Home অপরাধ প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ ও ব্যাখ্যা

প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ ও ব্যাখ্যা

ভোলা জেলা প্রতিনিধিঃগত ৪ থেকে ১৫ জুন তারিখের মধ্যে “দৈনিক ভোলা টাইমস” পত্রিকায় প্রকাশিত তিন পর্বের সংবাদে যথাক্রমে ১। “ভোলার চরফ্যাশনে ভুমিদস্যু মনছুর বাহিনীর সন্ত্রাস! কৃষকের পাকা ধান লুট, মিথ্যে মামলায় হয়রানী”, ২।

“ভোলা চরফ্যাশনে বিএনপি ক্যাডার মনছুর বাহিনীর সন্ত্রাস-০২, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্বাচনী প্রচারমাইক ভাংচুর করে এখনো বীরদর্পে ত্রাসের রাজত্ব চালাচ্ছেন মনছুর সর্দার!

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চেয়েছেন সাধারন মানুষ” ও ৩। “ভোলার চরফ্যাশনে ভূমিদস্যু মনছুর বাহিনীর সন্ত্রাস- ০৩, বিএনপি ক্যাডার পুত্র জামাল ঢাকায় যুবলীগ নেতা সম্রাটের চাঁদা তোলার দায়িত্বে, এলাকায় বাবার দুর্বৃত্তায়নে অস্ত্র’র যোগান দেন তিনি!” শিরোনামে যে সংবাদসমূহ ছাপানো হয়েছে তা আমার দৃষ্টিগোচর হয়েছে। একটি কুচক্রি মহল সংবাদ কর্মীদের ভুল তথ্য দিয়ে এ মিথ্যা সংবাদটি দিয়েছে।

উল্লেখ্য যে, এহতে সামু রহমান গং আমাকে আম মোক্তার নামার মাধ্যমে জমি চাষ করার ক্ষমতা অর্পন করে। কিন্তু আব্দুছ ছালাম, আলামিন শাহরিয়ার, আব্দুল মালেক হাওলাদার, সামচুল আলম, গোলাম মোস্তফা ফারুক, মোঃ হারুন,

আঃ বারেক, আঃ রব আকন, মোঃ ছানাউল্যা, আফজাল হোসেন, আঃ হক নামে কতিপয় ব্যক্তি নিজেরা জাল দলিল প্রণয়ন করে লেন্ড ট্রাইবুনালকে ভুল বুঝিয়ে ভুয়া রায় প্রদানের মাধ্যমে জমি আত্মসাৎ করার চেষ্টা করে। তাদের ভুয়া জাল দলিল যাচাই করতে ঢাকা রেজিষ্ট্রি অফিসে গেলে তারা এই মর্মে প্রত্যায়ন পত্র প্রদান করে যে, এমন কোন দলিল সম্পাদন হয়নি। এটি ভুয়া। দলিলটি ১৯৭২ সালে সম্পাদন হয়েছে দেখানো হয় কিন্তু ২নং দলিল গ্রহিতা আল আমিন শাহরিয়ারের জন্মই হয়েছে ১৯৮০ সালে।

গত ০৩ নভেম্বর ২০১৯ইং সালে প্রায় ৮ মাস বিষয়টি তদন্ত শেষে মোঃ আজগর আলী, পুলিশ পরিদর্শক, সিআইডি অফিস ভোলা এর স্বাক্ষরকৃত তদন্ত প্রতিবেদনে তাদেরকে আসামী করে পেনাল কোড ৪১৯/ ৪২০/ ৪৬৫/ ৪৬৭/ ৪৬৮/ ৪৭১/ ৩৪ ধারার অপরাধ প্রাথমিক ভাবে প্রমাণিত হওয়ায় ন্যায় বিচারের স্বার্থে বিজ্ঞ আদালতে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য সুপারিশ করা হয়।

উক্ত জমি সমূহ মোশারেফ মিয়া ও আমি মোঃ মনছুর আহাম্মদ আম মোক্তার নামার ক্ষমতাবলে চাষ করে আসছি এবং এখন মামলার বাদী। আমি বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের নিবেদিত একজন কর্মী। স্থানীয় আওয়ামীলীগ এর ইউনিয়ন চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে দীর্ঘদিন যাবৎ আওয়ামীলীগের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত।

প্রকৃতপক্ষে প্রকাশিত সংবাদে উল্লেখিত কার্যকলাপের সাথে আমার আদৌ কোন সম্পর্ক নেই। সংবাদটি সম্পূর্ণ মিথ্যা, ভুয়া, বানোয়াট। একটি কুচক্রি মহল আমাকে ও আমার পরিবারকে হেয় প্রতিপন্ন করে রাজনৈতিক স্বার্থ হাসিলের উদ্দেশ্যে এই মিথ্যা সংবাদ ছাপিয়েছে। আমি উক্ত মিথ্যা ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত সংবাদ সমূহের প্রতি তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।

বিনীত
মোঃ মনছুর আহাম্মদ
পিতা- আলী আহাম্মদ সরদার
গ্রামঃ উত্তর মাদ্রাজ, জিন্নাগড়, ৭নং ওয়ার্ড, ডাকঘরঃ কাশেমগঞ্জ, উপজেলাঃ চরফ্যাশন, জেলাঃ ভোলা।

NO COMMENTS

Leave a Reply