Home আইন ও আদালত খোশ গল্পের আড়ালে চুরি, আটক ০৯

খোশ গল্পের আড়ালে চুরি, আটক ০৯

আয়াজ আহমাদ;
জনাব এনামুল হক (৩৮)ও তার অপরাপর অংশীদারগণ কোতোয়ালী থানাধীন ফিরিঙ্গী বাজার এয়াকুব নগর, প্রগতি সংঘ ক্লাবের পাশে ৩৫/বি হোল্ডিংয়ে একটি বহুতল ভবন নির্মাণের কাজ করছেন। গত ১২/০৪/২০২১ ইং সন্ধ্যায় তিনি নির্মানাধীন বিল্ডিংয়ের ষ্টোর রুমে পরীক্ষা কালে রুমের মধ্যে থাকা মালামাল ও নির্মাণ কাজে ব্যবহৃত মালামাল যাচাই করে মোট ৩৩ বান্ডিল ইলেক্ট্রিক সার্ভিস লাইনের তার (ক্যাবল) কম পান।
পরবর্তীতে নির্মাণ কাজে নিয়োজিত শ্রমিক ও নিরাপত্তা কর্মী সোহেলকে জিজ্ঞাসাবাদে তারা জানায় যে, গত ইং ০৯/০৪/২০২১ তারিখ ও ইং ১২/০৪/২০২১ তারিখ সকালে অপরিচিত কয়েক জন মহিলা বিল্ডিংয়ে এসে তারা টাইলসের কাজের জন্য এসেছে বলে জানায়। তারা বিল্ডিংয়ের নির্মাণ কাজে নিয়োজিত শ্রমিকদের সাথে বিভিন্ন কথাবার্তা বলে এক/দেড় ঘন্টা থাকার পর নিরাপত্তা কর্মীরা অন্যত্র ব্যস্ত থাকার সুযোগে চলে যায়।
বিষযটি সন্দেহ হলে তিনি সকলের প্রতি নজর রেখে চুরি যাওয়া মালামাল সংক্রান্তে তথ্য সংগ্রহ করতে থাকেন। ইং ১৩/০৪/২০২১ তারিখ বেলা অনুমান ১২.৩০ ঘটিকায় উপরোক্ত মহিলাগণ পুনরায় নির্মাণাধীন বিল্ডিংয়ে এসে টাইলসের কাজ করার জন্য এসেছে জানিয়ে বিল্ডিংয়ের নির্মাণ কাজের জন্য নিয়োজিত ব্যক্তিদের সাথে ভিন্ন ভিন্ন ভাবে বসে খোশ গল্প করা আরম্ভ করে।
নিরাপত্তাকর্মী মো: সোহেল বিষয়টি মোবাইলে জনাব এনামুল হক (৩৮) কে জানালে তিনি তাদেরকে কৌশলে আটক  রাখার জন্য নির্দেশ দিয়ে তাৎক্ষণিক নির্মাণাধীন বিল্ডিংয়ে চলে আসেন। ধৃত মহিলাদেরকে কার নির্দেশে কি কাজ করার জন্য এসেছে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তারা বিভিন্ন অসংলগ্ন কথা বার্তা বলে।
স্থানীয় লোকজনের উপস্থিতিতে মহিলাদের কে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদের একপর্যায়ে তারা নির্মাণাধীন ভবনের ষ্টোর রুম হতে সার্ভিস তার (ক্যাবল) চুরি করার কথা স্বীকার করে।
তারা পরিকল্পিতভাবে নির্মাণাধীন বিল্ডিংয়ে প্রবেশ করে নিয়োজিত নির্মাণ শ্রমিক ও নিরাপত্তা কর্মীদের বিভিন্ন কথার মাঝে ব্যস্ত রেখে ইং ০৯/০৪/২০২১ তারিখ সকাল ০৬.৩০ ঘটিকা হতে ০৮.০০ ঘটিকা ও ইং ১২/০৪/২০২১ তারিখ সকাল ০৭.৩০ ঘটিকা হতে ০৯.০০ ঘটিকার মধ্যে যে কোন সময়ে নির্মাণাধীন বিল্ডিংয়ের ২য় তলায় অস্থায়ী ষ্টোর রুমে প্রবেশ করে এর মধ্যে থাকা মালামাল হতে ৩৩ বাল্ডিল ইলেক্ট্রিক সার্ভিস লাইনের তার (ক্যাবল),
যার মূল্য অনুমান ২,১০,০০০/-(দুই লক্ষ দশ হাজার) টাকা চুরি করে নিয়ে যায়।  ইং ১৩/০৪/২০২১ তারিখ তারা একই ভাবে চুরি করার জন্য এসেছিল। এএসআই/ইউসুফ আলী থানা হতে সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে ঘটনার বিস্তারিত শুনে উপরোক্ত মহিলাদেরকে হেফাজতে নেয়।  জনাব এনামুল হক প্রকাশ এনাম (৩৮) বাদী হয়ে ধৃত মহিলাদের বিরুদ্ধে এজাহার দায়ের করলে পেনাল কোডের ৪৬১/৩৮০ ধারায় ০১টি মামলা রুজু হয়।
গ্রেফতারকৃতদের নাম ও ঠিকানা-
১। রোকসানা বেগম (২৮), পিতা-মৃত কাশেম, স্বামী-মো: সমির, সাং-রেলবিট, এর পাশে, ভাসমান, থানা-আকবরশাহ, জেলা-চট্টগ্রাম।
২। হেলেনা বেগম (২৮), পিতা- মৃত ময়না, স্বামী-মো: লিটন, মাতা- মৃত মিচিরণ, সাং-খাইসাদি, আব্বাস আলীর বাড়ী ( থানার পাশে), থানা-কিশোরগঞ্জ সদর, জেলা-কিশোরগঞ্জ, বর্তমানে-আকবরশাহ কাঁচা বাজারের উত্তর পাশে, জসিমের কলোনী, থানা-আকরবশাহ, জেলা-চট্টগ্রাম।
৩।  শাহিনুর বেগম (২৫), পিতা-মৃত আশরাফ আলী সিকদার, মাতা-মৃত জাহানারা বোগম, স্বামী- মো: বাবুল মোল্লা,  সাং-কাতিক দে আশরাফ আলী সিকদার এর বাড়ী, থানা-কাঠাখালী, জেলা- বাগেরহাট, বর্তমানে-ফিরোজশাহ কলোনী, মিনারের গোড়া, হারুন ইনচার্জ এর ভাড়াঘর, থানা-আকবরশাহ, জেলা-চট্টগ্রাম।
৪। পারভিন আক্তার (২৬), পিতা- মো: করিম, মাতা- মো: রিয়াজ, সাং-দক্ষিন হাতিয়া, (মতিন সিকদারের বাড়ী), থানা-হাতিয়া, জেলা-নোয়াখালী, বর্তমানে- ছোট পোল, মইন্যাপাড়া, দুলালের কলোনী, থানা-হালিশহর, জেলা-চট্টগ্রাম।
৫। বিবি ফাতেমা (৩০), পিতা- বেলায়েত হোসেন, মাতা- চাঁন বেগম, স্বামী- মো: মোহর আলী, সাং-হাসানহাট, শরীফপুর, রেল বিটের পাশে, থানা-সুধারাম, জেলা-নোয়াখালী, বর্তমানে-ছোটপুল, জাকের কলোনী, থানা-হালিশহর, জেলা-চট্টগ্রাম।
৬। রেনু বেগম (৩০), পিতা-মৃত মো: শফি, মাতা- মৃত রহিমা খাতুন, স্বামী- মো: হাসান, সাং-বাস্তাপুর (মুরশিদ কোম্পানীর বাড়ী), থানা-লক্ষীপুর সদর, জেলা-লক্ষীপুর, বর্তমানে- আকবরশাহ, কাঁচা বাজারের উত্তর পাশে, জসিমের কলোনী, থানা-আকবরশাহ, জেলা-চট্টগ্রাম।
৭। মরিয়ম বেগম (৪৫), পিতা-আজাহার বেদা, স্বামী- আমির হোসেন, মাতা- সালেহা বেগম, সাং- চর বোরহান, হাওলাদার বাড়ী, থানা-দমমিনা, জেলা- পটুয়াখালী, বর্তমানে- বড় পোল এর পাশে মইন্যাপাড়া, সেলিমের কলোনী, থানা-হালিশহর, জেলা-চট্টগ্রাম।
৮। বিবি রহিমা (৩৫), পিতা-সুলতান আহম্মদ, স্বামী-নজরুল ইসলাম, সাং-চর জ্যোতি (শামসুদ্দিন হাওলাদারের বাড়ী) থানা-মনপুরা, জেলা- ভোলা, বর্তমানে- আকবরশাহ, কাঁচা বাজারের উত্তর পাশে জসিমের কলোনী, থানা-আকবরশাহ, জেলা-চট্টগ্রাম।
৯। পারভিন বেগম (২৮), পিতা-মো: রফিক, স্বামী-মো: রাশেদ, সাং-কানকির চর, থানা-চর জব্বার, জেলা- নোয়াখালী, বর্তমানে- আকবরশাহ, কাঁচা বাজারের উত্তর পাশে জসিমের কলোনী, থানা-আকবরশাহ, জেলা-চট্টগ্রাম।

NO COMMENTS

Leave a Reply