Home বিনোদন কেক দিয়ে স্বস্তিকার জন্মদিন উদযাপন, শোভনের আফসোস ‘বয়েস হইয়া গেলো রে তোর’!

কেক দিয়ে স্বস্তিকার জন্মদিন উদযাপন, শোভনের আফসোস ‘বয়েস হইয়া গেলো রে তোর’!

0 0

কেক দিয়ে স্বস্তিকার জন্মদিন উদযাপন, শোভনের আফসোস ‘বয়েস হইয়া গেলো রে তোর’!

 

সিটিজিট্রিবিুনডেস্ক: ১ এপ্রিল ছিল শোভন গঙ্গোপাধ্যায়ের জন্মদিন। স্বস্তিকা দত্ত তাঁকে চমকে দিয়েছিলেন মাঝ রাতে ফাঁকা রাস্তার ধারে গাড়িতে কেক কেটে। এ বার পালা শোভনের। ২৪ এপ্রিল স্বস্তিকার জন্মদিন। উদযাপনের জন্য স্বস্তিকার বাড়িটাই বেছে নিয়েছিলেন তিনি। ঘরের দেওয়ালে ‘হ্যাপি বার্থ ডে’ লেখা ফেস্টুন। টেবিলে বান্ধবীর পছন্দের কেক। কেক কাটা হতেই পরস্পরকে মিষ্টিমুখ করানো। সেই ছবি, সেই আনন্দ নেটমাধ্যমে অনুরাগীদের সঙ্গে ভাগ করে নেওয়া। সঙ্গে শোভনের অকপট আফসোস, ‘বয়েস হইয়া গেল রে তোর! জন্মদিন মুবারক হো বাচ্চা’।

স্বস্তিকা যদিও জন্মদিনেও শ্যুটিংয়ে ব্যস্ত। অবসর মিলতেই আনন্দবাজার ডিজিটালকে জানালেন, ‘‘প্রচুর শুভেচ্ছা বার্তা পেয়েছি অনুরাগীদের। আমার ফেসবুক পাতা থেকে আমারই অজান্তে পছন্দের কথা জেনে নিয়েছে শোভন। মাঝ রাতে সেই মতো কেক আর কাঠগোলাপের গাছ নিয়ে হাজির।’’ শ্যুটিং থেকে ফিরে নিশ্চই জমাটি উদযাপন? কোনও দিনই জন্মদিন জাঁকজমকের সঙ্গে পালন করতে ভালবাসেন না স্বস্তিকা। এ বছর অতিমারি। তাই কোনও বাড়তি খাওয়াদাওয়া, কোথাও যাওয়ার পরিকল্পনা রাখেননি। বাড়িতেই সন্ধে ৭.৫৫ মিনিটে মা-বাবাকে নিয়ে কেক কাটবেন। স্বস্তিকার কথায়, ‘‘ওই সময় আমি জন্মেছিলাম। তাই প্রতি বছর ওই সময় মা-বাবা আমায় নিয়ে কেক কাটেন। আমি তো বলি, আমার জন্মদিন মানে মায়ের মাতৃত্বের জন্মদিন।’’ এছাড়া, পাঞ্জাবি-বাঙালি রেসিপি মিশিয়ে রাঁধা মায়ের হাতের পায়েস থাকবেই।খবর আনন্দবাজারের।প্রতিবেদন: : কেইউকে

NO COMMENTS

Leave a Reply