Breaking News
Home / জীবনযাপন / চট্টগ্রামে তুলনামূলক কম খরচে প্রথম সফল বোন ম্যারো ট্রান্সপ্লান্ট

চট্টগ্রামে তুলনামূলক কম খরচে প্রথম সফল বোন ম্যারো ট্রান্সপ্লান্ট

চট্টগ্রামে তুলনামূলক কম খরচে প্রথম সফল বোন ম্যারো ট্রান্সপ্লান্ট

নিজস্ব প্রতিবেদক :ব্লাড ক্যানসার বা লিউকিমিয়া, লিমফোমা, মায়েলোমা, অ্যাপ্ল্যাসটিক অ্যানিমিয়া, থ্যালাসেমিয়া ইত্যাদি রোগের কথায় সাধারণ মানুষ মাত্রই ভয় পান, বেঁচে থাকার আশা ছেড়ে দেন। কিন্তু বহু ক্ষেত্রে এই সব রোগে আক্রান্ত মানুষটি ফিরে আসেন জীবনের স্বাভাবিক ছন্দে। কোনও ম্যাজিক নয়, তা সম্ভব হয় বোন ম্যারো ট্রান্সপ্লান্ট বা অস্থিমজ্জা প্রতিস্থাপনের মাধ্যমে। আর এই কাজ সফলভাবে করে অন্যান্য কৃতি চট্টগ্রামে। বন্দর নগরী চট্টগ্রামে তুলনামূলক কম খরচে অস্থিমজ্জা প্রতিস্থাপন করে মাইলফলক সৃষ্টি করেছে এভারকেয়ার হাসপাতাল। চট্টগ্রামে প্রথমবারের মতো এখানে সফলভাবে অস্থিমজ্জা প্রতিস্থাপন বা বোন ম্যারো ট্রান্সপ্ল্যান্ট করেছে তারা।

সোমবার (৩০ জানুয়ারি) দুপুরে এভারকেয়ার হাসপাতালের অডিটোরিয়াম হল রুমে এ চিকিৎসা পদ্ধতি নিয়ে সংবাদ সম্মেলন এসব তথ্য জানায়   হেমাটোলজি ও (বিএমটি) সেন্টারের সিনিয়র কনসালটেন্ট ও কো-অর্ডিনেটর ডা. আবু জাফর মোহাম্মদ সালেহ।
যুগান্তকারী এই সাফল্যে নেতৃত্ব দেন এভারকেয়ার হাসপাতাল চট্রগ্রামের হেমাটোলজি ও বিএমটি সেন্টারের সিনিয়র কনসালটেন্ট ও কো-অর্ডিনেটর ডা.আবু জাফর মোহাম্মদ সালেহ এবং তার সঙ্গে ছিলেন অন্যান্য সহযোগীরা। দেশের বেসরকারি খাতে বিএমটি চিকিৎসায় অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছে বলেও জানানো হয় সংবাদ সম্মেলনে।

তবে বাংলাদেশে ব্যয়বহুল হওয়ায় খুবই কম সংখ্যক এ চিকিৎসা হয়।বন্দরনগরীতে এভারকেয়ার হসপাতাল সম্পন্ন হওয়া অটোলোগাস ধরনের এ বোন ম্যারো ট্রান্সপ্লান্ট (বিএমটি) রোগী বর্তমানে সুস্থ রয়েছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।
গত ১৯ জানুয়ারি এ ট্রান্সপ্ল্যান্ট করা হয়।বর্তমানে সুস্থ থাকায় ১১ দিন পর রোগীকে হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে।এমন সাফল্যে প্রতিক্রিয়া জানান হাসপাতালের সিইও সামির সিং।

এই চিকিৎসা ঢাকা থেকে ২ লাখ টাকা এবং পাশ্ববর্তী দেশ ভারতের চেয়ে প্রায় কয়েক লাখ টাকা কম খরচে এ চিকিৎসা  করা যাবে বলে দাবি করেন চিকিৎসক।

বোন ম্যারো ট্রান্সপ্ল্যান্টেশান (বিএমটি) বা স্টেম সেল প্রতিস্থাপন হল একটি প্রক্রিয়া যা ক্ষতিগ্রস্ত বোন ম্যারো রক্ত সৃষ্টিকারী স্বাস্থ্যকর স্টেম সেল দিয়ে প্রতিস্থাপন করা হয়। এটি সাধারণত দরকার হয় যখন বোন ম্যারো সঠিকভাবে কাজ করে না এবং পর্যাপ্ত পরিমাণে স্বাস্থ্যকর রক্ত কণিকা প্রস্তুত করতে পারে না।

About Ashiq Arfin

Check Also

রাজবাড়ী জেলার বহরপুরে জমে উঠেছে গ্ৰামীন শিল্পপণ্য মেলা

রাজবাড়ী জেলার বহরপুরে জমে উঠেছে গ্ৰামীন শিল্পপণ্য মেলা সিটিজি ট্রিবিউন নিজস্ব প্রতিবেদক   রাজবাড়ী জেলার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *