Breaking News
Home / জাতীয় / রাবিতে হিমেলের জানাজায় শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের ঢল

রাবিতে হিমেলের জানাজায় শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের ঢল

রাবিতে হিমেলের জানাজায় শিক্ষকশিক্ষার্থীদের ঢল

সিটিজি্ট্রিবিউন: ট্রাকচাপায় নিহত রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রাফিক্স ডিজাইন বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী মাহমুদ হাবীব হিমেলের জানাজা কেন্দ্রীয় মসজিদ প্রাঙ্গণে সম্পন্ন হয়েছে। সেখানে অংশ নিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শত শত শিক্ষক-শিক্ষার্থী। পুরো প্রাঙ্গণটি কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে উঠেছিল।

এর আগে বুধবার সকাল ৯টায় রাজশাহী মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের মর্গ থেকে লাশ বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের নিয়ে যাওয়া হয়। সেখান থেকে সাড়ে ১০টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয় মসজিদ প্রাঙ্গণে জানাজার জন্য লাশটি আনা হয়। পরে কেন্দ্রীয় মসজিদের প্রধান ইমাম ফাহিম মাহমুদের ইমামতিতে জানাজা সম্পন্ন হয়।

পরে বিশ্ববিদ্যালয় ভিসি প্রফেসর ড. গোলাম সাব্বির সাত্তার তাপুর নেতৃত্বে মাহমুদের লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তরের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসে নাটোরের উদ্দেশে রওনা হয়।

এর আগে মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি)  জিয়া হলের সামনের রাস্তা দিয়ে তিন শিক্ষার্থী মোটরসাইকেলে শহীদ হবিবুর হলের দিকে যাচ্ছিলেন। বিপরীত দিক দিয়ে আসা পাথরবোঝায় ট্রাক ওই মোটরসাইকেলটিকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যান চারুকলা অনুষদের শিক্ষার্থী মাহবুব হাবিব হিমেল। অন্য দুই শিক্ষার্থী গুরুতর আহত হন।

মাহবুব হাবিব হিমেল নিহতের খবর শুনে সহপাঠীরা ঘটনাস্থলে কান্নায় ভেঙে পড়েন। ঘটনার প্রতিবাদে তারা ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ করছেন। নিহত মাহবুব চারুকলা অনুষদের ২০১৬-১৭ বর্ষের ছাত্র।

শিক্ষার্থী নিহতের খবর ছড়িয়ে পড়লে বিভিন্ন হলের আবাসিক শিক্ষার্থীরা ক্যাম্পাসে জড়ো হয়ে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের বিরুদ্ধে স্লোগান দিতে থাকেন। শিক্ষার্থীরা নির্মাণাধীন ভবনে জড়ো হন। একপর্যায়ে বিক্ষুদ্ধ শিক্ষার্থীরা নির্মাণকাজে নিয়েজিত ৫টি ট্রাকে আগুন লাগিয়ে দেয়। এতে পুরো এলাকায় আগুন ছড়িয়ে পড়ে। আগুনে ট্রাকের টায়ার বাস্ট হলে বিকট শব্দ হয়। পুরো ক্যাম্পাসে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।
এদিকে শিক্ষার্থীদের দাবির মুখে রাতেই উপাচার্য গোলাম সাব্বির সাত্তার মৌখিকভাবে ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর মো. লিয়াকত আলীকে প্রত্যাহার করার ঘোষণা দেন। পরে শিক্ষার্থীরা উপাচার্যের কাছে লিখিতভাবে ৭ দফা দাবি দিয়ে সকাল পর্যন্ত আন্দোলনে বিরতি ঘোষণা দেন।

শিক্ষার্থীদের দাবিগুলোর প্রসঙ্গে জনসংযোগ দপ্তরের প্রশাসক প্রদীপ কুমার পাণ্ডে জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে প্রাথমিকভাবে উপাচার্য পাঁচ লাখ টাকার একটি চেক মাহমুদের মায়ের হাতে তুলে দেয়া হবে। এছাড়া শিক্ষার্থীদের দাবিগুলোর বিষয়েও আজ কথা হবে।

মতিহার থানার তদন্ত কর্মকর্তা মেহেদী হাসান যুগান্তরকে বলেন, একজন শিক্ষার্থী নিহত হয়েছেন। অন্য দুজন শিক্ষার্থীকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ৩১ নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের অবস্থা খুবই খারাপ। শিক্ষার্থীরা ক্যাম্পাসের ভেতরে বিক্ষোভ করে।।প্রতিবেদন :কেইউকে।

About kamal Uddin khokon

Check Also

সদরঘাটে দুর্ঘটনায় বিআইডব্লিউটিএর তদন্ত কমিটি

সদরঘাটে দুর্ঘটনায় বিআইডব্লিউটিএর তদন্ত কমিটি   সিটিজিট্রিবিউন: ঢাকা: সদরঘাটে লঞ্চের দড়ি ছিঁড়ে পাঁচ যাত্রী নিহত হওয়ার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *