Home চট্টগ্রাম ২ নং জালালাবাদ ওয়ার্ড এর সদ্য সাবেক সফল কাউন্সিলর পদপ্রার্থী আলহাজ্ব মােঃ...

২ নং জালালাবাদ ওয়ার্ড এর সদ্য সাবেক সফল কাউন্সিলর পদপ্রার্থী আলহাজ্ব মােঃ সাহেদ ইকবাল

0 0

আয়াজ আহমাদ :আর দেরি নই,পৌষের শীতকে বিদায় জানিয়ে, মাঘের শীতের হিমেল হাওয়ায় বদলের মধ্যে দিয়ে হতে যাচ্ছে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচন,আসন্ন চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রার্থীদের মধ্যে জমে উঠেছে নির্বাচনী আমেজ।

পুরাতন প্রার্থীদের পাশাপাশি এবারো নির্বাচনে দেখা মিলবে অনেক নতুন প্রার্থী ও, এই সকল পূরাতন প্রার্থীদের নানামূখী চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিচ্ছেন নতুন প্রার্থীরা ও। সার্বিক উন্নয়ন করেছে তাদের ভবিষ্যত পরিকল্পনা।

 

আসন্ন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ২ নং জালালাবাদ ওয়ার্ড এর সদ্য সাবেক সফল কাউন্সিলর জনগণের মনােনীত কাউন্সিলর পদপ্রার্থী সৎ , যােগ্য ও সময়ের সাহসী সন্তান ঝুড়ি আলহাজ্ব মােঃ সাহেদ ইকবাল ( বাবু ) ‘ র যােগ্য প্রার্থী । ঝুড়ি মার্কায় ভােট দিতে আহবান জানান ।

সংক্ষিপ্ত পরিচিতি আলহাজ্ব মােঃ সাহেদ ইকবাল ( বাবু ) বৃহত্তর চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের অধীন ২ নং জালালাবাদ ওয়ার্ডের ঐতিহ্যবাহী রাজা মিয়া কমিশনার পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন ।

উল্লেখ্য উনার জেঠা মরহুম আলহাজ্ব রাজা মিয়া কমিশনার সুদীর্ঘ ২৭ বৎসর সুনামের সহিত কমিশনার হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন । তাঁহার পিতা মরহুম মােহাম্মদ ইসলাম বনেদী ব্যবসায়ী , সমাজ সেবক ও দানবীর ছিলেন এবং দাদা মরহুম আলহাজ্ব খয়রাতি মিয়া সমাজসেবক ও দানবীর ছিলেন । একই ধারাবাহিকতায় আজকের আলহাজ্ব মােঃ সাহেদ ইকবাল ( বাবু ) ‘ র বেড়ে উঠা ও সমাজ সেবা । পারিবারিক জীবনে তিনি ০১ ( এক ) পুত্র ও ০২ ( দুই ) কন্যা সন্তানের জনক । তাঁর সহধর্মিনী অত্যন্ত ধর্মপরায়ণ ও সমাজ সেবিকা । বিগত ৫ বছরের উন্নয়ন চিত্র সড়ক উন্নয়ন কাজ : ১০৫ ( একশত পাঁচ ) টি রাস্তার উন্নয়ন কাজ সমাপ্ত হয়েছে এবং ৭৫ ( পঁচাত্তর ) টি রাস্তার উন্নয়ন কাজ চলমান আছে , যার মােট আর্থিক মূল্য ১৬৮ কোটি ৯৭ লক্ষ টাকা প্রায় ।

এছাড়া ১৮৫ কোটি ২০ লক্ষ টাকার কাজ প্রস্তাবিত রয়েছে , যা অতিসত্বর শুরু করা হবে । প্রদত্ত নাগরিক সেবা সমূহ : = সরকার কর্তৃক নির্ধারিত জন্ম নিবন্ধন ফি ব্যতীত সকল নাগরিক সনদ , মৃত্যু সনদ , ওয়ারিশ সনদ , চারিত্রিক সনদসহ যাবতীয় নাগরিক সেবা বিনামূল্যে নিশ্চিত করা হয়েছে । ক্ষেত্র বিশেষে বীর | মুক্তিযােদ্ধাসহ গরীব – দুস্থ , প্রতিবন্ধী ও নিম্ন আয়ের শ্রমজীবী মানুষের জন্ম নিবন্ধনও বিনামূল্যে প্রদান করা হয় ।

