Breaking News
Home / বিনোদন / ধনুষ-ঐশ্বর্যার বিয়ে টেকাতে মরিয়া থালাইভা, বিচ্ছেদ নিয়ে এখনও ছুতমার্গ!

ধনুষ-ঐশ্বর্যার বিয়ে টেকাতে মরিয়া থালাইভা, বিচ্ছেদ নিয়ে এখনও ছুতমার্গ!

ধনুষ-ঐশ্বর্যার বিয়ে টেকাতে মরিয়া থালাইভা, বিচ্ছেদ

নিয়ে এখনও ছুতমার্গ!

সিটিজিট্রিবিউন: মেয়ের দাম্পত্যের ১৮ বছর পর বিচ্ছেদের খবর পেয়ে মেয়ের বাবা স্তম্ভিত। তিনি জামাইয়ের সঙ্গে দেখা করতে চান। আর শ্বশুরের সেই প্রস্তাব সরাসরি নাকচ করে দেন জামাই। এ ঘটনা আমাদের খুব চেনা। সম্প্রতি খবরের শিরোনামে থাকা তামিল ইন্ডাস্ট্রির অভিনেতা ধনুষ-ঐশ্বর্যার (অভিনেতা রজনীকান্তের কন্যা) বিচ্ছেদ। এই সময়ের সবচেয়ে চর্চিত বিষয়।
কিন্তু কেন দক্ষিণী ছবির ‘থালাইভা’ রজনীকান্তের মতো ব্যক্তিত্ব মেয়ের নিশ্চিত বিচ্ছেদের কথা জেনেও তাঁর জামাই ধনুষের দ্বারস্থ হওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করলেন? বিয়ে টিকিয়ে রাখা কি সত্যিই খুব জরুরি?

২০০৪ সালের ১৮ নভেম্বর ধনুষের সঙ্গে রজনীকান্তের বড় মেয়ে ঐশ্বর্যার বিয়ে হয়। যাত্রা এবং লিঙ্গা— দুই পুত্রসন্তানের অভিভাবক তাঁরা। বড় ছেলের জন্ম ২০০৬ সালে। ২০১০ সালে ছোট ছেলের জন্ম।

২০০৩ সালে ধনুষের ‘কাধাল কোনদেন’ ছবি মুক্তির সময়ে ঐশ্বর্যার সঙ্গে তাঁর প্রথম সাক্ষাৎ। তখনও একে অপরকে চিনতেন না তাঁরা। ছবি শেষ হওয়ার পর প্রেক্ষাগৃহের মালিক রজনীকান্তের কন্যার সঙ্গে ধনুষের পরিচয় করিয়ে দিয়েছিলেন। সে দিন যদিও সৌজন্য বিনিময়টুকুই হয়েছিল। তার বেশি কথা এগোয়নি। কিন্তু এর পর যা ঘটেছিল, তাতে আপ্লুত হয়েছিলেন ধনুষ। প্রথম সাক্ষাতের পরেই ধনুষের বাড়িতে ফুলের তোড়া পাঠিয়েছিলেন রজনী-কন্যা। সঙ্গে একটি কার্ড। তাতে লেখা, ‘ভাল কাজ করেছেন। যোগাযোগ রাখবেন।’ বিয়ের পরে এক সাক্ষাৎকারে ঐশ্বর্যা বলেছিলেন, ‘‘ধনুষের সঙ্গে আলাপের পর নিজেদের চিনতে চিনতেই আমাদের বিয়ে হয়ে গিয়েছিল।’’ সেই বিয়ে ভাঙার বা দু’জনের আলাদা থাকার খবর নেটমাধ্যমে দিতে গিয়ে ধনুষ যেমন হিন্দু দেবতা শিবকে নমস্কার জানিয়েছেন তেমনি সকলকে ভালবাসা ছড়িয়ে দিতে বলেছেন।।প্রতিবেদন:কেইউকে।

About kamal Uddin khokon

Check Also

রশ্মিকা নয়, ম্রুণালের চোখে-ঠোঁটে মজে বিজয়, হঠাৎ হলটা কী অভিনেতার?

রশ্মিকা নয়, ম্রুণালের চোখে–ঠোঁটে মজে বিজয়, হঠাৎ হলটা কী অভিনেতার?   সিটিজিট্রিবিউন: বিজয় দেবেরাকোণ্ডা ও …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *