১৭০ কেন্দ্রের মধ্যে ১২০ কেন্দ্র দখলের অভিযোগ নির্বাচন স্থগিত চেয়েছে বিএনপির প্রার্থী -

১৭০ কেন্দ্রের মধ্যে ১২০ কেন্দ্র দখলের অভিযোগ নির্বাচন স্থগিত চেয়েছে বিএনপির প্রার্থী

চট্টগ্রাম-৮ আসনের (বোয়ালখালী চান্দগাঁও) উপ-নির্বাচনে কেন্দ্র দখল করে ভোটারদের বের করে দেয়া এবং সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিবেশ দেখানোর জন্য আওয়ামী লীগের দলীয় নেতাকর্মীরা লাইনে দাড়িয়ে থাকারসহ নানা অনিয়মের অভিযোগ তুলে নির্বাচন স্থগিত করে পূনরায় নির্বাচনের দাবী জানিয়েছে বিএনপি দলীয় প্রার্থী আবু সুফিয়ান।

দুপুরে নির্বাচন কমিশনারের বরাবরে দেয়া লিখিত অভিযোগে তিনি এই দাবী জানান।

তিনি জানান বিভিন্ন কেন্দ্রে ভোটারদের ইভিএম মেশিনে আঙ্গুলের পাঞ্চ নিয়ে ভোট কেন্দ্র থেকে বের করে দিয়ে ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীরা নৌকায় ভোট দিচ্ছে। ইতোমধ্যে আওয়ামী লীগের সন্ত্রাসীরা ১৭০টি কেন্দ্রের মধ্যে অস্ত্রের মুখে ১২০টি কেন্দ্র দখল করে নিয়েছে।

তারা বিএনপির অনেক নেতাকর্মীকে মারধর এবং ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে আহত করেছে।

এদিকে বেলা ১টায় নগরীর নাসিমন ভবনে দলীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে প্রার্থী আবু সুফিয়ান একই অভিযোগ তুলে ধরে নির্বাচন স্থগিত করে পূনরায় নতুন তারিখ ঘোষণার জন্য ইসির প্রতি দাবী জানান।

তিনি বলেন-ভোটাররা যেন ভোট দিতে না যায় সেজন্য ভয়ভীতি সৃষ্টি করা হয়েছে। ভোট কেন্দ্রে না যাওয়ার জন্য গতরাতে আমার এজেন্টদের হুমকি দেওয়া হয়েছে। যারা সকালে ভোট কেন্দ্রে যাচ্ছিলো তাদের অনেককে রাস্তায় মারধর করা হয়েছ। যারা সকল বাঁধা উপেক্ষা কেন্দ্রে গেছে তাদের অনেককে বুথে প্রবেশ করতে দেওয়া হয়নি। আবার যারা বুথে প্রবেশ করেছে তাদেরকেবেরও করে হয়েছে।

তিনি বলেন, ১৭০ কেন্দ্রে বেশিরভাগ কেন্দ্র দখল করে নয়ো হয়েছে। যদি কোন ভোটার ভোট দিতে গেলেও গোপন বুথে নৌকার লোকজন ফিঙ্গার ফ্রিন্ট দিয়ে দিচ্ছে। কাউকে ভোট দিতে দিচ্ছেনা।

সংবাদ সম্মেলনে মহানগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেন বলেন, সব গুলো কেন্দ্রে সকাল থেকে ছাত্রলীগ যুবলীগ দখল করে নিয়েছে। আমাদের লোকজনকে বের করে দেয়া হয়। প্রতিটি কেন্দ্রে ৪/৫শ ছাত্রলীগ যুবলীগ লাইন ধরে দাড়িয়ে থাকে যাতে দেখানো হয় ভোট সুষ্ঠু হচ্ছে। মোট ১৭০টি কেন্দ্রের মধ্যে ১২০টি কেন্দ্র থেকে ধানের শীষ প্রতীকের এজেন্টদের বের করে দিয়ে কেন্দ্র দখল করে নিয়েছে।

বিষয়টি আমরা নির্বাচন কমিশনারকে লিখিত দিয়েছি।

আজ সোমবার সকাল ৯টা থেকে শুরু হয় ভোট গ্রহণ। প্রথমে ভোট কেন্দ্রে পরিবেশ শান্ত থাকলেও পরে বিভিন্ন কেন্দ্র দখল করে নেয় বলে বিএনপি নেতারা অভিযোগ করেন।

সংবাদ সম্মেলনে নগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবুল হাসেম বক্কর কেন্দ্রিয় বিএনপি নেতা মাহবুবের রহমান শামীম মীর হেলালসহ অন্যান্য নেতৃবুন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *