Breaking News
Home / আন্তর্জাতিক / পিএমএল-এন জিতলে কে হবেন প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ, শাহবাজ নাকি মরিয়ম

পিএমএল-এন জিতলে কে হবেন প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ, শাহবাজ নাকি মরিয়ম

পিএমএল-এন জিতলে কে হবেন প্রধানমন্ত্রী
নওয়াজ, শাহবাজ নাকি মরিয়ম
সিটিজিট্রিবিউন: পাকিস্তানের আসন্ন নির্বাচনে তার দল জিতলে চতুর্থবারের মতো প্রধানমন্ত্রী হওয়ার সিদ্ধান্ত এখনো নেননি নওয়াজ শরিফ। তবে কেউ কেউ বলছেন, নওয়াজ শরিফ প্রধানমন্ত্রী হলে তা তাদের জন্য ‘গণতন্ত্রের মধুর প্রতিশোধ’ হবে- যারা ২০১৭ সালে তাকে প্রধানমন্ত্রী পদ থেকে সরিয়ে দিয়েছিলেন।
একজন পিএমএল-এন (পাকিস্তান মুসলিম লিগ-নওয়াজ) নেতা এবং নওয়াজ শরিফের ঘনিষ্ঠ সহযোগী দ্য নিউজকে বলেছেন, নওয়াজ শরিফ তার দলের দ্বিতীয় স্তরের নেতৃত্বের সাথে এমন কোনো অভিপ্রায় এখনো শেয়ার করেননি। শরিফ পরিবারের মধ্যে এ ধরনের কোনো সিদ্ধান্ত হলেও তা দলের অধিকাংশ নেতারই জানা নেই বলেও সূত্রটি জানিয়েছে।
তবে বলা হচ্ছে, দল হিসেবে পিএমএল-এন চতুর্থবারের মতো নওয়াজ শরিফকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দেখতে চায়। দলটির ওই সূত্র পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যমটিকে জানিয়েছে, এবারের নির্বাচনে নওয়াজকে চতুর্থবারের মতো প্রধানমন্ত্রী করার স্লোগান গ্রহণ করেছে পিএমএল-এন।
দলটির কেউ কেউ বলছেন, এটি (নওয়াজের প্রধানমন্ত্রী হওয়া) ২০১৭ সালে নওয়াজ শরিফকে প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে অপসারণকারীদের জন্য গণতন্ত্রের একটি মধুর প্রতিশোধ হবে।
পিএলএম-এন দলীয় সূত্রটি বলেছে, দলটি নওয়াজকে চতুর্থবারের মতো প্রধানমন্ত্রী করবে; এর পর যে কোনো সময় পদত্যাগ করে অন্য কাউকে প্রধান নির্বাহী হিসেবে মনোনীত করা তার ওপর নির্ভর করবে।
পিএমএল-এন সূত্রটি আরও বলেছে, প্রথম ধাপ অর্থাৎ নওয়াজকে চতুর্থবারের মতো প্রধানমন্ত্রী করার বিষয়ে নিশ্চিত। দ্বিতীয় পর্যায় সম্পূর্ণরূপে নওয়াজের সিদ্ধান্ত হবে- কখন তিনি পদত্যাগ করবেন এবং কাকে তিনি তার উত্তরসূরি হিসেবে বেছে নেবেন।
প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নির্বাচনে পিএমএল-এন জিতলে নওয়াজ শরিফ আরেকবারের জন্য প্রধানমন্ত্রী হবেন কিনা তা নিশ্চিত নয় স্বাধীন সূত্রগুলোর মতে। নওয়াজ শেষ পর্যন্ত কী সিদ্ধান্ত নেবেন তা অনেকেই নিশ্চিত নন। যাইহোক, এমনকি পিএমএল-এন-এর মধ্যেও কেউ কেউ নিশ্চিত নন যে, আগামী নির্বাচনে মুসলিম লিগের পক্ষে সর্বাধিক ভোটারকে আকৃষ্ট করার জন্য এই স্লোগান (নওয়াজকে প্রধানমন্ত্রী করা) তৈরি করা হয়েছে কিনা।
প্রধানমন্ত্রী পদে নওয়াজের সম্ভাব্য পছন্দ হিসেবে আলোচনায় রয়েছেন শাহবাজ শরিফ ও মরিয়ম নওয়াজ। তবে অনেকে মনে করেন, মরিয়ম তার অনভিজ্ঞতার কারণে এবং নির্দিষ্ট মহলে অগ্রহণযোগ্যতার আশঙ্কায় এখনো সেই পজিশন তৈরি করতে পারেননি। বরং মরিয়মকে পাঞ্জাবে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব দেওয়া হতে পারে।
এক্ষেত্রে সুবিধাজনক অবস্থানে রয়েছেন শাহবাজ শরিফ। কারণ তার যথেষ্ট অভিজ্ঞতা রয়েছে। আরও গুরুত্বপূর্ণ কারণ হলো- তার সঙ্গে কখনও ইস্টাব্লিশমেন্টের (সেনাবাহিনী) সরাসরি সংঘাত হয়নি। বরং তিনি সকল স্টেকহোল্ডারের সাথে কাজ করতে পছন্দ করেন।
বিপরীতে নওয়াজ শরিফ সম্পর্কে, এমনকি পিএমএল-এন-এর মধ্যেও বলা হয় এবং বিষয়টি গৃহীত যে, তিনি যখনই প্রধানমন্ত্রী হয়েছেন তখন প্রতিবারই ইস্টাব্লিশমেন্টের সাথে তার ঝামেলাপূর্ণ সম্পর্কের ইতিহাস রয়েছে।
তাছাড়া বিগত গত ছয়-সাত বছর ধরে দেশে কী ঘটছে- তা নওয়াজও শিগগিরই বুঝতে পেরেছেন, কারণ মাঠের বাস্তবতা হাইব্রিড গণতন্ত্রের পক্ষে অনেক পরিবর্তিত হয়েছে।
নওয়াজ শরিফ ইতোমধ্যেই তার সরকারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র, অপসারণ এবং তাকে আজীবনের জন্য অযোগ্য ঘোষণার সঙ্গে জড়িত জেনারেল এবং বিচারকদের জবাবদিহি করার বিষয়ে তার নীতি (ন্যারেটিভ) পরিবর্তন করেছেন। বরং এখন তার পলিসি (কৌশল) হলো দেশের অর্থনীতিকে চাঙ্গা করার মাধ্যমে জনগণের সমৃদ্ধ ভবিষ্যত নিশ্চিত করা।প্রতিবেদন:কেইউকে।

About kamal Uddin khokon

Check Also

পাকিস্তানে ৪৮ ঘণ্টার ভারী বৃষ্টিতে বাড়িধস, ভূমিধসে অন্তত ২৯ জন নিহত

পাকিস্তানে ৪৮ ঘণ্টার ভারী বৃষ্টিতে বাড়িধস, ভূমিধসে অন্তত ২৯ জন নিহত সিটিজিট্রিবিউন: পাকিস্তানে ৪৮ ঘণ্টার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *