Home আইন ও আদালত সুন্দরী মেয়ে ব্যবহার করে সংঘবদ্ধ চক্রের অভিনব প্রতারনা ফাঁদঃসিএমপির পাহাড়তলী থানার অভিযানে...

সুন্দরী মেয়ে ব্যবহার করে সংঘবদ্ধ চক্রের অভিনব প্রতারনা ফাঁদঃসিএমপির পাহাড়তলী থানার অভিযানে গ্রেফতার ০১

আয়াজ আহমাদ:গত ১৪/১২/২০২০খ্রিঃ তারিখ একজন সুন্দরী নারীডবলমুরিং থানাধীন আগ্রাবাদ এলাকায় জনৈক মোঃআসাদুজ্জামান সুমন এর মোটরসাইকেলের নিকটগিয়ে অনুরোধ করে তাকে মোটরসাইকেলে লিভদেওয়ার জন্য। মোটরসাইকেল চালক সুন্দরী মেয়েরঅনুরোধ উপেক্ষা না করে তাহাকে লিভ দেয়।

লিভনেওয়া সুন্দরী নারী জনৈক মোঃ আসাদুজ্জামান সুমনকে সুকৌশলে প্রতারনার মাধ্যমে পাহাড়তলীথানাধীন দক্ষিন কাট্টলীস্থ প্রাণ হরি দাশ রোড রুপালীআবাসিক এলাকা হোল্ডিং নং১৫৪৬ সি হাজীসোলায়মান ভবন তলা বিল্ডিং এর ছাদের উপর নিয়াযায়, সেখানে আগে থেকে সুন্দরী নারীর সহযোগীরাঅবস্থান করছিল।

সুন্দরী নারী অভিনব কায়দায়তাহার অপরাপর সহযোগীদের সাথে নিয়ামোটরসাইকেল এর চালক থেকে সোনালী ব্যাংক এরএকটি ডেবিট কার্ড, লংকা বাংলার একটি ক্রেডিট কার্ড, মিউচুয়াল ব্যাংক এর দুইটি ডেবিট কার্ড, সিটি ব্যাংকএর একটি ক্রেডিট কার্ড, ইউসিবি ব্যাংক এর একটিডেবিট কার্ড, সিটি ব্যাংক এর একটি ক্রেডিট কার্ড, ০২টি স্মার্ট মোবাইল সেট,

২টি নরমাল মোবাইল সেট, জাতীয় পরিচয়পত্র, ড্রাইভিং লাইন্সেস, মোটরসাইকেলের স্মাট কার্ড সহ মোটরসাইকেলরআনুসাঙ্গিক কাগজপত্র এবং নগদ ১৭,০০০/- হাজারটাকা সহ এটিএম কার্ড হতে আরো নগদ ১২,০০০/- হাজার টাকা উত্তোলন করে নেয়।

সুন্দরী নারী তাহারসহযোগীরা জনৈক মোঃ আসাদুজ্জামান সুমন এর সবকিছু নেওয়ার পর তাহার মোটরসাইকেলটিও নিয়ে নেয়এবং তাকে অচেনা স্থানে নিয়ে ছেড়ে দেয়।মোটরসাইকেল চালক লজ্জায় উক্ত তথ্য প্রথমে গোপনকরলেও পরবর্তীতে এসে থানা পুলিশকে জানালেতাহার অভিযোগের প্রেক্ষিতে অজ্ঞাতনামা সুন্দরী নারী তাহার সহযোগীদের বিরুদ্ধে পাহাড়তলী থানারমামলা নং০৩(০১)২১ রুজু হয়।

মামলা রুজু হওয়ারপর দ্রুততম সময়ের মধ্যে ঘটনার সাথে জড়িতএকজনকে গ্রেফতার সহ জনৈক মোঃ আসাদুজ্জামানসুমন এর মোটরসাইকেলটি উদ্ধার করা হয়।গ্রেফতারকৃত ব্যাক্তিকে জিজ্ঞাসাবাদে জানায় যে, ঘটনার সাথে জড়িত মহিলা সহ অন্যান্যরা চট্টগ্রামশহরের বিভিন্ন এলাকায় প্রতারনার মাধ্যমে মানুষকেভয়ভীতি প্রদর্শন করে সবকিছু হাতিয়ে নিয়া যায়।

তাদের বিরুদ্ধে চট্টগ্রাম শহরের বিভিন্ন থানায় একাধিকমামলা রয়েছে।

গ্রেফতারকৃত ব্যক্তির নামঃ ওমর ফয়সাল রনি (২২), পিতাআবুল কাশেম, মাতাঝর্ণা বেগম , স্থায়ী : বক্সাআলি চেরাং এর বাড়ী ০২নং ওয়ার্ড, মুছাপুর ইউপি, গ্রামমুছাপুর, থানাসন্দীপ,

জেলাচট্টগ্রাম, বর্তমানতাহের এর ভাড়াটিয়া, ৫ম তলা রুপালী আবাসিক, দক্ষিন কাট্টলী, থানাপাহাড়তলী, জেলাচট্টগ্রাম।

NO COMMENTS

Leave a Reply