পোল্ট্রি মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড-২০১৭ পেলেন কৃষি ও অর্থনীতি বিশ্লেষক এস এম মুকুল

বাংলাদেশে পোল্ট্রি শিল্পের উত্থান-পতন এবং সমস্যা-সম্ভাবনা নিয়ে বিস্তর লেখালেখির মাধ্যমে বিশেষ অবদান রাখার স্বীকৃতি হিসেবে লেখক এস এম মুকুল পোল্ট্রি মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড ২০১৭ অর্জন করেন। এস এম মুকুল পোল্ট্রি শিল্পের সম্ভাবনার প্রতি সরকার ও সংশ্লিষ্টদের দৃষ্টি আকর্ষনে বিস্তর লেখালেখি করেছেন- দৈনিক জনকন্ঠ, দৈনিক যায়যায়দিন, দৈনিক প্রতিদিনের সংবাদ, দৈনিক আলোকিত বাংলাদেশ, দৈনিক মানবকন্ঠ, দৈনিক বর্তমান, দৈনিক খোলা কাগজ, দৈনিক আজকের বাংলাদেশ, দৈনিক ডেসটিনি, কৃষি ও খামার ম্যাগাজিন, কৃষি বার্তা এবং এগ্রিলাইফ টুয়েন্টি ফোর এবং বহুমাত্রিক ডটকম অনলাইন সংবাদ মাধ্যমে। ২৩ ডিসেম্বর ২০১৭ তারিখ পোল্ট্রি মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড-২০১৭’ সিআইসিসি হল, সিরডাপ, তোপখানা রোড, ঢাকায় সংবাদপত্র, সংবাদ সংস্থা ও অন-লাইন, টিভি ও রেডিও, পোল্ট্রি/কৃষি ম্যাগাজিন/অনলাইনে পোল্ট্রি বিষয়ক লেখালেখির মাধ্যমে এই শিল্পে বিশেষ অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে এ পুরস্কার দেয়া হয়।
বাংলাদেশ পোল্ট্রি ইন্ডাষ্ট্রিজ সেন্ট্রাল কাউন্সিল (বিপিআইসিসি), দ্বিতীয়বারের মত এ পুরস্কার প্রদান করে। ব্যবস্থাপনায় ছিল ওয়াচডগ বাংলাদেশ। ৫টি ক্যাটাগরিতে মোট ৯ জন সংবাদ-প্রতিবেদককে পুরস্কার প্রদান করা হয়। দৈনিক জনকন্ঠ, দৈনিক কালেরকন্ঠ, দৈনিক ইনডিপেন্ডেন্ট, যমুনা টিভি, চ্যানেল-২৪, এটিএন নিউজ, সুপ্রভাত বাংলাদেশ, বিএসএস ও এগ্রিলাইফ২৪ এর প্রতিবেদক পুরস্কৃত হয়েছেন। ‘পোল্ট্রি ও কৃষি বিষয়ক ম্যাগাজিন/অনলাইন’ ক্যাটাগরিতে একমাত্র পুরস্কার লাভ করেন এগ্রিলাইফ২৪.কম এর কন্ট্রিবিউটর কলামিস্টএস এম মুকুল। বিপিআইসিসি’র মিডিয়া এভিাইজার মো. সাজ্জাদ হোসেন পুরস্কারপ্রাপ্ত লেখক এস এম মুকুলকে অনুভুতি প্রকাশের আহ্বান জানিয়ে সকলের উদ্দেশ্যে বলেন- উল্লেখ করা প্রয়োজন পোল্ট্রি ইন্ডাস্ট্রির সম্ভাবনাকে জাগরিত করার লক্ষ্যে প্রিন্ট ও অনলাইনে তিনি বলা যায় সর্বাধিক প্রতিবেদন করেছেন। পুরস্কারের অনুভূতি প্রকাশে লেখক-কলামিস্ট এস এম মুকুল বলেন- ২০০৬ সাল থেকে পোল্ট্রি ইন্ডাস্ট্রির’ কল্যাণে লেখালেখি করছি। এই শিল্পের সম্ভাবনাকে জাগিয়ে তোলবার লক্ষ্যে লেখালেখির মাধ্যমে এই প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে।
পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন- দৈনিক প্রথম আলো’র সহযোগী সম্পাদক আব্দুল কাইয়ুম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের চেয়ারম্যান প্রফেসর মোঃ মফিজুর রহমান এবং যমুনা টেলিভিশনের বিজনেস এডিটর, সাজ্জাদ আলম খান তপু। পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ পোল্ট্রি ইন্ডাষ্ট্রিজ সেন্ট্রাল কাউন্সিল (বিপিআইসিসি) -এর প্রেসিডেন্ট মসিউর রহমান। জনাব মসিউর রহমান বলেন- বিপিআইসিসি’র মিডিয়া মনিটরিং রিপোর্ট অনুযায়ী গত এক বছরে শুধুমাত্র জাতীয় দৈনিকে ৭০০’র বেশি রিপোর্ট প্রকাশিত হয়েছে। এর পাশাপাশি সংবাদ সংস্থা, অনলাইন এবং টেলিভিশনে ৩০০’র অধিক রিপোর্ট হয়েছে। পোল্ট্রি ইস্যুতে অনেকগুলো টিভি টকশো হয়েছে। ঢাকার বাইরে থেকে প্রকাশিত সংবাদপত্রগুলোতেও পোল্ট্রি বিষয়ক রিপোর্ট এবং আর্টিকেল প্রকাশিত হয়েছে। তিনি বলেন- সাম্প্রতিক সময়ে ডিম ও মুরগির মাংসের দাম রেকর্ড পরিমাণ কমেছে। উক্ত অনুষ্ঠানে এগ্রিলাইফ২৪.কম-এর সম্পাদক কৃষিবিদ মো:শফিউল আজম, প্রকাশক কানিজ ফাতেমা এবং এগ্রিলাইফ২৪.কম-এর প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

