Breaking News
Home / আইন বিচার / সাতকানিয়ায় রাস্তা থেকে জোর করে ধরে নিয়ে পাহাড়ে রাতভর দুই শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ

সাতকানিয়ায় রাস্তা থেকে জোর করে ধরে নিয়ে পাহাড়ে রাতভর দুই শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ

সাতকানিয়ায় রাস্তা থেকে জোর করে ধরে নিয়ে পাহাড়ে রাতভর দুই শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ

 

সিটিজি ট্রিবিউন চট্টগ্রাম প্রতিনিধি;

চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় রাস্তা থেকে জোর করে ধরে নিয়ে পাহাড়ে রাতভর দুই শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। গত
সোমবার (৭ ফেব্রুয়ারি) উপজেলার এঁওচিয়া ইউনিয়নের লামিম্মার পাহাড়ে এ ঘটনা ঘটে।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে শুক্রবার রাতে ভুক্তভোগী এক শিক্ষার্থীর বাবা থানায় মামলা করলে তাৎক্ষণিক অভিযান চালিয়ে পুলিশ অভিযুক্ত দুই কিশোরকে গ্রেপ্তার করে। শনিবার দুপুরে তাদের আদালতে পাঠানো হলে বিষয়টি প্রকাশ্যে আসে।

গ্রেপ্তাররা হলেন, এওচিয়া টুডির বাড়ি এলাকার মো. ইউনুছের ছেলে মেজবাহ উদ্দিন এবং কাঞ্চনা বকশিরখীল ৭ নম্বর ওয়ার্ড এলাকার মো. আলমগীর।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, সোমবার (৭ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে উপজেলার এওচিয়া ইউনিয়নের টুডির বাড়ি এলাকার পাশে স্থানীয় দোকানে পান আনতে বের হয় দুই শিক্ষার্থী। তারা সম্পর্কে খালা-ভাগ্নি। সেখান থেকে অভিযুক্ত দুই কিশোর তাদের ধরে নিয়ে সিএনজিতে তুলে ইছামতি আলীনগরের নির্জন পাহাড়ে নিয়ে রাতভর ধর্ষণ করে পালিয়ে যায়। পরদিন সকালে তারা বাড়িতে ফিরে এসে ঘটনার বর্ণনা দেয়।

ধর্ষণের শিকার কিশোরীর বাবা মেয়ে ও শালিকাকে উদ্ধার করে সাতকানিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। পরে তাদের চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসা শেষে শুক্রবার রাতে থানায় মামলা করেন। মামলার পরপর পুলিশের একটি টিম অভিযুক্তদের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে সাতকানিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ আবদুল জলিল বলেন, ভুক্তভোগীর এক শিক্ষার্থীর বাবা থানায় মামলা করলে তাৎক্ষণিক পুলিশের টিম পাঠিয়ে অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করা হয়। শনিবার দুপুরে তাদের আদালতে পাঠানো হয়েছে।

 

About Ayaz Ahmed

Check Also

মৃত্যু রোধ ও ক্ষয়ক্ষতি হ্রাসে শক্তিশালী তামাক নিয়ন্ত্রণ আইনের কোন বিকল্প নেই :স্বাস্থ্যমন্ত্রী

মৃত্যু রোধ ও ক্ষয়ক্ষতি হ্রাসে শক্তিশালী তামাক নিয়ন্ত্রণ আইনের কোন বিকল্প নেই :স্বাস্থ্যমন্ত্রী   আয়াজ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *