যে মন্তব্যে ‘খলনায়ক’ রজনীকান্ত -

যে মন্তব্যে ‘খলনায়ক’ রজনীকান্ত

ভারতের সুবিধাবঞ্চিত নিম্নবর্ণের হিন্দুদের নিয়ে কাজ করা পেরিয়ার ইভি রামস্বামীকে নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করায় বিক্ষোভের মুখে পড়েছেন দেশটির কিংবদন্তি চলচ্চিত্র তারকা রজনীকান্ত। গতকাল শুক্রবার হওয়া এ বিক্ষোভে তামিলনাড়ুর বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের সঙ্গে রাজ্যের সাধারণ মানুষও অংশ নেয়। খবর আল-জাজিরা।

সম্প্রতি ভারতের বিখ্যাত তামিল ম্যাগাজিন তুঘলক’র ৫০ বছর পুর্তি উপলক্ষে এক অনুষ্ঠানে ইভি রামাস্বামীর ১৯৭১ সালের একটি পদযাত্রা নিয়ে মন্তব্য করতে গিয়ে রজনীকান্ত বলেন, ১৯৭১ সালের এক পদযাত্রায় রাম ও সীতার উলঙ্গ ছবি ব্যবহার করেছিলেন ইভি রামস্বামী। ছবিতে জুতার মালা ব্যবহার করে ঐ পদযাত্রা তিনি ‘সালেম’ নামক স্থানে নিয়ে গিয়েছিলেন।

তিনি আরো বলেন, ১৯৭১ সালের পদযাত্রার ছবিগুলো তুঘলক ম্যাগাজিনে ছাপা হয়। কিন্তু প্রকাশের পর তা নিয়ে বিতর্ক শুরু হলে সেটি বাজেয়াপ্ত করা হয়।

রজনীকান্তের এমন মন্তব্যের পর শুরু হয় সমালোচনা। পেরিয়ায় সমর্থকরা তার মন্তব্যকে বানোয়াট এবং তা বাতিল করে ক্ষমা চাইতে বলেন।

তামিলনাড়ুর ভিদুথালাই চিরুথাইগাই কাটচির (ভিসিকে) নামক এক রাজনৈতিক দল মন্তব্য প্রত্যাহার না করায় রজনীকান্তের বাড়ি ঘেড়াও কর্মসূচি ঘোষণা করেছে।

পাশাপাশি তামিলনাড়ুর প্রধান রাজনৈতিক দল দ্রাবিড়িয়ান পার্টি রজনীকান্তের মন্তব্যের তীব্র নিন্দা ও সমালোচনা করেছে। তারা ভারতীয় কিংবদন্তির মন্তব্যকে চরম মিথ্যা বলে আখ্যা দিয়েছে।

তবে পেরিয়ার সমর্থক ও তামিলনাড়ুর বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের আহ্ববান উপেক্ষা করে গত মঙ্গলবার রজনিকান্ত একটি বিবৃতিতে জানান, পেরিয়ার ইভি রামস্বামীকে নিয়ে ঐ মন্তব্যের জন্য তিনি অনুতপ্ত নন এবং এর জন্য তিনি ক্ষমাও চাইবেন না। ১৯৭১ সালের ঐ পদযাত্রার কথা কেউ অস্বীকার করতে পারে না কিন্তু ঐ ঘটনা ভুলে যাওয়া উচিত।

রজনীকান্তের বিবৃতি প্রকাশের পর বিক্ষোভ শুরু করে দ্রাবিড়িয়ান পার্টি এবং এর অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা।

স্থানীয় রাজনৈতিক দল দ্রাবিড় বিদুথলাই কাজগমের (ডিভিকে) প্রতিষ্ঠাতা কোলাথুর মণি বলেন, রজনীকান্ত এমন অসত্য কথা বলছেন বাধ্য হয়ে। ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) থেকে তাকে চাপ দেয়া হচ্ছে। এর কারণ হচ্ছে রজনীকান্ত ২০২১ সালে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া রাজ্য নির্বাচনে বিজেপির হয়ে প্রতিনিধিত্ব করবেন। যার অংশ হিসেবে এখন থেকেই সক্রিয় হচ্ছেন তিনি।

আল-জাজিরার বরাতে জানা যায়, তামিলনাড়ু রাজ্যে একচ্ছত্র আধিপত্য বিস্তার করে রেখেছে স্থানীয় দ্রাবিড়িয়ান পার্টি। তাই দেশটির কেন্দ্রীয় সরকার ক্ষমতাসীন দল বিজেপি সেখানে প্রভাব বিস্তারের জন্য হাতিয়ার হিসেবে রজনীকান্তকে বেছে নিয়েছে। ২০১৭ সালে আনুষ্ঠানিকভাবে রাজনীতিতে যোগদানের ঘোষণা দেন তিনি। ২০২১ সালের রাজ্য নির্বাচনে বিজেপির হয়ে অংশ নেবেন ভারতের সুপারস্টার রজনীকান্ত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *