Home চট্টগ্রাম এএসপি শামীমের বিশেষ উদ্যোগঃ রাঙ্গুনিয়ায় স্বেচ্ছাশ্রমে সড়কের পার্কিং জোন সংস্কার

এএসপি শামীমের বিশেষ উদ্যোগঃ রাঙ্গুনিয়ায় স্বেচ্ছাশ্রমে সড়কের পার্কিং জোন সংস্কার

0 0

মুহাম্মদ তৈয়্যবুল ইসলাম, রাঙ্গুনিয়া(চট্টগ্রাম)প্রতিনিধি।

চট্টগ্রাম-কাপ্তাই সড়কে যানজট নিরসনে বিশেষ অভিযান চালিয়ে যাচ্ছেন রাঙ্গুনিয়া সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) আনোয়ার হোসেন শামীম। গত এক সপ্তাহ ধরে সড়কে নিয়মিত মনিটরিং করাসহ যানজট নিরসনে নানামুখী পদক্ষেপ বাস্তবায়নে মাট চষে বেড়াচ্ছেন তিনি। তার ব্যতিক্রমী এসব উদ্যোগে কাপ্তাই সড়কে শ্রঙ্খলা ফিরতে শুরু করছে।

সড়কের যানজটের অন্যতম একটি কারণ যত্রতত্র গাড়ি পার্কিং। তাই এবার তিনি সড়কের গাড়ি পার্কিংয়ের জন্য স্থান নির্দিষ্ট করে দিচ্ছেন। সড়কের নির্দিষ্ট দূরত্বে খুটি গেড়ে দড়ি লাগিয়ে দিচ্ছেন তিনি। এছাড়া সড়কের যেসব স্থানে ময়লা-আবর্জনা ও গাড়ি পার্কিংয়ের অনুপযোগী এসব স্থানে স্থানীয় জনসাধারণকে সাথে নিয়ে ইট-বালি দিয়ে সংস্কার করে দিচ্ছেন তিনি।

রোববার (২০ সেপ্টেম্বর) রোয়াজারহাটে এএসপি আনোয়ার হোসেন শামীমের বিশেষ উদ্যোগে বেহাল ফুটপাত সংস্কার করা হয়েছে। ফুটপাতের আবর্জনা পরিস্কার করে তাতে ইট ও বালি দিয়ে সংস্কার করা হয়। তার নেতৃত্বে এদিন সকাল ১০টা থেকে দুপুর ৩টা পর্যন্ত স্বেচ্ছাশ্রমে সড়কের পার্কিং জোন সংস্কার কাজে অংশ নিয়েছেন রোয়াজারহাট ব্যবসায়ী সমিতি, সিএনজি-অটোরিকশা সমিতি ও রাঙ্গুনিয়া কলেজ ছাত্রসংসদ ও ছাত্রলীগের অর্ধশত নেতৃবৃন্দ। সংস্কার কাজ শেষে সিনএনজি-অটোরিকশায় যাত্রী উঠানামা করার জন্য নির্দিষ্ট এই পার্কিং জোন আনুষ্ঠানিক ভাবে উদ্বোধন করা হয়।

সড়ক দুর্ঘটনায় আহত মুরাদনগর এলাকার মাহিন উদ্দিন (৩১) নামে এক যুবকের মাধ্যমে এই পার্কিং জোনের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন তিনি। এসময় উপস্থিত ছিলেন রোয়াজারহাট ব্যবসায়ী সমিতির সিনিয়র সহসভাপতি বদিউল খায়ের লিটন চৌধুরী, পৌরসভার প্যানেল মেয়র (২) লোকমানুল হক তালুকদার, সৌদিয়া প্রবাসী মোহাম্মদ ইকবাল হোসেন, ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক রাসেল চৌধুরী, সিএনজি-অটোরিকশা সমিতির নুরুল আজিম মনু, হাজী জফুর আলম, ব্যবসায়ী নেতা মোহাম্মদ ইলিয়াস, সালাউদ্দিন চৌধুরী, আবুল কালাম আবু, মো. ফোরকান, যুবলীগ নেতা মাহবুব আলম সিকদার, রাঙ্গুনিয়া কলেজ ছাত্রসংসদের ভিপি শহীদুল ইসলাম সোহেল চৌধুরী, জিএস মহিউদ্দিন জয়, কলেজ ছাত্রলীগের সিনিয়র সহ সভাপতি বাবলা তালুকদার, যুবলীগ নেতা মো. সোহেল খাঁন, মো. হোসেন, মিনহাজ উদ্দিন, ওমর ফারুক সুজন, মো. রিয়াজ, জাবেদ হোসেন প্রমুখ।

এদিকে সড়কে যানজট নিরসনে এএসপির বিশেষ এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছে সাধারণ মানুষ। একের পর এক তার চমকপ্রদ সব উদ্যোগে সড়ক জুড়ে যানজট অনেকটাই নিরসন হয়েছে বলে জানিয়েছেন সাধারণ মানুষ।

মাহিন উদ্দিন বলেন, ‘বিশৃঙ্খল পরিস্থিতির কারণে সড়কে দুর্ঘটনা লেগেই আছে। তাই যত্রতত্র যাত্রী উঠানামা ও সড়কে গাড়ি পার্কিংসহ সড়কের বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি রোধ করা গেলে যানজটের পাশাপাশি সড়ক দুর্ঘটনাও অনেকাংশে কমে আসবে। সড়কের শৃঙ্খলা ফেরাতে এএসপি শামীমের বিশেষ এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানাই।’

প্রবাসী মো. ইকবাল হোসেন বলেন, ‘আগে রোয়াজারহাট দিয়ে গেলেই নিশ্চিত যানজটে পড়তে হতো। ১০ মিনিটের সড়ক পেরুতে আধাঘন্টারও বেশি সময় লেগে যেতো। এখন সড়কে দড়ি টেনে দিয়ে যাত্রী উঠানামার নির্দিষ্ট স্থান করে দেওয়াতে সড়ক যানজট মুক্ত হয়েছে। সড়কে পুলিশের এই তদারকি অব্যাহত রাখা গেলে স্থায়ীভাবে সড়ক যানজট মুক্ত হবে।’

এএসপি আনোয়ার হোসেন শামীম বলেন, সড়ক যানজট মুক্ত করতে নানা উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে এবং তা বাস্তবায়নে মাঠ পর্যায়ে কাজ করে যাচ্ছি। এর অংশ হিসেবে সড়কের যাত্রী উঠানামার নির্দিষ্ট পার্কিং লোকেশন ঠিক করে দেওয়া হয়েছে। যেখানে পার্কিং জোনের বেহাল পরিস্থিতি সেখানেই স্থানীয়দের সাথে নিয়ে স্বেচ্ছাশ্রমে সংস্কার করে দেওয়া হচ্ছে। সড়ক যানজট মুক্ত রাখতে কাপ্তাই সড়কের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত পর্যায়ক্রমে পার্কিং এরিয়া নির্দিষ্টকরণসহ নানা উদ্যোগ বাস্তবায়ন করা হবে। জনগণের সড়কে জনগণ যেন নির্ভিগ্নে কোন যানজট ছাড়াই স্বস্তীতে চলাচল করতে পারে সেজন্য এসব উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে। এই উদ্যোগে সংশ্লিষ্ট সকলের সহযোগিতা চেয়েছেন তিনি।

NO COMMENTS

Leave a Reply