Home অপরাধ গাবতলীতে শিশুকে অপহরণকালে ৪জনকে আটক করে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ

গাবতলীতে শিশুকে অপহরণকালে ৪জনকে আটক করে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ

বগুড়া প্রতিনিধিঃ বগুড়ার গাবতলীতে সাড়ে ৪বছরের শিশুকে প্রাইভেট কারযোগে অপহরণ করে নিয়ে যাওয়ার সময় জনতা কর্তৃক কার ভাংচুর করে ৪জন অপহরণকারীকে আটক করে গণধোলাই দিয়ে থানা পুলিশে সোপর্দ করেছে। গতকাল বুধবার উপজেলার পাচমাইল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। বিষয়টি মুর্হুতের মধ্যে জানা জানি হলে এলাকার শত শত মানুষ এসে ভিড় জমায়। ঘটনাস্থলে পুলিশ এসেও অপহরণকারীদের প্রাণ রক্ষা করতে হিমশিম খেতে হয়।

পরে থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ নুরুজ্জামান আরো সঙ্গীয় ফোর্স এসে এলাকাবাসির সহযোগিতা নিয়ে অপহরণকারীদের উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। জানা গেছে, উপজেলার মহিষাবান ইউনিয়নের ধোড়া গ্রামের সুজন প্রামানিকের সাড়ে ৪বছরের ছেলে পাশ^বর্তী ইটভাটা ছয়মাইল এলাকা এলে ওই সময় বগুড়াগামী একটি প্রাইভেট কার এসে শিশুকে জোর করে প্রাইভেট কার গাড়ীতে তুলে নেয়।

ঘটনাটি একজন মহিলা দেখতে পেয়ে একজন মোটর সাইকেল আরোহীকে জানালে তিনি দ্রæত গতি গিয়ে স্থানীয় পাচমাইল এলাকায় কারটি গতিরোধ করে। এ সময় আশেপাশের লোকজন এসে কারের মধ্যে থেকে শিশুকে উদ্ধার করে এবং স্থানীয় জনতা কারটি ভাংচুর করে ওই ৪জন অপহরণকারীকে আটক করে গণধোলাই দেয়। পরে তাদেরকে জনগনের হাত থেকে বাচাতে একটি ঘরের মধ্যে আটকে রেখে থানা পুলিশ সংবাদ দেয়া হয়।

পুলিশ আসার পর অপহরণকারীদের সোপর্দ করা হয়। গ্রেফতারকৃত অপহরণকারীরা হলো উপজেলার নাড়–য়ামালা ইউনিয়নের হাপানিয়া গ্রামের শহিদুল ইসলামের ছেলে রেজাউল ইসলাম (২৭), ইজার মোল্লা’র ছেলে মিল্লাত মোল্লা (৩০), ঠাকুরগাঁ জেলার পীরগঞ্জ উপজেলার চান্দহর গ্রামের সামছুল হক এর ছেলে আরিফুল ইসলাম (২৫) ও সিরাজগঞ্জ জেলার তাড়াশ উপজেলা সদরের উত্তরপাড়ার মৃত ময়েন সরকারের ছেলে আল আমিন সরকার (২৩)।

এ ঘটনায় অপহৃত শিশুর পিতা সুজন প্রামানিক বাদী হয়ে প্রাইভেট কারের চালকসহ ৫জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। তবে ৪অপহরণকারী গ্রেফতার হলেও কার চালক পলাতক রয়েছে। এ বিষয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ নুরুজ্জামান এর সাথে কথা বললে তিনি উপরোক্ত তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

NO COMMENTS

Leave a Reply