ছনহরা’র রত্নাগর্ভা মা আনোয়ার জাহান চৌধুরী মারা গেছেন

ছনহরা’র রত্নাগর্ভা মা আনোয়ার জাহান চৌধুরী মারা গেছেন

 

সিটিজি ট্রিবিউন চট্টগ্রাম:

 

রত্নগর্ভা আনোয়ার জাহান ঢাকার মনোয়ারা হাসপাতালে গত ১৫/০৯/২২/ তারিখ রাত ৭.১৫ মিনিটে মারা গেছেন।( ইন্না লিল্লাহে ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজেউন) সমাজে সন্তানদের সুশিক্ষিত এবং আগামী দিনের সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তোলার নিপুণ স্থপতি এবং সত্য ও সুন্দরের প্রতীক হিসেবে সফল এমন একজন মা পটিয়া উপজেলার ছনহরা ইউনিয়নের আলমদার পাড়া গ্রামের (৩নং ওয়ার্ড ছনহরা) আনোয়ার জাহান চৌধুরী।

মধ্যবিত্ত পরিবারে স্বামীকে নিয়ে জীবন সংগ্রামে ৭ জন সন্তানকে সুশিক্ষিত করে আলোকিত মানুষ হিসেবে গড়ে তুলেছেন তিনি। পটিয়া উপজেলা ছনহরা ইউনিয়নের আলমদার পাড়ার মরহুম আলহাজ্ব আবদুর রশিদ চৌধুরী দারোগার সাথে বিয়ে হয় তাঁর।

সংসার জীবনে তিনি ৭ সন্তানের জননী ,৫ পুত্র ও ২ কন্যা সন্তান রেখে পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করে চলে গেলেন না ফেরার দেশে, মরহুমা আলহাজ্ব আনোয়ার জাহান চৌধুরী রেখে যান তার সেই সাফল্যের সোনালী বাগান উনার সংসার, যারা আজ দেশে বিদেশে আলোকিত এবং উজ্জ্বল করছেন মা-বাবার নামকে,

উনার সন্তানরা যথাক্রমে প্রথম সন্তান: ডক্টর এ .এস .এম মহিউদ্দিন চৌধুরী, মৃত্তিকা পানি ও পরিবেশ বিজ্ঞানের
অধ্যাপক ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়।

দ্বিতীয় সন্তান(প্রথম কন্যা): মোছাম্মৎ নিলুফার জাহান চৌধুরী (বিসিএস শিক্ষা, ইংরেজি বিভাগ)
অধ্যাপক কবি নজরুল সরকারি কলেজ, ঢাকা।

তৃতীয় সন্তান:ডক্টর এ .এম .সারওয়ারউদ্দিন চৌধুরী অধ্যাপক ফলিত রসায়ন এবং রাসায়নিক প্রকৌশল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়।

চতুর্থ সন্তান:ডক্টর এ.আর .এম মাঈনউদ্দীন চৌধুরী (লিটন) গবেষক বর্তমান জাপানে অবস্থানরত ।

পঞ্চম সন্তান :ডক্টর এ .বি .এম আলাউদ্দীন চৌধুরী বিভাগীয় অধ্যাপক ও চেয়ারম্যান
ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি ঢাকা।

ষষ্ঠ সন্তান :ডক্টর এ .কে .এম মনিরউদ্দীন চৌধুরী এমবিবিএস ঢাকা
বর্তমান মালোশিয়া অবস্থারত।

সপ্তম কন্যা সন্তান :মরুহুমা ইসরাত জাহান চৌধুরী এমএসচি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

সাত সন্তানকে প্রতিষ্ঠিত করে গিয়েছেন তিনি।
মরুহুমা আনোয়ার জাহান চৌধুরীর মতো এমন মহীয়সী নারী অন্য মায়েদের অনুপ্রাণিত করবে যুগে যুগে।

মৃত্যু কালে তিনি পুত্র,কন্যা,নাতি-নাতনিসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে যান।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.