বঙ্গবন্ধুর খুনিদের জান্নাত চেয়ে দোয়া, আ. লীগ নেতা বহিষ্কার

বিজয় দিবসের প্রথম প্রহরে করা মোনাজাতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের খুনিদের জান্নাত চাওয়া সেই আওয়ামী লীগ নেতাকে বহিষ্কার করা হয়েছে। তিনি হলেন রাজশাহীর তাহেরপুর পৌর আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক খন্দকার মো. আব্দুর রাজ্জাক। গত ১৬ ডিসেম্বর বিজয় দিবসের প্রথম প্রহরে রাজশাহীর বাগমারায় এ ঘটনা ঘটে।

এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন রাজশাহীর বাগমারা পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু বাক্কার মৃধা মনসুর এবং সাধারণ সম্পাদক পৌর মেয়র আবুল কালাম আজাদ। আজ শনিবার, ১৮ ডিসেম্বর, দুপুরে এ তথ্য জানান তারা।

ওই দিনের ঘটনা প্রসঙ্গে তারা বলেন, ওই দিন অপ্রত্যাশিত, অনাকাঙ্ক্ষিত ও অগ্রহণযোগ্য একটি শব্দ উচ্চারণ করেন পৌর আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক খন্দকার আব্দুর রাজ্জাক। বিষয়টি নিয়ে গতকাল শুক্রবার, ১৭ ডিসেম্বর, দিবাগত রাতে জরুরি সভা করেন তারা। সভার সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত মোতাবেক তাকে পৌর আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক থেকে বহিষ্কার করা হয়।

স্থানীয় আওয়ামী লগের এই দুই নেতা আরো জানান, একই সঙ্গে উপজেলা আওয়ামী লীগ এবং রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের কাছে সুপারিশ পাঠানো হয়েছে, যাতে তাকে দলের সদস্য পদ থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বিজয় দিবসের প্রথম প্রহরে গত বৃহস্পতিবার, ১৬ ডিসেম্বর, দিবাগত রাতে উপজেলার তাহেরপুর শহীদ মিনার চত্বরে ওই মোনাজাত করা হয়। শহীদদের শ্রদ্ধা জানানোর পর আয়োজিত মোনাজাত পরিচালনা করেন পৌর আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক খন্দকার মো. আবদুর রাজ্জাক।

মোনাজাতে খন্দকার আবদুর রাজ্জাক জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হত্যাকারীদের জান্নাত চেয়ে দোয়া করেন। এ সময় সেখানে উপস্থিত আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সবাইকে আমীন বলতেও শোনা যায়। ওই সময় অন্যদের মধ্যে পৌরসভার মেয়র ও পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ উপস্থিত ছিলেন।

ওই দিনের ঘটনা তথা মোনাজাতের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আপলোড করা হলে তা ছড়িয়ে পড়ে। এরপরই বিষয়টি নিয়ে সমালোচনা শুরু হয়। ১৬ সেকেন্ডের যে ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে, তাতে দেখা যায়— মোনাজাতে আবদুর রাজ্জাক বলছেন, ‘মতো মোনাজাতে আমীন বলা পৌর মেয়র ও আওয়ামী লীগ নেতা আবুল কালাম আজাদ বলছেন, আসলে মোনাজাত করতে গিয়ে ভুলবশত এটি করেছেন তিনি। পরে তা সংশোধনও করে নেওয়া হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.