Home চট্টগ্রাম করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় মতবিনিময় মাস্ক পরিধান না করলে কঠোর ব্যবস্থা :...

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় মতবিনিময় মাস্ক পরিধান না করলে কঠোর ব্যবস্থা : সুজন

0 0

আয়াজ আহমাদ চট্টগ্রাম-১১ নভেম্বর ২০২০ইং
চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রশাসক আলহাজ্ব মোহাম্মদ খোরশেদ আলম সুজন বলেছেন, করোনা নিয়ে জনগণের অবহেলায় মৃত্যু ঝুঁকি বাড়াতে পারে। সরকারি-বেসরকারি অফিস আদালত, বাজার, শপিংমল সবক্ষেত্রে জনগণের বাধ্যতামূলক মাস্ক পড়া নিশ্চিত করতে হবে।

করোনা সংক্রমণ থেকে বাঁচতে সামাজিক দূরত্ব মেনে চলা, বার বার সাবান পানিতে হাত ধোয়া ও প্রয়োজনে বাইরে বের হলে অবশ্যই মাস্ক পরিধান করা ছাড়া আমাদের সামনে এখনো জন সাস্থ্য রক্ষার বিকল্প কোন পথ নেই। তিনি আজ সকালে নগরীর বাটালী রোডস্থ চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের সম্মেলন কক্ষে সভাপতির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

সভায় কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী মুহাম্মদ মোজাম্মেল হক, চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক বিগ্রেডিয়ার জেনারেল এস এম হুমায়ুন কবির, চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. ফজলে রাব্বি, চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের চিকিৎসক মো. আবদুর রব, চট্টগ্রাম প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের বিভাগীয় উপ পরিচালক ড. মো. শহিদুল ইসলাম, চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের আরএমও ডা. আহমেদ তানজিমুল ইসলাম, চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসকের সহকারী কমিশনার মো. উমর ফারুক, চট্টগ্রাম পরিবার পরিকল্পনা অফিসের উপ-পরিচালক ডা. উ খ্যে উইন উপস্থিত ছিলেন।

মতবিনিময়ে কোভিড-১৯ কালীন বিশেষ পরিস্থিতিতে চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে নিয়মিত ওয়াসা পানি সরবরাহ, না পাওয়ায় রোগীদের চিকিৎসাসেবা কার্যক্রমে দুর্ভোগ দেখা দিচ্ছে শুনে, প্রশাসক ওয়াসার পানি সরবরাহ  স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে প্রতিদিন এক ভাউচার বিশুদ্ধ পানি জেনারেল হাসপাতালে দেয়া হবে জানান। তিনি এ সমস্যা সমাধানে তখনি প্রকৌশলী বিভাগের সংশ্লিষ্ট প্রকৌশলীকে ব্যবস্থা নিতে বলেন।

সভায় সিভিল সার্জন ডা. শেখ ফজলে রাব্বি কোভিড-১৯ এর দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় তাদের জেলা কমিটির সার্বিক প্রস্তুতি আছে জানিয়ে জনগণকে সচেতন করতে প্রচার-প্রচারণা চালানোর ওপর জোর দেন। তিনি জনগণের বড় অংশ অবহেলায় মাস্ক পরিধান না করায় উদ্বেগ প্রকাশ করেন।

প্রশাসক মোহাম্মদ খোরশেদ আলম সুজন বলেন, জনগণের অবহেলা ও অসচেতনতার কারণে অক্টোবর থেকে করোনার সংক্রমন আবার বেড়ে গেছে। টেস্টের মাত্র ১০ শতাংশ রোগীর করোনা সনাক্ত হচ্ছে। সরকারের  সাস্থ্য সেবায় বিভাগের জন সাস্থ্য  অনুবিভাগের নির্দেশনা অনুযায়ী আমরা প্রথমে নগরবাসীকে মাস্ক ব্যবহারে সচেতন করতে প্রচার প্রচারণা চালাবো। এতে কাজ না হলে জরিমানা করার ব্যবস্থা।

তিনি নগরবাসীকে সকল সরকারি-বেসরকারি অফিস, ব্যাংক-বীমা, আদালতে মাস্ক পরিধান ছাড়া প্রবেশ নিষেধ ও সেবা প্রদান না সরকারি ঘোষণার কথা মনে করিয়ে দেন। প্রশাসক সামাজিক দূরত্ব মেনে চলার ওপর জোর দিয়ে বলেন, ইউরোপ আমেরিকায় করোনার সংক্রমন বাড়ায় আবার লকডাউন দেয়া হয়েছে।

সাম্প্রতিক সময়ে আমেরিকার নির্বাচনের দিনই ওইখানে ১২’শ লোক মারা গেল। এখন আবার ডেঙ্গুর প্রকোপও বাড়তে পারে। তাই পরিস্কার পরিচ্ছন্নতার বিকল্প নাই। তিনি বিদেশ ফেরত বন্ধে কোন ধরণের শৈথিল্য দেখানো যাবে না।

উল্লেখ করে বলেন, জনবহুল এলাকা সিইপিজেড, বিমানবন্দর, রেল-বাস স্টেশনের চেকপোষ্টে জোরদার তল্লাশি চালানোর পাশাপাশি মাস্ক পরিধান শতভাগ নিশ্চিত করতে হবে।

উল্লেখ্য ইতোমধ্যে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন কোভিড-১৯ মোকাবেলায় নগরবাসীকে সচেতন করতে প্রচার পত্র ছাপিয়ে বিলি করছে।

NO COMMENTS

Leave a Reply