Breaking News
Home / রাজনীতি / জামিন পাননি বিএনপির আমীর খসরু-স্বপন-প্রিন্স

জামিন পাননি বিএনপির আমীর খসরু-স্বপন-প্রিন্স

জামিন পাননি বিএনপির আমীর খসরু-স্বপন-প্রিন্স
সিটিজিট্রিবিউন: বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, মিডিয়া সেলের আহ্বায়ক জহির উদ্দিন স্বপন ও সাংগঠনিক সম্পাদক এমরান সালেহ প্রিন্সের জামিন নামঞ্জুর করেছেন আদালত। আজ বুধবার (৬ ডিসেম্বর) ঢাকার প্রথম অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক ফয়সাল আতিক বিন কাদের শুনানি শেষে তাদের জামিন নামঞ্জুর করেন। তাদের মধ্যে বিএনপির সমাবেশে পুলিশ সদস্য হত্যা মামলায় দলের আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী ও জহির উদ্দিন স্বপন এবং এমরান সালেহ প্রিন্স পুলিশের পিস্তল ছিনতাই মামলায় কারাগারে রয়েছেন। এদিন শুনানিতে আসামি পক্ষে ছিলেন সৈয়দ জয়নুল আবেদীন মেজবাহ, শেখ শাকিল আহম্মেদ রিপন, আকরম ও জাকির হোসেন জুয়েল। আর রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালতের অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর তাপস কুমার পাল। এর আগে আসামি পক্ষের আইনজীবী সৈয়দ জয়নুল আবেদীন মেজবাহ জামিন আবেদন করেন। সেই আবেদনের প্রেক্ষিতে আজকের দিন ধার্য করেছিলেন আদালত।
গত ২৮ অক্টোবর নয়াপল্টনে বিএনপির মহাসমাবেশে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়ায় দলের নেতাকর্মীরা। এর ফলে মহাসমাবেশ পণ্ড হয়ে যায়। সংঘর্ষে প্রাণ হারান পুলিশ সদস্য আমিরুল। এ ঘটনায় গত ২৯ অক্টোবর পল্টন মডেল থানায় মামলা করেন পুলিশের উপপরিদর্শক মাসুক মিয়া। মামলায় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে প্রধান আসামি ও দলের শীর্ষ নেতাসহ ১৬৪ জনের নাম উল্লেখ করা হয়।
অন্যদিকে সমাবেশের দিন পুলিশ ক্যান্টিনে ভাঙচুর করে এবং পুলিশের মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর ভাঙচুর, মোটরসাইকেলসহ বিভিন্ন গাড়ি ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ, পুলিশের ওপর হামলা ও তাদের মারধর করে পিস্তল ও আট রাউন্ড গুলিসহ ম্যাগাজিন ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনায় পৃথক মামলা হয়। গত ১ নভেম্বর পল্টন থানায় মামলাটি করেন খিলক্ষেত থানার উপপরিদর্শক শফিকুল ইসলাম। এ মামলায় বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীসহ ৪১৫ জনকে আসামি করা হয়। প্রতিবেদন:কেইউকে।

About kamal Uddin khokon

Check Also

মানুষ খেতে পারছে। একটা মানুষও না খেয়ে মরেনি: ওবায়দুল কাদের

মানুষ খেতে পারছে। একটা মানুষও না খেয়ে মরেনি: ওবায়দুল কাদের সিটিজিট্রিবিউন: দেশে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে না …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *