Home রংপুর মেয়র প্রার্থী ভজে আর নেই

মেয়র প্রার্থী ভজে আর নেই

0 0

সৈয়দপুর পৌরসভা নির্বাচন স্থগিত :আবেদ আলী স্টাফ রিপোর্টারঃ নীলফামারীর সৈয়দপুর পৌরসভার চারবারের নির্বাচিত মেয়র অধ্যক্ষ আমজাদ হোসেন সরকার ভজে (৬৩) নেই। তিনি আগামী ১৬ জানুয়ারীর পৌর নির্বাচনের মেয়র প্রার্থী এবং সাবেক সংসদ সদস্য ও উপজেলা চেয়ারম্যান ছিলেন। বৃহস্পতিবার সকাল ৭টার দিকে ঢাকার বাংলাদেশ স্পেশালাইজট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থেকে তার মৃত্যু হয় (ইন্না লিল্লাহি … রাজিউন)।

পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, ডায়াবেটিস ও শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যা নিয়ে গত ১৫ দিন আগে হাসপাতালে ভর্তি হন আমজাদ হোসেন সরকার। সেখানে তৃতীয় দফায় করোনা পজিটিভ আসে। এ অবস্থায় মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ে অবশেষে তিনি না ফেরার দেশে চলে গেলেন। তিনি স্ত্রী, আমেরিকা প্রবাসী একমাত্র ছেলেসহ অসংখ্য আত্মীয়স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। আমজাদ হোসেন সরকার সবার অত্যন্ত জনপ্রিয় মেয়র ছিলেন। শিক্ষাসহ এলাকার উন্নয়নে ব্যাপক কাজ করেছেন তিনি।

এছাড়াও তিনি উপজেলা চেয়ারম্যান, পৌর মেয়র, কিশোরগঞ্জ-সৈয়দপুর তথা নীলফামারী-০৪ আসনের এমপি ছিলেন। এরপর আবার মেয়র নির্বাচিত হয়ে একটানা তিনবার সৈয়দপুর পৌরপিতা হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ২০২১ সালে দ্বিতীয় ধাপের আসন্ন পৌর নির্বাচনে আগামী ১৬ জানুয়ারীর নির্বাচনে আবারো মেয়র থাকা অবস্থায় পদে প্রার্থী হয়েছেন।

ডায়াবেটিস ও শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যায় ঢাকার বাংলাদেশ স্পেশালাইজট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকাবস্থায় ১৪ জানুয়ারী সকাল ৭টায় মারা যান। তিনি ১৯৫৮ সালে ২ ফেব্রুয়ারী জন্ম গ্রহন করেন। মেয়র পদে ৫জন প্রতিদ্বন্দি প্রার্থীর মধ্যে তিনি একজন (নারিকেল গাছ) প্রতিক নিয়ে প্রার্থী ছিলেন। দীর্ঘদিন যাবত বিএনপির রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলেন তিনি।

আগামী ১৬ জানুয়ারি অনুষ্ঠিতব্য পৌরসভা নির্বাচনে স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দিতা করছিলেন। এদিকে তার মৃত্যুর কারণে পৌরসভা নির্বাচন স্থগিত করা হবে বলে জানিয়েছেন জেলা নির্বাচন অফিস। পরবর্তী নির্দেশনা না আসা পর্যন্ত নির্বাচন স্থগিত, খুব শিগগির নতুন করে পৌরসভার তফসিল ঘোষণা করা হবে বলে জানান,

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. ফজলুল করিম। এছাড়াও নির্বাচন বিধিমালা ২০১০ এর বিধি ২০ অনুসারে মেয়র পদে নির্বাচনীয় কার্যক্রম বাতিল ঘোষনা করে নির্বাচন পরিচালনার অধিশাখা-০২ এর উপসচিব মোঃ আতিয়ার রহমান!র স্বাক্ষরিত একটি প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

অন্যদিকে মেয়রের মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

NO COMMENTS

Leave a Reply