এস এম মুকুল কৃষি অর্থনীতি বিশ্লেষক, লেখক ও কলামিস্ট হিসেবে পরিচিত। কৃষি অর্থনীতির বিষয় ছাড়াও তিনি সামাজিক ও রাজনৈতিক অসঙ্গতি, মানবীয় কল্যাণ সর্বোপরি বোধ পরিবর্তনের আন্দোলন হিসেবে তিনি ইতিবাচক বিষয়ে দেশের জাতীয় সংবাদ মাধ্যমগুলোতে বিস্তর লেখালেখি করেন। তিনি সাপ্তাহিক শিক্ষাবিচিত্রার সহকারি সম্পাদক, মাসিক সায়েন্স ওয়ার্ল্ডের সহযোগি সম্পাদক, সাপ্তাহিক যুববার্তার নির্বাহী সম্পাদক, সাপ্তাহিক দেশপত্র পত্রিকার বিশেষ প্রতিনিধি, জনতার নিউজ টুয়েন্টি ফোর ডটকম-এর ফিচার সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন। বর্তমানে তিনি এগ্রিলাইফ টুয়েন্টি ফোর এর কন্ট্রিবিউটর কলামিস্ট এবং বহুমাত্রিক ডটকম এর ফিচার এডিটর হিসেবে কাজ করছেন। তিনি দৈনিক প্রতিদিনের সংবাদে নিয়মিত কলাম ‘সমকালের কড়চা’র লেখক। এছাড়াও তিনি দৈনিক প্রতিদিনের সংবাদ, যুগান্তর, যায়যায়দিন, আলোকিত বাংলাদেশ, ভোরের কাগজ, বর্তমান, মানবকন্ঠ, ইনকিলাব, ইত্তেফাক, আজকের বাংলাদেশ, খোলা কাগজসহ বিভিন্ন পত্রিকায় উপসম্পাদকীয়তে লিখছেন। দৈনিক জনকন্ঠের অর্থনীতি পাতা এবং দৈনিক যায়যায়দিনের কৃষি ও সম্ভাবনা পাতায় নিয়মিতভাবে কৃষি অর্থনীতি এবং বাংলাদেশের শিল্প-সম্পদ-সম্ভাবনা বিষয়ে ফিচার লিখছেন। লেখক এস এম মুকুল-এর প্রকাশিত গ্রন্থ সংখ্যা-২৩টি। উল্লেখযোগ্য গ্রন্থগুলোর মধ্যে রয়েছে- ‘সমবায় আন্দোলন’, ‘বাংলার সম্পদ’, ‘সাংবাদিকতায় ক্যারিয়ার’, ‘যারা শিক্ষক হতে চান’, ‘রূপকল্প ২০২১ : উন্নয়ন ভাবনায় বাংলাদেশ’, ‘বাংলাদেশের শিল্প-সম্পদ-সম্ভাবনা’। ২০১৮ সালের একুশে বইমেলা উপলক্ষ্যে তাঁর প্রকাশিতব্য গ্রন্থ- ‘সফল হওয়ার সহজ উপায়’ এবং ‘ক্যারিয়ারে সফলতার দিক-নির্দেশনা’। এস এম মুকুলের জন্ম ৩১ ডিেিসম্বর ১৯৭৬ নেত্রকোনা জেলার বারহাট্টা থানার সিংধা ইউনিয়নের ভাটিপাড়া গ্রামের শাহ্ বাড়িতে।

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *