তবু পিএসজিকে জেতাতে পারলেন না নেইমার -

তবু পিএসজিকে জেতাতে পারলেন না নেইমার

দুই গোল করেও প্যারিস সেন্ট জার্মেইকে (পিএসজি) ‘এল ক্যাশিকো’ জেতাতে পারলেন না নেইমার জুনিয়র। রোববার রাতে ফ্রেঞ্চ লিগ ওয়ানে ছয় গোলের থ্রিলার ম্যাচে পিএসজিকে ৩-৩ গোলে রুখে দিয়েছে এএস মোনাকো। লিগের চলতি আসরে এটাই প্রথম ড্র নেইমার-এমবাপ্পেদের। হার তিনটিতে। জয় ১৫টি।

অবশ্য ড্রয়ের পরও যথারীতি লিগ টেবিলের শীর্ষে আছে পিএসজি। ১৯ ম্যাচে ৪৬ পয়েন্ট টমাস টুখেলের দলের। এক ম্যাচ কম খেলে পাঁচ পয়েন্ট পিছিয়ে দুইয়ে আছে অলিম্পিক মার্শেই। তাদের পেছনে আছে যথাক্রমে রেঁনে, নঁতে ও লিল। তাদের পয়েন্ট ক্রমানুসারে ৩৩, ৩২ ও ৩১। ২৯ পয়েন্ট নিয়ে আটে থাকল সাবেক চ্যাম্পিয়ন মোনাকো।

‘এল ক্যাশিকো’ মহারণ শুরুতেই রূপ নেয় থ্রিলারে। ২৪ মিনিটে প্যারিসের পার্ক ডু স্টেডিয়াম দেখে ফেলেছে চার গোল! ঘরের মাঠে তিন মিনিটে নেইমারের গোলে লিড নেয় পিএসজি। চার মিনিট পর গেলসন মার্টিনের গোলে সমতায় ফেরে মোনাকো। একটু পর অতিথিরাই এগিয়ে যায় বেন ইয়েডারের সৌজন্যে।

২৪ মিনিটে সমতায় ফেরে পিএসজি। বাল্লো তোরের আত্মঘাতী গোলে স্কোর লাইন দাঁড়ায় ২-২ এ। নেইমারের শট তোরের শরীরে লেগে খুঁজে নেয় মোনাকোর জালের ঠিকানা। বিরতির আগেই দ্বিতীয়বার এগিয়ে যায় পিএসজি। পেনাল্টি থেকে নিজের দ্বিতীয় গোলটি করেন ব্রাজিলিয়ান স্ট্রাইকার নেইমার।

গোলের নেপথ্যে থাকলেন কিলিয়ান এমবাপ্পে। মোনাকোর ডি-বক্সে ফাউলের শিকার হন বিশ্বজয়ী ফরাসি সেনসেশন। স্পট কিক থেকে লিগের চলতি মৌসুমে গোল সংখ্যায় দুই অংকে পৌঁছান বিশ্বের সবচেয়ে দামি ফুটবলার নেইমার (৩-২)। কিন্তু দুই দফা এগিয়ে থেকেও জয়বঞ্চিত হতে হলো পিএসজিকে।

৭০ মিনিটে স্বাগতিক দর্শকদের গগনবিদারি চিৎকার থামিয়ে দেন ইসলাম স্লিমানি। স্কোর লাইন ৩-৩ বানিয়ে ফেলেন মোনাকোর আলজেরিয়ান ফরওয়ার্ড। কিন্তু গোলের সঙ্গে সঙ্গেই অফসাইডের পতাকা তোলেন লাইন্সম্যান্স। ভিএআরের সহায়তা নিয়েও সিদ্ধান্ত জানাতে দীর্ঘ সময় ব্যয় করলেন রেফারি। উৎকণ্ঠার এই গোলেই থামল পিএসজির জয়রথ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *