Home চট্টগ্রাম চট্টগ্রামের ঐতিহাসিক গুরুত্বসম্পন্ন যাত্রা মােহন সেন ( জে এম সেন ) ভবন...

চট্টগ্রামের ঐতিহাসিক গুরুত্বসম্পন্ন যাত্রা মােহন সেন ( জে এম সেন ) ভবন ভঙ্গিরি চক্রান্তের হাত থেকে রক্ষা করে

0 0

চট্টগ্রামের ঐতিহাসিক গুরুত্বসম্পন্ন যাত্রা মােহন সেন ( জে এম সেন ) ভবন ভঙ্গিরি চক্রান্তের হাত থেকে রক্ষা করে তদস্থলে সরকারের সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের গত ৯ জুলাই , ২০১৮ খ্রি . তারিখের সিদ্ধান্ত মতে চট্টগ্রামের বিপ্লবী তথা তকালীন স্বাধীনতা সংগ্রামীদের স্মৃতি রক্ষার্থে যাদুঘর প্রতিষ্ঠার নিমিত্ত আশু পদক্ষেপ গ্রহণ প্রসঙ্গে । nons arorooner ,

আস্সালামু আলাইকুম । উপযুক্ত বিষয়ে আপনার ব্যক্তিগত দৃষ্টি আকর্ষণ করছি । চট্টগ্রামের কোতােয়ালী থানাধীন রহমতগঞ্জ এলাকায় অবস্থিত যাত্রা মােহন সেন ( জে এম সেন ) ভবনটি প্রথিতযশা আইনজীবী তকালীন ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের চট্টগ্রামের সভাপতি ,

চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতিরি প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি যাত্রা মােহন সেন গুপ্ত ( জে এম সেন ) -র বিশেষ শৈল্পিক স্থাপনাসমৃদ্ধ ও ঐতিহাসিক গুরুত্বসম্পন্ন ভবন । তার ছেলে দেশপ্রিয় যতীন্দ্র মােহন সেন গুপ্ত ছিলেন অবিভক্ত ভারতের বঙ্গীয় প্রাদেশিক কংগ্রেসের সভাপতি ও কোলকাতা কর্পোরেশনের পাঁচ বারের মেয়র এবং পুত্রবধু মিসেস নেলী সেন গুপ্তা ছিলেন ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের এককালীন সভাপতি ,

পূর্ব পাকিস্তান ব্যবস্থাপক পরিষদের সদস্য । অবিভক্ত ভারত থেকে বাংলাদেশের স্বাধীনতা আন্দোলন পর্যন্ত এই পরিবারের অবদান অসীম । ঐতিহাসিক ভবনটি কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর , নেতাজী সুভাষ চন্দ্র বসু , ব্যারিষ্টার শরৎ চন্দ্র বসু , লােকমান খান শেরােয়ানী , মাওলানা মােহাম্মদ আলী , মাওলানা শওকত আলী , মাওলানা মনিরুজ্জামান ইসলামাবাদী , কাজেম আলী মাষ্টারসহ অসংখ্য স্বাধীনতা সংগ্রামীদের পদস্পর্শে ধন্য হয়েছে ।

এই ভবন হতে ব্রিটিশ আমলে চট্টগ্রাম থেকে চা শ্রমিক আন্দোলন , রেল শ্রমিক আন্দোলন , সম্রাজ্যবাদবিরােধী জাতীয়তাবাদী আন্দোলন , ছিয়াত্তরের মন্বন্তরে লংগরখানা এবং চট্টগ্রামের বীর বিপ্লবীদের যাবতীয় মামলা – মােকদ্দমা পরিচালতি হয়েছে । এছাড়া শিশুবাগ ’ নামীয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ নানাবিধ স্থাপনা গড়ে উঠেছে এই ভবনে ।

সম্প্রতি চট্টগ্রামের ইতিহাস ও ঐতিহ্যের বিশেষ শৈল্পিক স্থাপনাসমৃদ্ধ এই ভবন ভাঙ্গার চক্রান্ত চলছে । যার বিরুদ্ধে ইতােমধ্যে সচেতন জনতা রুখে দাড়িয়েছে । ২ । এই প্রসঙ্গে উল্লেখ্য যে , গত ৯ জুলাই ২০১৮ খ্রি . গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের সভায় চট্টগ্রামে মাষ্টারদা সূর্যসেনসহ ব্রিটিশবিরােধী আন্দোলনের সকল স্বাধীনতা সংগ্রামী ও বিপ্লবীদের স্মৃতি রক্ষার্থে যাদুঘর প্রকল্প প্রতিষ্ঠার প্রস্তাব গৃহীত হয়েছিল ।

চট্টগ্রামের সচেতন নাগরিকগণের মতে এই সিদ্ধান্তের বাস্তবায়ন করা যেতে পারে ঐতিহাসিক এই ভবন ও ভবনের স্থানকে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের সংবিধানের ২৪ নং অনুচ্ছেদের আলােকে বিকৃতি ,

বিনাশ বা অপসারণ থেকে রক্ষা করে । বর্ণিত প্রেক্ষাপটে বিশেষ শৈল্পিক এবং ঐতিহাসিক গুরুত্বসম্পন্ন যাত্রা মােহন সেন ( জে এম সেন ) ভবন ভাঙ্গার চক্রান্তের হাত থেকে রক্ষা করে তদস্থলে চট্টগ্রামের বিপ্লবী তথা তৎকালীন স্বাধীনতা সংগ্রামীদের স্মৃতি রক্ষার্থে যাদুঘর প্রতিষ্ঠার জন্য প্রয়ােজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের বিষয়ে বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার দৃষ্টি আকর্ষণের জন্য আপনার ব্যক্তিগত আন্তরিক উদ্যোগ একান্তভাবে কামনা করছি । আপনার সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করছি ।

NO COMMENTS

Leave a Reply