Home চট্টগ্রাম ৪ অক্টোবর থেকে শুরু হচ্ছে চসিকের ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন

৪ অক্টোবর থেকে শুরু হচ্ছে চসিকের ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন

0 0

চট্টগ্রাম- ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০খ্রিঃ চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রধান  সাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সেলিম আকতার চৌধুরী জানান পুষ্টি বাস্তবায়ন সমš^য় স্টিয়ারিং কমিটির সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক নগরীতে ৪ অক্টোবর থেকে ১৭অক্টোবর পক্ষকালব্যাপী ইপিআই কেন্দ্রে সমূহে ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। এইসময় বিশ্বব্যাপী কোভিড-১৯ মহামারীর প্রেক্ষাপটে সাস্থ্যমেনে বহুমুখি সেবা ও কার্যক্রম পালন করে শিশুদের ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে।

চসিক মেমন হাসপাতালে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, শুধুমাত্র অপুষ্টিজণিত অন্ধত্ব থেকে শিশুদের রক্ষা করে তা-ই নয়, ভিটামিন এ শিশুর রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে, ডায়রিয়ার ব্যাপ্তিকাল ও জটিলতা কমায় এবং শিশুমৃত্যুর ঝুঁকি কমায়। বাংলাদেশে ভিটামিন এ এর অভাবজণিত সমস্যা প্রতিরোধ   সাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের অধিনে জাতীয় পুস্টিসেবা,জন সাস্থ্য পুষ্টি প্রতিষ্ঠান বছরে ২ বার করে জাতীয় ভিটামিন এ ক্যাম্পেইন করে থাকে।

তারই আলোকে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নগরীর ৪১ টি ওয়ার্ডে এই পুষ্টিসেবা কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। তিনি এই কার্যক্রমের উদ্দেশ্যে ব্যক্ত করে বলেন, ৬-৫৯ মাস বয়সী শিশুদের মধ্যে ভিটামিন এ এর অভাবজণিত রাতকানা রোগের প্রাদুর্ভাব ১ শতাংশের নিচে কমিয়ে আনা এবং তা অব্যাহত রাখা। একই বয়সী শিশুদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধির মাধ্যমে অপুষ্টিজণিত মৃত্যু প্রতিরোধ করা। তিনি এই কার্যক্রমের লক্ষ্যমাত্রা সম্পর্কে বলেন, ৯০ শতাংশের বেশি শিশু যাদের বয়স ১২ মাস থেকে ৫৯ মাস প্রতি ৬ মাস অন্তর বছরে ২ বার লাল রঙের ভিটামিন এ ক্যাপসুল পাবে।

৯০ শতাংশের বেশি শিশু যাদের বয়স ৬-১১ মাস প্রতি ৬ মাস অন্তর বছরে একবার নীল এ ক্যাপসুল পাবে। তিনি আরো জানান ১২-৫৯ মাস বয়সী প্রায় ৪ লক্ষ ৫২ হাজার শিশুকে ১টি উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন লাল রঙের ভিটামিন এ ক্যাপসুল(২ লক্ষ ইউনিট) খাওয়ানো হবে। এবং শিশুকে ৬ মাস বয়স পর্যন্ত শুধুমাত্র মায়ের দুধ খাওয়ানো বিষয়ে পুষ্টি বার্তা প্রচার করা হবে। এছাড়া শিশুর বয়স ৬ মাস পূর্ণ হলে মায়ের দুধের পাশাপাশি ঘরে তৈরি পরিমাণমতো সুষম খাবার খাওয়াতে উদ্বুদ্ধ করা হবে।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন চসিকের   সাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ আলী, জোনাল মেডিক্যাল অফিসার ডা. তপন কুমার চক্রবর্তী, ডা. মো. ইমাম হোসেন রানা, ডা. হাসান মুরাদ চৌধুরী, ডা. রফিকুল ইসলাম, ডা. জুয়েল মহাজন, ডা. আকিল মো. নাফে, ডা. সুমন তালুকদার, চসিক কর্মকর্তা আবদুর রহিম প্রমুখ।

গত ১১ জানুয়ারি জাতীয় ভিটামিন-এ প্লাস ক্যাম্পেইনে ৭৭ হাজার ২৩৭ জনকে নীল ও ৪ লাখ ৪১ হাজার ৬৮৬ জনকে লাল রঙের ক্যাপসুল খাওয়ানো হয়েছিল, অর্জিত লক্ষ্যে মাত্রা ছিল ৯৮ দশমিক ৪ শতাংশ। সাস্থ্য কর্মকর্তা আরো জানান জানান, আগামী রোববার (৪ অক্টোবর) চসিকের ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন উদ্বোধন করবেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রশাসক মোহাম্মদ খোরশেদ আলম সুজন।

NO COMMENTS

Leave a Reply