Home অপরাধ টেকনাফে জমির বিরোধ নিয়ে হামলায় সাবেক মেম্বারসহ আহত-৪

টেকনাফে জমির বিরোধ নিয়ে হামলায় সাবেক মেম্বারসহ আহত-৪

শাহজাহান চৌধুরী শাহীন, কক্সবাজার,২০ জানুয়ারী।।

কক্সবাজারের টেকনাফ বাহারছড়া শামলাপুর পুরান পাড়ায় ভিটে জমির বিরোধ নিয়ে প্রতিপক্ষের হামলায় সাবেক মেম্বার অছিউর রহমানসহ ৪ জন আহত হয়েছেন।
২০ জানুযারী বুধবার সকাল ১১ টার দিকে জমি নিয়ে বিরোধের ঘটনা তদন্ত কালে বাহারছড়া ভুমি উপ সহকারী কর্মকর্তা আবদু জব্বারের উপস্থিতিতে প্রতিপক্ষের লোকজন এই হামলার ঘটনা ঘটিয়েছে। আহতদের উদ্ধার করে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে, বাহারছড়া ইউনিয়নের শামলাপুর পুরানপাড়া এলাকার সাবেক মেম্বার অছিউর রহমান তার স্বত্ত্ব ও ভোগদখলীয় জমিতে শান্তি পুর্ণভাবে ভোগদখল করে আসছিল। সম্প্রতি জমি মালিক তার বসতবাড়ির সীমানা দেয়াল নির্মাণ করে। কিন্তু রাতে আধাঁরে স্থানীয় কিছু রোহিঙ্গাদের সাথে নিয়ে হায়দার, হাবিবুর রহমান,শফিকুর রহমান গং তাদের পৈত্রিক সম্পত্তি দাবি করে সীমানা দেয়াল ভাংচুর করে। ঘটনার খবর পেয়ে বাহারছড়া তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ সরজমিনে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এব্যাপারেও পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছিলেন জমি মালিক অছিউর রহমান ও ছেলে মো. ইউছুপ।

এদিকে, সুকৌশলে প্রতিপক্ষ লোকজন আদালতে ১৪৪ ধারা জারির আবেদন করে জমি দখলের জন্য বিভিন্নভাবে চেষ্টা অব্যাহত রাখে।

অপরদিকে, ২০ জানুয়ারি বুধবার সকালে বাহারছড়া উপ-সহকারী ভুমি কর্মকর্তা আবদু জব্বার কোর্টের নির্দেশে সরজমিনে তদন্তের জন্য ঘটনাস্থল বাহারছড়া ইউনিয়নের শামলাপুর পুরান পাড়া এলাকায় উপস্থিত হন।

ঘটনাস্থলে উপ-সহকারী ভুমি কর্মকর্তা আবদু জব্বারের নিকট  অছিউর রহমান তার জায়গার কাগজপত্র উপস্থাপন করেন। কিন্তু প্রতিপক্ষ হায়দার, হাবিবুর রহমান,শফিকুর রহমান গং আগেই জমি বিক্রি করে নিঃস্বত্ববান হওয়ায় কোন কাগজপত্র প্রর্দশন না করে তর্কে জড়িয়ে পড়েন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ঘটনাস্থলে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে তদন্ত কর্মকর্তা ও উপ-সহকারী ভুমি কর্মকর্তা আবদু জব্বারের সামনেই এলোপাতাড়ি হামলা চালায় প্রতিপক্ষ। এসময় আহত হন সাবেক মেম্বার অছিউর রহমান, কফিল উদ্দিন, রাশেদা বেগম ও মো. ইউনুচ।
আহত অছিউর রহমানের ছেলে মোঃ ইউসুফ জানান, হামলার ঘটনায় নেতৃত্ব দেন শফিকুর রহমানের ছেলে ওসমান, আবছার, নুরুল আমিন প্রকাশ বাট্টু, লালু, বাহার মিয়া, রফিক, হায়দর আলী, হাবিবুর রহমান ও সুলতান আহমদসহ আরো কয়েকজন।

তিনি আরও জানান, ঘটনার খবর পেয়ে বাহারছড়া তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ ইন্সপেক্টর নুর মোহাম্মদসহ একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি শান্ত করেন।
আহত ৪ জনকে উদ্ধার করে প্রথমে শামলাপুর প.প. কেন্দ্রে নিয়ে যায়। আহতদের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় তাদেরকে জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেন। আহতরা জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এঘটনায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে বলে জানান মো.ইউছুপ।

প্রসংগত, সাবেক মেম্বার অছিউর রহমানের একক নামীয় বিএস ২০১৮ নং খতিয়ানের ১৮৩১, ১৮৩২ দাগের ৬০ শতক জমি স্থানীয় ভূমিদস্যু হায়দর বাহিনী দখলের চেষ্টা করে আসছিল। শামলাপুরের দিনদিন জমির দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় কারণে ওই হায়দার বাহিনী লোভে বশিভুত হয়ে জমি দখলের জন্য সীমানা দেয়াল ভাংচুর ও হামলার ঘটনা ঘটিয়েছে।
………

NO COMMENTS

Leave a Reply