বর্তমান সরকার দেশের জনগণের ভোটাধিকার হরণ করে গণতন্ত্র হত্যা করেছে-২০ দলীয় জোট

বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টি চট্টগ্রাম মহানগর সভাপতি ও ২০ দলীয় জোট নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ ইলিয়াস বলেছেন, বর্তমান কর্তৃত্ববাদী সরকার ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারী দেশের জনগণের ভোটাধিকার হরণ করে নির্বাচনের প্রহসনের নাটক মঞ্চস্থ করে গণতন্ত্র হত্যা করেছে। এ দিনটি বাংলাদেশের রাজনৈতিক ইতিহাসে একটি কলঙ্কিত দিবস হিসেবে চিহ্নিত হয়ে থাকবে। আজ ৫ জানুয়ারী শুক্রবার সকাল ১১ টায় ২০ দলীয় জোট আয়োজিত গণতন্ত্র হত্যা দিবসের আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারীর নির্বাচনে ১৫৪ জন সংসদ সদস্যকে বিনা ভোটে নির্বাচিত ঘোষণা করা হয়েছিল, সংসদীয় গণতন্ত্রের ইতিহাসে যার কোন নজির নেই।

 

৪৭টি ভোটকেন্দ্রে একজন লোকও ভোট দিতে যায়নি। সেই নির্বাচনের প্রহসন থেকে শুরু করে আজ পর্যন্ত দেশে উপজেলা, সিটি করপোরেশন, পৌরসভা, ইউনিয়ন পরিষদ ও জেলা পরিষদ নির্বাচন পর্যন্ত প্রায় সকল নির্বাচনই ছিল ষড়যন্ত্রমূলক প্রহসনের নাটক। এ সব নির্বাচন থেকেই প্রমাণিত হয়ে গিয়েছে যে, বর্তমান সরকারের অধীনে কোন নির্বাচনই অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হওয়া সম্ভব নয়। আজ ৫ জানুয়ারী শুক্রবার সকালে ২০ দলীয় জোটের উদ্যোগে ৫ জানুয়ারি গণতন্ত্র হত্যা দিবস উপলক্ষে আয়োজিত প্রতিবাদ সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির চট্টগ্রাম মহানগর সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ ইলিয়াস এবং বাংলাদেশ ন্যাপের চট্টগ্রাম সভাপতি ওসমান গণি সিকদারের সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মো. কামাল উদ্দিন আহমেদ, বাংলাদেশ লেবার পার্টির চট্টগ্রাম মহানগর সভাপতি মো. আলাউদ্দিন, জমিয়তুল ওলামা ইসলাম চট্টগ্রামের সমন্বয়কারী মাওলানা এম এ কাশেম ইসলামাবাদী, এনপিপি চট্টগ্রাম মহানগর সভাপতি আনোয়ার সাদেক, লেবার পার্টির চট্টগ্রাম মহানগর সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান, সিনিয়র সহ-সভাপতি আবচার আলী সেলিম, যুগ্ম সাধারণ মো. আবচার উদ্দিন, বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির চট্টগ্রাম মহানগরের এসিস্ট্যান্ট সেক্রেটারী মো. ইলিয়াছ সিকদার, বাংলাদেশ জাতীয় পার্টির চট্টগ্রাম মহানগর সাধারণ সম্পাদক ফিরোজ কবীর লিটন, মুসলিম লীগের চট্টগ্রাম মহানগর আহবায়ক কাজী নাজমুল হাসান সেলিম, ন্যাপের চট্টগ্রাম মহানগর সিনিয়র সহ-সভাপতি কমল বড়–য়া বিজয় প্রমুখ।

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *