খালেদা জিয়া দেরিতে হাজির হওয়ায় আইনজীবীদের দোষারোপ

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার আইনজীবীদের দোষারোপ করেছেন আদালত। দেরিতে হাজির হওয়ায় আজ এ দোষারোপ করেন ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৫-এর বিচারক আখতারুজ্জামান। এ সময় বিচারক আট দিন ধরে চলতে থাকা যুক্তিতর্ক শেষ করতে চাইলে খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা হইচই শুরু করে দেন। এর আগে বেলা ১১টা ৫০ মিনিটে আদালতে হাজির হন খালেদা জিয়া। তার পক্ষে তাঁর আইনজীবী এ জে মোহাম্মদ আলী যুক্তিতর্ক শুরু করলে আদালত বলেন, ‘আদালতের কার্যক্রম শুরু হওয়ার কথা সকাল সাড়ে ৯টায়। আপনারা ১২টার সময় কেন আসলেন? আপনারা আসেন বা না আসেন, এরপর থেকে আমি সকাল সাড়ে ১০টায় আদালতের কার্যক্রম শুরু করব।

বিচারক বলেন, ‘আজই আপনারা শেষ করবেন’—আদালত এটা বলার সঙ্গে সঙ্গে এজলাসে উপস্থিত বিএনপির আইনজীবীরা হইচই শুরু করে দিলে বিচারক বলেন, ‘আপনারা হইচই করলে আমি আদালতের কার্যক্রম মুলতবি করব।

এ সময় খালেদা জিয়ার অপর আইনজীবী আবদুর রেজাক খান বলেন, ‘আমরা চেষ্টা করছি, মামলার প্রাসঙ্গিক বিষয় নিয়ে যুক্তিতর্ক তুলে ধরতে। যতক্ষণ প্রাসঙ্গিক বিষয় নিয়ে আমাদের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষ না হচ্ছে, ততক্ষণ অনুগ্রহ করে আমাদের সময় দেবেন।’ এরপরই পরিস্থিতি শান্ত হয়। এরপর মামলায় অষ্টম দিনের মতো যুক্তিতর্ক শুনানি শুরু হয়।

মামলার নথি থেকে জানা গেছে, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্টের দুই কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার ৬৪৩ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ এনে খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) ২০০৮ সালের ৩ জুলাই রমনা থানায় একটি মামলা দায়ের করে।

এছাড়া জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্টের নামে অবৈধভাবে টাকা লেনদেনের অভিযোগে খালেদা জিয়াসহ চারজনের বিরুদ্ধে দুদক ২০১০ সালের ৮ আগস্ট তেজগাঁও থানায় আরও একটি মামলা দায়ের করে।

 

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *