন কালনী নদীতে ঝড়ের কবলে পড়ে দুটি নৌকা ডুবে যায়। তাতে ১০ জন যাত্রী সাঁতার কেটে তীরে উঠতে সক্ষম হলেও দুইজন যাত্রী পানির স্রোতের টানে তলিয়ে গিয়ে মারা যান।

    খবর পেয়ে স্থানীয় লোকজন বৈরী আবহাওয়ার মাঝে ও ঘটনাস্থলে গিয়ে উদ্ধার তৎপরতা চালাচ্ছেন।

    এ ব্যাপারে দিরাই থানার অফিসার ইনচার্জ কে এম নজরুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এখনো নিহতের নাম ও পরিচয় জানা যায়নি। তবে ঠিকানা জানার চেষ্টা চলছে।

    কুড়িগ্রামে উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢল ও অতিবৃষ্টিতে বন্যার পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে। জেলার উপর দিয়ে প্রবাহিত ধরলা নদী ও ব্রহ্মপুত্র, দুধকুমার নদের পানি বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এতে ১৬টি নদ-নদীর মধ্যবর্তী ৪২০টি চরের লক্ষাধিক মানুষ পানিবন্দী হয়ে পড়েছে।

    পানি উন্নয়ন বিভাগ জানায়, ধরলা নদীর পানি বিপদসীমার ৩৭ সেন্টিমিটার, ব্রহ্মপুত্র নদের পানি ৩৩ সেন্টিমিটার ও দুধকুমার নদের পানি বিপৎসীমার ১৮ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। অন্যান্য নদ-নদীর পানিও দ্রুত বাড়ছে।

    আজ শনিবার সকালে ব্রহ্মপুত্র নদের পানি চিলমারী পয়েন্টে ২৩ দশমিক ৭০ সেন্টিমিটার বেড়ে বিপদসীমার ৩৩ সেন্টিমিটার, ধরলা নদীর পানি ২৬ দশমিক ৮৭ মিটার বেড়ে বিপদসীমার ৩৭ সেন্টিমিটার এবং দুধকুমার নদের পানি ২৬ দশমিক ৫০ মিটার বেড়ে বিপদসীমা ১৮ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এ কারণে চরাঞ্চলগুলোয় পানি উঠতে শুরু করেছে। ইতিমধ্যে সহস্রাধিক বাড়িতে পানি উঠেছে।

    খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, জেলার নাগেশ্বরী উপজেলার কচাকাটা ইউনিয়নের ইন্দ্রগড়, ধনিরামপুর, শৌলমারী, জালির চর, কাইয়ের চর; বল্লভের খাস ইউনিয়নের ইসলামের চর, চর কৃষ্ণপুর, কামারের চর; নারায়ণপুর ইউনিয়নের বেশির ভাগ নিচু চরাঞ্চল; নুনখাওয়া ইউনিয়নসহ সদর উপজেলার যাত্রাপুর ইউনিয়নের চরাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে।

    এ ছাড়া ভূরুঙ্গামারী, চিলমারী, রৌমারী, রাজিবপুর ও উলিপুর উপজেলার বিভিন্ন এলাকা প্লাবিত হয়েছে। এসব এলাকার চলতি মৌসুমের ফসলি জমি পানিতে তলিয়ে গেছে। ক্ষতির কবলে পড়েছে পাট, ভুট্টাসহ বিভিন্ন সবজি।

    কৃষি বিভাগ জানায়, জেলায় ৩৭ হেক্টরের আউশ, ৯৩ হেক্টর তিল এবং ৬ হেক্টরের মরিচ পানিতে ডুবে গেছে।

    কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার যাত্রাপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান আইয়ুব আলী বলেন, ‘আমার এলাকায় ছয়টি ওয়ার্ড নদ-নদীর মধ্যবর্তী স্থানে। ১ হাজার ৫০০ পরিবার পানিবন্দী। দুই শতাধিক বাড়িতে পানি উঠেছে।’

    এদিকে, জেলায় সব নদ-নদীর পানি দ্রুত বৃদ্ধি পাচ্ছে বলে জানিয়েছেন কুড়িগ্রামের পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী