Home অপরাধ মৃত পিতাকে জীবিত দেখিয়ে ওয়ারেশদের সম্পত্তি আত্মসাথ করার সুনিদৃষ্ট অভিযোগ

মৃত পিতাকে জীবিত দেখিয়ে ওয়ারেশদের সম্পত্তি আত্মসাথ করার সুনিদৃষ্ট অভিযোগ

আব্দুল মান্নান,

শার্শা(যশোর) থেকে: যশোরের শার্শায় মৃত পিতাকে জীবিত দেখিয়ে ওয়ারেশদের সম্পত্তি আত্মসাথ করার সুনিদৃষ্ট অভিযোগ পাওয়া গেছে। আর এ কাজের সহযোগি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছে ভূমী দোস্যু ও জমি আত্মসাথকারী আব্দুর রাজ্জাকের শ্যালক আলোচিত ব্যাক্তি গ্রীস, অস্ট্রোলিয়া সহ বিভিন্ন দেশে পানিপথে মানব পাচারকারী ঝিকরগাছার শংকরপুর গ্রামের আনারুল ইসলাম ও তার পিতা মুনছুর আলী (আল্লাদে)।

এ ঘটনাটি ঘটেছে শার্শা উপজেলার পাঁচ কায়বা গ্রামে। এ ঘটনার পর জমি আত্মসাথকারী আব্দুর রাজ্জাকের বিরুদ্ধে ভুক্তভোগী বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল গফুর সুবিচার চেয়ে জেলা প্রশাষক, পুলিশ সুপার, শার্শা থানা এবং উপজেলা ভূমী কর্মকর্তার নিকট লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। অভিযোগে প্রকাশ জেএল নং- ১৩১ নং কায়বা মৌজায় এস,এ ৪১৩, ৪১৯, ২১৬ ও ৬১৯ নং খতিয়ানের রেকর্ডীয় মালিক পিতা আব্দুল গণি।

বিমাতা ভাই আব্দুর রাজ্জাক প্রতারণার আশ্রয় নিয়ে মানব পাচারকারী শ্বশুর মুনছুর আলী ও শ্যালক আনারুল ইসলামের সহযোগিতায় মৃত পিতাকে জিবীত দেখিয়ে এক একর চার শতক জমি গত ২৪.০৬.১৯৯৯ ইং তারিখে শার্শা সাব-রেজিষ্ট্রি অফিসের মাধ্যমে কবলা দলিল মূলে রেজিষ্ট্রি করে নেয়। অথচ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের মৃত্যু সনদ পত্র অনুয়ায়ী জানা যায় পিতা আব্দুল গণি গত ২১.০২.১৯৯৮ ইং তারিখে মৃত্যুবরণ করেন। ভূমী প্রতারক রেজিষ্ট্রি সম্পাদন করে খান্ত হননি তিনি স্থানীয় কায়বা তহশিল অফিসের ইউনিয়ন ভূমি উপ-সহকারী (নায়েব) ময়েজ উদ্দীনকে অর্ধ লক্ষ টাকার বিনিময়ে জাল দলিলের সম্পত্তি¡ নাম পত্ত¡ন করে দিয়েছেন।

যাহার নং- ২০৬৪/৯-১/২০১৬-২০১৭ । এলাকাবাসীর অভিযোগ প্রতারক আব্দুর রাজ্জাক তার অন্যান্য ওয়ারেশদের না জানিয়ে পিতার বিক্রয় করা জমি সহ রেকর্ডীয় সমস্ত জমি আত্মসাথ করার জন্য মৃত পিতাকে জিবিত দেখিয়ে জমি রেজিষ্ট্রি এবং নামপত্ত¡ন করে মালিক হয়েছেন বিষয়টি বিরল ঘটনা। এ ঘটনায় প্রতিকারের মাধ্যমে দৃষ্টান্ত স্থাপন করার জন্য এলাকাবাসী প্রশাষনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

NO COMMENTS

Leave a Reply