→ ০২ নং জালালাবাদ ওয়ার্ড অফিসের নগর ডিজিটাল সেন্টারের মাধ্যমে সকল প্রকার সরকারি সেবা জনগণের দৌড়গােড়ায় পৌঁছে দেয়া হয়েছে । যেখানে একই ছাদের নিচে ওয়ানস্টপ সার্ভিসের মাধ্যমে সরকারি – বেসরকারি সকল সেবা প্রদান করে জনগণের আর্থিক ও শারীরিক কষ্ট লাঘব করা হয়েছে । ২ নং জালালাবাদ ওয়ার্ডের গরীব , দুস্থ , অসহায় ও নিম্ন আয়ের বয়জ্যেষ্ঠ পুরুষ ও মহিলাদের বয়স্ক ভাতা এবং প্রতিবন্ধীদের প্রতিবন্ধী ভাতা প্রদানের ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহীতা নিশ্চিত করা হয়েছে ।

ওয়ার্ড এলাকার আলােকায়ন , নালা – নর্দমা পরিষ্কার , রাস্তা – ঘাট , স্কুল – কলেজ ও মাদ্রাসার আঙ্গিনা পরিছন্ন রাখার ক্ষেত্রেও অগ্রণী ভূমিকা রাখা হয়েছে । শিক্ষাক্ষেত্র : পারিবারিক জমিতে স্কুল প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে শিক্ষাক্ষেত্রে অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে সক্ষম হন । এছাড়া ওয়ার্ড এলাকায় অবস্থিত বিভিন্ন স্কুল , কলেজ ও মাদ্রাসায় আর্থিক সহযােগিতা প্রদানসহ প্রত্যক্ষ তত্ত্বাবধানের মাধ্যমে শিক্ষার পরিবেশ ও শিক্ষার মান উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন । সমাজসেবা : মদ – জুয়া বন্ধকরণ , ভেজাল বিরােধী অভিযান , সন্ত্রাস , চাঁদাবাজী ও দখলদারের বিরুদ্ধে আন্দোলনের মাধ্যমে অত্র ওয়ার্ডের সন্ত্রাসী কর্মকান্ড বন্ধের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন ।

উল্লেখ্য যে , সন্ত্রাস – চাঁদাবাজী বন্ধ করতে গিয়ে নিজের জীবন নাশের হুমকির মুখে পড়তে হয় । = নিজ মায়ের নামে প্রতিষ্ঠিত নাছিমা ইসলাম ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান হিসাবে তিনি অত্র ওয়ার্ড এলাকায় শীত বস্ত্র ও ইফতার সামগ্রী বিতরণ ফ্রি – চিকিৎসা ক্যাম্প পরিচালনা করা , বিবাহযােগ্য কন্যার বিবাহদানে আর্থিক সহায়হতা প্রদানসহ বিভিন্ন সামাজিক কাজে নিয়মিত ভাবে অনুদান প্রদান করেন । = সিটি কর্পোরেশন হতে প্রাপ্ত কাউন্সিলরের সম্মানী ভাতা ব্যক্তিগত কাজে ব্যয় না করে ওয়ার্ড এলাকার অসহায়দের মাঝে বন্টন করা হয়েছে ।

= বিভিন্ন রক্তদান কর্মসূচীতে ‘ ব্লাড ডােনার ‘ হিসাবে নিয়মিত রক্তদান করে থাকেন । উল্লেখ্য যে , তিনি বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সােসাইটি এর আজীবন সদস্য । = বিভিন্ন মসজিদ ও মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির উপদেষ্ঠা / সদস্য হিসেবে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেন । ক্রীড়া ক্ষেত্র : যুব সমাজকে মাদকাশক্ত থেকে মুক্ত করার লক্ষ্যে এবং আগামী প্রজন্মকে নেতৃত্বদানে যােগ্য হিসাবে গড়ে তুলতে ওয়ার্ড ব্যাপী বিভিন্ন ক্লাব – সংগঠনের মাধ্যমে ক্রিকেট , ফুটবল , ব্যাডমিন্টন খেলার আয়ােজন করাসহ যাবতীয় খেলাধুলায় আর্থিক অনুদান দিয়ে প্রত্যক্ষভাবে নেতৃত্ব প্রদান করেন । উল্লেখ্য যে , তিনি নিজেও একজন ক্রীড়া সংগঠক ।

চট্টগ্রাম রাইফেলস ক্লাবের আজীবন সদস্য । করােনা সংকটে যত মানবিক কর্মকান্ড : করােনা সংকটে সর্বোচ্চ চেষ্টা নিয়ে অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়িয়েছি । কোভিড -১৯ বা করােনা ভাইরাস মােকাবেলায় ওয়ার্ডে নাগরিকদের পরিষ্কার – পরিচ্ছন্নতায় উদ্বুদ্ধ করতে সিটি কর্পোরেশনের জলকামান ও গাড়ি দিয়ে জীবাণুমুক্তকরণ কর্মসূচি নিয়েছি ।

জনগণের মাঝে বিনামূল্যে প্রায় ৫,০০০ ( পাঁচ হাজার ) মাস্ক , হ্যান্ড স্যানিটাইজার , জীবাণুনাশক স্পেসহ বিভিন্ন উপকরণ বিতরণ করেছি । অসহায় , নিম্ন মধ্যবিত্ত ও মধ্যবিত্ত জনসাধারণের মাঝে ব্যক্তিগত তহবিল হতে প্রায় ২০ লক্ষ টাকার খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছি । তাছাড়া মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ও সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ হতে প্রাপ্ত ত্রাণসামগ্রী স্বচ্ছতার সাথে বিতরণ করেছি ।

করােনায় অসহায় কৃষকদের মাঝে বীজ , সার ও কীটনাশক বিতরণ করেছি এমনকি কৃষকদের কষ্ট লাঘবে ধান কাটার জন্য , ধান কাটার মেশিনও প্রদান করেছি । করােনায় স্বাস্থ্যসেবায় কাজ করেছি কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে । ফ্রি অক্সিজেন সেবা , স্বাস্থ্যকর্মীদের মাঝে পিপিই প্রদান , প্রাথমিক চিকিৎসাসেবার ব্যবস্থাকরণ ও বিনামূল্যে ওষুধ প্রদানের ব্যবস্থা করেছি ।

এছাড়াও করােনার নমুনা সংগ্রহের জন্য অত্র ওয়ার্ডে “ নমুনা সংগ্রহ বুথ স্থাপনে সহযােগিতা করেছি এবং উক্ত বুথের কাজ নির্বিঘ্নে পরিচালনা করার জন্য জরুরী সরঞ্জামাদি প্রদান করেছি যার সেবা এখনাে চলমান রয়েছে । করােনায় মৃত মহিলাদের লাশ দাফনে ” মহিলা স্বেচ্ছাসেবক দল গঠন করে লাশ দাফনের ব্যবস্থা করেছি । এছাড়াও সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে সুবিশাল মাঠে অস্থায়ী বাজার স্থাপন ও ওয়ার্ডের বিভিন্ন এলাকায় ন্যায্যমূল্যে নিত্য প্রয়ােজনীয় পণ্যসামগ্রী বিক্রয়কেন্দ্র স্থাপন করেছি ।

উল্লেখিত মানবিক ও সামাজিক দায়িত্ব ও কর্মকান্ড পরিচালিত করতে গিয়ে নিজেও করােনায় আক্রান্ত হয়েছি এবং আমার পরিবারের ৮ জন সদস্যও করােনায় আক্রান্ত হয় । এমনকি করােনায় আক্রান্ত রােগীকে নিজে প্লাজমাও প্রদান করেছি । ভবিষ্যৎ কর্মপরিকল্পনা : ড্রেনেজ ব্যবস্থার উন্নয়নসহ প্রস্তাবিত ও নতুন অবকাঠামােগত উন্নয়ন , শিক্ষা ও স্বাস্থ্যক্ষেত্রে অধিক নজরদারীসহ ০২ নং জালালাবাদ ওয়ার্ডকে মদ – জুয়া , মাদক , সন্ত্রাস ,

চাঁদাবাজ ও দখলদারমুক্ত দৃষ্টিনন্দন আধুনিক বাসযােগ্য একটি মডেল ওয়ার্ডে রুপান্তর করা । “ তাই ০২ নং জালালাবাদ ওয়ার্ডের চলমান উন্নয়ন কাজ তরান্বিত করতে ও ভবিষ্যতে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে আপনার মূল্যবান ভােটটি “ ঝুড়ি ” মার্কায় প্রদান করুন ।

” সৎ মানুষের সংগ্রাম উন্নয়নের অপর নাম ২ নং জালালাবাদ ওয়ার্ডের সর্বস্তরের

NO COMMENTS

Leave a Reply