Breaking News
Home / আইন বিচার / চট্টগ্রামের চৌমুহনী হতে ৩০০ ঘনফুট চোরাই কাঠসহ ০৮ জন অবৈধ কাঠ পাচারকারী আটক।র‍্যাব-৭

চট্টগ্রামের চৌমুহনী হতে ৩০০ ঘনফুট চোরাই কাঠসহ ০৮ জন অবৈধ কাঠ পাচারকারী আটক।র‍্যাব-৭

চট্টগ্রামের চৌমুহনী হতে ৩০০ ঘনফুট চোরাই কাঠসহ ০৮ জন অবৈধ কাঠ পাচারকারী আটক।র‍্যাব-৭

 

সিটিজি ট্রিবিউন চট্টগ্রাম;

 

চট্টগ্রাম নগরীতে র‍্যাব-৭, চট্টগ্রাম গোপন সংবাদের মাধ্যমে জানতে পারে যে, কতিপয় চোরাই কাঠ ব্যবসায়ী অবৈধভাবে মিনি পিকআপযোগে চোরাই কাঠ পাচার করার উদ্দেশ্যে চট্টগ্রাম জেলার ডবলমুরিং থানাধীন চৌমুহুনী নামক স্থানে মজুদ করেছে।র‍্যাব-৭ জানায়

উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে গত ১৪ জুন  ০৪.৩০ মিনিটে র‍্যাব-৭, চট্টগ্রাম এর একটি আভিযানিক দল বর্ণিত স্থানে অভিযান পরিচালনা করে ২টি মিনিট্রাক বোঝাই কাঠসহ আসামী

১। ছোটন বিশ্বাস(৩৭),থানা-পটিয়া, জেলা-চট্টগ্রাম, ২। শাহিনুর আলম(২৮),থানাঃ-বাকলিয়া, জেলাঃ-চট্টগ্রাম, ৩। মোঃ রাইয়ান (২০),থানাঃ- দৌলতখান, জেলাঃ-ভোলা, ৪। মোঃ রুবেল(২৪), জেলা-ভোলা, ৫। নুর হোসেন(১৯),জেলাঃ-ভোলা, ৬। বুলু বিশ্বাস(৫০), থানা-কোতয়ালী, জেলা-চট্টগ্রাম, ৭। বেলাল আহমদ(৫৫), থানা-কোতয়ালী, জেলা-চট্টগ্রাম এবং ৮। আব্দুল জব্বার(৪৫),জেলা-চট্টগ্রামকে আটক করে।

পরবর্তীতে উপস্থিত সাক্ষীদের সম্মুখে আটককৃত আসামীদের স্বীকারোক্তি ও দেখানো মতে তাদের হেফাজতে থাকা মিনি পিকআপে মোট ৩০০ ঘনফুট চোরাই সেগুন, রদ্দা, চিড়াই,এবং গামারী কাঠ উদ্ধারসহ আসামীদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত আসামীদের জিজ্ঞাসাবাদে আরো জানা যায় যে, তারা দীর্ঘদিন যাবৎ সরকারী বনবিভাগের এসব উন্নত মানের কাঠ চোরাইভাবে সংগ্রহ ও প্রক্রিয়াজাত করে বিক্রয় করে আসছে।

উদ্ধারকৃত চোরাই কাঠের আনুমানিক মূল্য ৭ লক্ষ টাকা।

গ্রেফতারকৃত আসামী এবং উদ্ধারকৃত চোরাই কাঠ সংক্রান্তে পরবর্তী আইনানুগ কার্যক্রমের নিমিত্তে চট্টগ্রাম উত্তর বন বিভাগ এর নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে।

 

উল্লেখ্য“বাংলাদেশ আমার অহংকার” এই স্লোগান নিয়ে র‍্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব-৭) প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে বিভিন্ন ধরণের অপরাধীদের গ্রেফতারের ক্ষেত্রে জোড়ালো ভূমিকা পালন করে আসছে। র‍্যাব- সৃষ্টিকাল থেকে সমাজের বিভিন্ন অপরাধ এর উৎস উদঘাটন, অপরাধীদের গ্রেফতারসহ আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির সার্বিক উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে চলেছে।

র‍্যাব-৭, চট্টগ্রাম অস্ত্রধারী সস্ত্রাসী, ডাকাত, ধর্ষক, দুর্ধষ চাঁদাবাজ, সন্ত্রাসী, খুনি, ছিনতাইকারী, অপহরণকারী ও প্রতারকদের গ্রেফতার এবং বিপুল পরিমাণ অবৈধ অস্ত্র, গোলাবারুদ ও মাদক উদ্ধারের ক্ষেত্রে জিরো টলারেন্স নীতি অবলম্বন করায় সাধারণ জনগনের মনে আস্থা ও বিশ্বাস অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে।

 

About Ayaz Ahmed

Check Also

পাহাড়তলী থেকে ০১টি বিদেশী পিস্তল কাতুর্জসহ ১জন অস্ত্রধারী আটক

পাহাড়তলী থেকে ০১টি বিদেশী পিস্তল কাতুর্জসহ ১জন অস্ত্রধারী আটক    সিটিজি ট্রিবিউন চট্টগ্রাম:   চট্টগ্রাম …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *