চট্টগ্রাম এসএএস কর্পোরেশনের অর্থায়নে রাউজান ব্যারিষ্টার সুরেশ বিদ্যায়তনের দ্বি-তল একাডেমিক ভবন উদ্বোধন

চট্টগ্রাম এসএএস কর্পোরেশনের অর্থায়নে চট্টগ্রাম জেলা রাউজান উপজেলার ব্যারিষ্টার সুরেশ বিদ্যায়তন এর দ্বি-তল একাডেমিক ভবন শুভ উদ্বোধন এবং বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ-২০১৮ আয়োজিত অনুষ্ঠানটি শনিবার সকালে বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত হয়। রাউজান পৌরসভার প্যানেল মেয়র, বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি জমির উদ্দিন পারভেজ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ছিলেন-নুরুল ইসলাম নাহিদ এমপি, মাননীয় মন্ত্রী, শিক্ষা মন্ত্রনালয়, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার। অনুষ্ঠানের প্রধান বক্তা ছিলেন এ.বি.এম ফজলে করিম চৌধুরী এমপি, মাননীয় সভাপতি, রেল মন্ত্রনালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি, বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ, ঢাকা। বিশেষ অতিথি ছিলেন, জিয়াউদ্দিন আহমেদ চৌধুরী এমপি, প্রাক্তন মন্ত্রী, প্রাক্তন মহাসচিব ও প্রেসিডিয়াম সদস্য, জাতীয় পার্টি, মোঃ সোহরাব হোসাইন, সচিব মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার, মোহাম্মদ মুসলিম চৌধুরী-সচিব, অর্থ বিভাগ, অর্থ মন্ত্রনালয়, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার, মুঃ মোহসিন চৌধুরী-যুগ্ম সচিব, প্রবাসি কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রনালয়, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার, মোঃ জিল্লুর রহমান চৌধুরী-জেলা প্রশাসক, চট্টগ্রাম, প্রফেসর ডঃ সৈয়দ মোঃ গোলাম ফারুক-পরিচালক, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা, চট্টগ্রাম অঞ্চল, চট্টগ্রাম, মাসুক ইনতেজাম- সিইও, এসএএস কর্পোরেশন। এছাড়া আরো উপস্থিত ছিলেন রাউজান উপজেলা আওয়ামীলীগের অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ এবং এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

শিক্ষা মন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ এমপি বলেন-বঙ্গবন্ধুর স্বাধীনতার সুফল পেতে নতুন প্রজন্মকে এগিয়ে নিতে হবে। এজন্য প্রয়োজন পাঠ্যপুস্তকের পাশাপশি শিক্ষার্থীদের বাহ্যিকভাবে প্রশিক্ষিত করে গড়ে তোলা। এতে নতুন প্রজন্ম প্রেরণা পাবে, এগিয়ে যাবে দেশ। আজকে রাউজান ব্যারিষ্টার সুরেশ বিদ্যায়তনে এসে আমার আনন্দে বুক ভরে গেছে। আমি এখানে এসে নিজেকে ধন্য মনে করছি। রাউজান উপজেলায় কয়েকটি ভালো ভালো স্কুলের মধ্যেও রাউজান ব্যারিষ্টার সুরেশ বিদ্যায়তন অন্যতম। বর্তমান সরকার ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্ন বাস্তবায়ন, দেশের উন্নয়ন এবং শিক্ষাখাত কে উন্নয়নের অগ্রগতির লক্ষ্যে পৌছানোর জন্য আপ্রান চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। মন্ত্রী আরো বলেন- চট্টগ্রাম এসএএস কর্পোরেশনের অর্থায়নে চট্টগ্রাম জেলা রাউজান উপজেলার ব্যারিষ্টার সুরেশ বিদ্যায়তন এর দ্বি-তল একাডেমিক ভবন শুভ উদ্বোধন করতে এসে আমার ভাল লাগছে এবং সময় স্বল্পতার কারণে আমি থাকতে পারছিনা। সময় থাকলে আরো ভালো করে সবকিছু দেখে যেতাম। মন্ত্রী এসএএস কর্পোরেশনের উত্তোরতোর মঙ্গল কামনা করেন।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে এসএএস কর্পোরেশনের সিইও মাসুক ইমতেজাম বলেন-ব্যারিষ্টার সুরেশ বিদ্যায়তনের উন্নয়নে এসএএস কর্পোরেশন সর্বদা পাশে আছে, পাশে থাকবে। দেশের স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা সহ অন্যান্য সামাজিক প্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন এবং গরিব, দূখী ছাত্র-ছাত্রীদের মেধা বিকাশে এসএএস কর্পোরেশন প্রতিনিয়তই কাজ করে যাচ্ছে। তিনি ছাত্র-ছাত্রীদের উদ্দেশ্য বলেন-আজকে যারা ছাত্র আগামীতে তারা ভবিষ্যৎ। তোমাদের লেখা পড়ায় মনোযোগি হতে হবে। তোমরা সুশিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে কেহ ডাক্তার হবে, কেহ ইঞ্জিনিয়ার, কেহ রাজনীতিবীদ, কেহ ব্যবসায়িক। যেদিন তোমরা লক্ষ্যস্থানে পৌছবে, বড় মাপের মানুষ হয়ে এসএএস কপোরেশনের মতো দেশ ও সমাজের উন্নয়নের জন্য কাজ করবে। তিনি শিক্ষক এবং ছাত্র-ছাত্রীর অভিভাবকদের উদ্দেশ্যেও বলেন-আপনার শিক্ষক। একজন শিক্ষক হচ্ছে, জাতির নির্মাতা। জাতি গঠনে শিক্ষদের ভূমিকা অপরিসীম। আপনার ছাত্র-ছাত্রীদের সু-শিক্ষা দিবেন, আপনাদের শিক্ষা নিয়ে তারা সু-শিক্ষায় সুক্ষিত হয়ে দেশ ও সমাজের কল্যাণে কাজ করবে এবং অভিভাবদের উদ্দেশ্যেও বলেন, আপনার আপনাদের ছেলে-মেয়েদের স্কুলে পাঠাবেন এবং আপনাদের সন্তানদের লেখা-পাড়ার দিকে উৎসাহিত করবেন। মাসুক ইমতেজাম আরো বলেন-এই স্কুলের উন্নয়নের পেছনে এসএএস কর্পোরেশনের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব সামসুল আলম (শামীম) সাহেবের বিশেষ ভূমিকা রয়েছে। তার উৎসাহতেই আমার পক্ষে এই মহৎ কাজটি করা সম্ভব হয়েছে। শুধু তাই নয়, দেশ ও সমাজের উন্নয়নমূলক কাজে ও অসহায় হত দরিদ্র সাধারন মানুষের পাশে আমাকে দাড়ানোর জন্য এসএএস কর্পোরেশনের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব সামসুল আলম (শামীম) সাহেব আমাকে সর্বদাই উৎসাহ, অনুপ্রেরণা এবং উপদেশ দিয়ে থাকেন।

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *