Home বিনোদন নিখিলের বিরুদ্ধে পুলিশে অভিযোগের হুমকি নুসরতের, নিখিল বললেন, ‘আদালতে দেখা হবে

নিখিলের বিরুদ্ধে পুলিশে অভিযোগের হুমকি নুসরতের, নিখিল বললেন, ‘আদালতে দেখা হবে

0 0

নিখিলের বিরুদ্ধে পুলিশে অভিযোগের হুমকি নুসরতের, নিখিল বললেন, ‘আদালতে দেখা হবে

সিটিজিট্রিবিউন : ৬ মাসের ব্যবধান। মুখোমুখি হন না তাঁরা। নুসরত জাহান, নিখিল জৈন। এক সময়ে যাঁদের ইনস্টাগ্রাম ভরে থাকত ‘দাম্পত্য’-এর প্রতি মুহূর্তের ছবিতে। সরাসরি তরজায় নামলেন অভিনেত্রী এবং তাঁর প্রাক্তন ‘সহবাস সঙ্গী’। নিখিল আনন্দবাজার ডিজিটালকে জানিয়েছিলেন, ‘‘যে দিন জানলাম, নুসরত আমার সঙ্গে থাকতে চায় না, অন্য কারও সঙ্গে থাকতে চায়, সে দিনই দেওয়ানি মামলা দায়ের করেছি আমি। যেহেতু ম্যারেজ রেজিস্ট্রেশন হয়নি তাই অ্যানালমেন্টের মাধ্যমে আলাদা হব।’’ আগামী জুলাই মাসে আদালতে এই মামলার শুনানি বলে জানিয়েছিলেন নিখিল। এই প্রসঙ্গে নুসরত বললেন, ‘আমি আর নিখিল সহবাস করেছি। আইনের চোখে এটা বিয়েই নয়। ফলে বিচ্ছেদের প্রশ্নই ওঠে না’। এর মাধ্যমে অভিনেত্রী ও সাংসদ বুঝিয়ে দিলেন, আদালতে গিয়ে আলাদা করে বৈবাহিক সম্পর্ক ছেদ করার নিয়ম পালনের প্রয়োজন অনুভব করছেন না তিনি। আনন্দবাজার ডিজিটালকে নিখিল জানিয়েছিলেন, নুসরতের বোন নুজহতের পড়াশোনার খরচ অনেক সময়েই তাঁকে বহন করতে হয়েছে। এমনকি নুসরতের পরিবারকে নিজের পরিবার মনে করে অনেক সাহায্য করেছেন নিখিল। এর পাশাপাশি তিনি বলেছিলেন, ‘‘নুসরত বহু দিন ধরে আমার ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করছে।’’ নিখিলের এই বক্তব্যকে সরাসরি নস্যাৎ করে দিয়ে নুসরত জানিয়েছেন, ‘আমি বরাবর আমার বোনের পড়াশোনার এবং পরিবারের সমস্ত খরচ একা হাতে বহন করেছি। যে ব্যক্তির সঙ্গে আমার কোনও সম্পর্কই নেই, কেনই বা তাঁর ক্রেডিট কার্ড ব্যবহার করতে যাব আমি? অভিযোগ তুললে প্রমাণ দিতে হবে’। আর্থিক লেনদেনের প্রসঙ্গে নুসরত আরও জানান, তাঁর সমস্ত পারিবারিক ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের তথ্য নিখিলের পরামর্শে তিনি নিখিলের দায়িত্বেই রেখেছিলেন। তাঁর পরিবারের কেউই জানতেন না, নিখিল সেই অ্যাকাউন্টগুলি নিয়ে কী করছেন। ব্যাঙ্ক তাঁদের অ্যাকাউন্ট সম্পর্কে কোনও নির্দেশ দিলে, সে তথ্য তাঁদের কাছে পৌঁছোত না। নুসরত জানান, তাঁর অনুমতি ছাড়াই তাঁর বিভিন্ন অ্যাকাউন্টে রাখা টাকাপয়সা বেআইনি ভাবে ব্যবহার করতেন নিখিল। এই বিষয়ে ব্যাঙ্কের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রেখে তাঁর টাকা অপব্যবহারের সমস্ত প্রমাণ খুব তাড়াতাড়ি সামনে আনবেন বলে জানিয়েছেন অভিনেত্রী। নুসরত প্রশ্ন তুলেছেন, নিজেকে ‘ধনী’ বলে জাহির করা ব্যক্তি কেন মধ্য রাতে নুসরতের অ্যাকাউন্ট থেকে বেআইনি ভাবে টাকা তোলে? কারও নাম না করে নুসরত বললেন, ‘যে মানুষ দাবি করছেন ‘ধনী’ বলে আমি তাঁকে ব্যবহার করেছি, আমাদের বিচ্ছেদের পরেও তাঁকে কেন লুকিয়ে আমার টাকা ব্যবহার করতে হয়?’ নুসরত যে এই বিষয়ে সরাসরি পুলিশের কাছে অভিযোগ জানাবেন, তাও স্পষ্ট করে দিয়েছেন বিবৃতিতে।।প্রতিবেদন:কেইউকে।

NO COMMENTS

Leave a Reply