১৫ মাসের শিশুকে ধর্ষন ৬০ বছরের বৃদ্ধ

নড়াইল: জেলার লোহাগড়া উপজেলার মরিচপাশা গ্রামে ১৫ মাসের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত লোকমান সরদারকে (৬০) আটক করেছে পুলিশ।

এদিকে, ভূক্তভোগী শিশুকে নড়াইল সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় অভিযুক্তের বিচার দাবি করেছেন এলাকাবাসী। অভিযুক্ত লোকমান ভূক্তভোগী শিশুটির চাচা বলে জানা গেছে।

শিশুটির মা জানান, গতকাল মঙ্গলবার (৯ জানুয়ারি) সকাল ১০টার দিকে নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার মরিচপাশা গ্রামে বাড়ির পাশে তার শিশুকে কোলে করে গম ক্ষেতে পানি দিচ্ছিলেন। এ সময় প্রতিবেশি লোকমান সরদার তার সন্তানকে বাড়িতে পৌঁছে দেয়ার কথা বলে মায়ের কোল থেকে নিয়ে নেয়। কিছু সময় পরে শিশুটির মা গম ক্ষেত থেকে বাড়ির দিকে আসার পথে মরিচপাশা গ্রামের মসজিদের পাশে অভিযুক্ত লোকমানের কাছে কান্নারত অবস্থায় তার সন্তানকে দেখতে পায়।

লোকমানের কাছ থেকে বাড়িতে নেয়ার পরে তার মা দেখেন শিশু সন্তানের প্রস্রারাব পথ দিয়ে রক্তক্ষরণ হচ্ছে। পরে ওইদিন (মঙ্গলবার) বিকেলে শিশুটিকে প্রথমে লোহাগড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হলে তাকে নড়াইল সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে তারাশি গ্রামের মহিদ মোল্যা বলেন, ঘৃণিত এ ঘটনার যথাযথ বিচার চাই। লাহুড়িয়ার আব্দুস শুকুর বলেন, শিশুর সাথে এ ধরণের অমানবিক ঘটনা মেনে নেয়া যায় না। আমরা অভিযুক্ত ব্যক্তির বিচার চাই।

নড়াইল সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. মশিউর রহমান বাবু বলেন, শিশুটির যোনিপথে আঘাত রয়েছে বলে প্রাথমিক ভাবে জানতে পেরেছি। গাইনি চিকিৎসকের সহায়তায় আলামত সংগ্রহ করে পরীক্ষা-নিরিক্ষার পর বিষয়টি স্পষ্ট হবে।

লোহাগড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় লোকমান সরদারকে আসামি করে লোহাগড়া থানা মামলা দায়ের করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে লোকমানকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

 

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *